ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

বাঁশখালীতে মায়া হরিণ শিকারের দায়ে ৫ জনের কারাদণ্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা বাঁশখালী

প্রকাশিত: ১১:৪৬, ২২ মার্চ ২০২৩

বাঁশখালীতে মায়া হরিণ শিকারের দায়ে ৫ জনের কারাদণ্ড

ভ্রাম্যমাণ আদালত

রাতের আধারে গহীন অরণ্য হতে হরিণ শিকারের সময় জলদী অভয়ারণ্য রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা ও বিট অফিসারদের সমন্বয়ে চলা অভিযানে জবাইকৃত মায়া হরিণসহ ৫ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।  মায়া হরিণ শিকারের দায়ে আটককৃত ৫ জনের প্রত্যেকে ৬ মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) রাত ১১ টায় উপজেলার জলদী- চুনতি অভয়ারণ্যে রেঞ্জের  বন-বিভাগের সহযোগিতায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসান এর নেতৃত্বে এ  ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। এ সময় চুনতি অভয়ারণ্যে মায়া হরিণ শিকার করে জবাই ও পরিবহনের সময় আটককৃত ৫ ব্যক্তিকে এ শাস্তি প্রদান করেন আদালত। আটকরা হলেন— নাপোড়া গ্রামের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের  মো. আলীর ছেলে মো. জসিম (২১), আলী হোসেনের ছেলে মো. নেজাম (২০), নেয়ামত আলীর ছেলে মনজুর আলম (৩০), আব্দুল হকের ছেলে মো.  হোসেন (৪০), মকসুদ আলীর ছেলে কালু (১৮)।

বাঁশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসান বলেন, আটককৃত ৫ জনকে বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ২০১২ এর ২৩(২) ধারার অপরাধে ২৬(১ক) ধারায় ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।  এই সময় জবাইকৃত উদ্বার হওয়া মায়া হরিণটি মাটি চাপা দেওয়া হয় ও হরিণ ধরার কাজে ব্যবহৃত জাল পুড়িয়ে দেওয়া হয়। বণ্যপ্রাণী ও পরিবেশ রক্ষার্থে প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

টিএস

×