২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

পাটকল শ্রমিকদের আন্দোলন ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৮ পি. এম.
পাটকল শ্রমিকদের আন্দোলন ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত

অনলাইন রিপোর্টার ॥ জাতীয় মজুরি কাঠামো বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলনে থাকা রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোর শ্রমিকরা ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত কর্মসূচি স্থগিত করেছেন।

রবিবার শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ানের সঙ্গে শ্রমিক নেতাদের বৈঠকের পর বাংলাদেশ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ, নন-সিবিএ পরিষদের আহ্বায়ক সরদার আব্দুল হামিদ এ সিদ্ধান্ত জানান।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে আগামী ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনশন স্থগিত করার ঘোষণা দিচ্ছি। এর মধ্যে দাবি না মানা হলে ২৩ ডিসেম্বর থেকে আবারও আমরণ অনশন শুরু করব।”

এই শ্রমিক নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার করেছেন বলে শ্রম প্রতিমন্ত্রীর আশ্বস্ত করায় তারা স্থগিত রাখার আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন।

রাজধানীর মতিঝিলের বাংলাদেশ জুটমিল কর্পোরেশন ভবন সম্মেলনকক্ষে রবিবার সন্ধ্যায় শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ানের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে জাতীয় পাটকল শ্রমিক লীগের সভাপতি ফজলুল হকের নেতৃত্বে শ্রমিক লীগের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। বৈঠক শেষে তারা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনশন বন্ধ করার পক্ষে মতামত ব্যক্ত করলে আন্দোলনরত রাষ্ট্রীয় পাটকল সিবিএ ও নন-সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের নেতারা তাতে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ও সরকারের লেজুড়বৃত্তির অভিযোগ এনে শ্রমিকবিরোধী কাজ করছেন বলে চিৎকার শুরু করেন। এসময় দুপক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হতেও দেখা হয়।

জাতীয় পাটকল শ্রমিক লীগ চলমান আন্দোলনে অংশ নিচ্ছে না।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে খুলনার বিভাগীয় শ্রম অধিদপ্তর সম্মেলন কক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ও শ্রমিকদের মধ্যে মতবিনিময় সভা করে তিনি দিনের জন্য অনশন স্থগিত করা হয়েছিল।

তখন বলা হয়েছিল, রবিবারের মধ্যে দাবি মানা না হলে মঙ্গলবার থেকে আবারও অনশনে যাবেন শ্রমিকরা।

বৈঠকের পর মুন্নুজান সুফিয়ান সাংবাদিকদের বলেন, “আমি শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বলেছি যে আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। ২০১৫ সালের জুলাই মাসে যে উৎপাদনশীলতা মজুরি কমিশন অনুযায়ী যে নতুন মজুরি- এটা পাটকল শ্রমিকদের দেবেন বলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের আশ্বস্ত করেছেন।

“ওই বৈঠকে আমি ছাড়াও বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী, পাটমন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিব এবং বিজেএমসির চেয়ারম্যান ছিলেন। শ্রমিক নেতারা আমার অনুরোধ রেখে অনশন স্থগিত করেছেন, এতে আমি খুশি হয়েছি। তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে আমি যেন (খুলনায়) যেতে পারি সেই চেষ্টা আমি করব। দু’পক্ষের ধার্য দিনের মধ্যে যাওয়ার চেষ্টা করব।”

শেখ হাসিনা শুভঙ্করের ফাঁকি দেন না বলে মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী বলেন, “২০১৫ সালের জুলাই মাসে পাটকল শ্রমিকদের জন্য ৮ হাজার ৩০০ টাকা মজুরি ধরে যে গেজেট হয়েছে সেটা বাস্তবায়ন করবেন। শ্রমিকরা ঠকবেন তা উনি চান না।

“এই খাতকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য যা যা করণীয় তা তা উনি করবেন।”

প্রকাশিত : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৮ পি. এম.

১৫/১২/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: