৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

সেই রান আউট এখনও রক্তাক্ত করে ধোনিকে

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:৫৬ পি. এম.
সেই রান আউট এখনও রক্তাক্ত করে ধোনিকে

অনলাইন ডেস্ক ॥ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে তিনি রান আউট হওয়ায় স্বপ্নভঙ্গ হয় ভারতের। নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে যেতে হয় ‘টিম ইন্ডিয়া’কে। ক্রিকেট ভক্তরা বলেন, রান আউট না হলে ধোনি হয়তো ম্যাচ বের করতে পারতেন। সেই ধোনি নীরবতা ভেঙে বললেন, ডাইভ দিলে হয়তো সে দিন রান আউটই হতেন না তিনি। ডাইভ না দেওয়ার জন্য এখনও তিনি ক্ষতবিক্ষত হন।

শেষ চারের লড়াইয়ে শেষ দু’ওভারে জেতার জন্য ভারতের দরকার ছিল ৩১ রান। ৪৯তম ওভারের প্রথম বলে ফার্গুসনের বলে ছক্কা মারেন ধোনি। দ্বিতীয় বলে রান নিতে পারেননি তিনি। তৃতীয় বলে দু’রানের জন্য দৌড়ন ধোনি। কিন্তু গাপটিলের থ্রো উইকেট ভেঙে দেয়। মাত্র দু’ ইঞ্চির জন্য ধোনি ক্রিজে পৌঁছতে পারেননি।

সেই রান আউট এখনও রক্তাক্ত করে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ককে। কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়তে দেখা যায় তাঁকে। বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের সেই রান আউট প্রসঙ্গে ধোনি ‘ইন্ডিয়া টুডে’কে বলেছেন, ‘‘প্রথম ম্যাচেও আমি রান আউট হয়েছিলাম। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালেও রান আউট হই। মনে মনে এখনও বলি, কেন যে ড্রাইভ দিলাম না! সে দিন আমার ড্রাইভ দেওয়াই উচিত ছিল।’’

ড্রাইভ মেরে রান নিচ্ছেন ধোনি, এমন দৃশ্য খুব একটা দেখা যায়নি। দৌড়ে কত রান নেওয়া সম্ভব, তা ভাল বিচার করতে পারেন ধোনি। কিন্তু সেমিফাইনালে মুহূর্তের ভুলে ধোনিকে ফিরে যেতে হয়। ওয়ানডে-র অভিষেক ম্যাচে বাংলাদেশের তাপস বৈশ্যর ছোড়া বলে রান আউট হয়েছিলেন ধোনি। বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের সেই হৃদয় বিদারক হারের পরে ধোনিকে কোনও মন্তব্য করতেই শোনা যায়নি। সেই ধোনিই নীরবতা ভেঙে বলে দিলেন, সেমিফাইনালে ড্রা্ইভ মারলে তিনি হয়তো রান আউটই হতেন না। তিনি টিকে থাকলে ভারত হয়তো ফাইনালেও পৌঁছত।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:৫৬ পি. এম.

১২/০১/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলা



শীর্ষ সংবাদ: