২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে পৃথক সংঘর্ষে প্রতিবন্ধীসহ আহত ১৫

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৬ পি. এম.
গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে পৃথক সংঘর্ষে প্রতিবন্ধীসহ আহত ১৫

স্টাফ রিপোর্টার, গলাচিপা, পটুয়াখালী ॥ পটুয়াখালীর গলাচিপা ও রাঙ্গাবালী উপজেলায় পৃথক দু’টি সংঘর্ষের ঘটনায় বাক প্রতিবন্ধী যুবকসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এরমধ্যে ৯ জনকে গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গলাচিপার গোলখালী ইউনিয়নের চরহরিদেবপুর গ্রামের ইউনুস মাঝির পালিত হাঁস প্রতিবেশী আলী হোসেন চৌকিদারের পুকুরের পোনা মাছ খেয়ে ফেলেছে, এ অজুহাত তুলে সোমবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় আলী হোসেন চৌকিদারের ছেলে রাকিবুল চৌকিদারের নেতৃত্বে ১০/১২জন লোক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে ইউনুস মাঝির বাক প্রতিবন্ধী ছেলে হান্নান মাঝি, মইনুদ্দীন মাঝি, রাজিব মাঝি, হোসনেয়ারা বেগম ও সালমা বেগমসহ ৯ জনকে কুপিয়ে পিটিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় পাল্টা মারে আলী হোসেন চৌকিদার ও তার স্ত্রী নার্গিস বেগম আহত হয়। গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার মোর্শেদ জানান, ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ আসেনি। তবে ঘটনার খবর পেয়েছি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, রাঙ্গাবালী উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের নলবুনিয়া গ্রামে ধানকাটা নিয়ে সংঘর্ষে চারজন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, সাহেদ মাতুব্বর (৫৫), হালিদা বেগম (৪৫), হালেমা বেগম (৩৮) ও আব্দুল মান্নান হাওলাদার (৫৫)। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে নলবুনিয়া গ্রামের প্রায় ১২ একর কৃষি জমির মালিকানা নিয়ে সাহেদ মাতুব্বর ও সানু হাওলাদারের মধ্যে মামলা চলছে। বিরোধী জমিতে ধান চাষ করে সানু হাওলাদার। পাকা ধান কাটতে গেলে প্রতিপক্ষ সাহেদ বাধা দেয়। এনিয়ে দু’ পক্ষ তর্কবিতর্কের এক পর্যায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় গুরুতর অবস্থায় আহত মান্নান হাওলাদারকে গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আহম্মেদ বলেন, ধান কাটা নিয়ে নলবুনিয়া গ্রামে মারামারির কথা শুনেছি। এবিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৬ পি. এম.

১০/১২/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: