ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

বার্সার জালে এক হালি গোল দিয়ে শীর্ষে জিরোনা

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৪৩, ১২ ডিসেম্বর ২০২৩

বার্সার জালে এক হালি গোল দিয়ে শীর্ষে জিরোনা

স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সিলোনা ও জিরোনা ম্যাচে একটি আক্রমণের দৃশ্য

নিশ্চিত করেই বলা যায়, মৌসুম শুরুর আগে কেউই ভাবেননি যে জিরোনা এমন চমক দেখাবে। কিন্তু তুলনামূলক দুর্বল দলটিই একের পর এক দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্স প্রদর্শন করে চলেছে। এখন পর্যন্ত চলমান ২০২৩-২৪ মৌসুমের স্প্যানিশ লা লিগায় কেবল একটি ম্যাচ হেরেছে তারা। গত সেপ্টেম্বরে তাদের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু বাদবাকি ম্যাচে তারা দেখিয়েছে অনন্য পারফর্ম্যান্স। সে ধারাবাহিকতায় এবার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সিলোনার জালে এক হালি গোলের উৎসব করেছে জিরোনা। তাও আবার বার্সার মাঠ ন্যূক্যাম্পে। অর্থাৎ ম্যাচে অতিথি জিরোনা ৪-২ গোলে হারিয়েছে স্বাগতিক বার্সাকে। কাতালাদের আগে জিরোনা জিতেছে সেভিয়া, ভিয়ারিয়াল ও ভ্যালেন্সিয়ার মতো দলের বিরুদ্ধে। 
এবারসহ মাত্র চতুর্থবার লা লিগায় খেলছে জিরোনা। ১৯৩০ সালে কাতালুনিয়ায় প্রতিষ্ঠিত ক্লাবটি ২০১৭-১৮ মৌসুমে প্রথমবারের মতো লা লিগায় উঠেছিল। তবে পরের মৌসুমেই অবনমন হয় তাদের। এরপর গত ২০২২-২৩ মৌসুমে ফের শীর্ষ লিগে উঠে আসে তারা। ৩৮ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে সেবার তারা পেয়েছিল দশম স্থান। এবার সেখান থেকে এখন পর্যন্ত শীর্ষে আছে। মৌসুমের প্রায় মাঝপথ পেরিয়ে গেছে। এই সময়ে ১৬ ম্যাচে জিরোনার ভান্ডারে জমা পড়েছে সর্বোচ্চ ৪১ পয়েন্ট। ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেমে গেছে সাবেক চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সিলোনার অবনমন হয়েছে চার নম্বরে। 
নিজেদের মাঠে ৫৪ শতাংশ সময় বল দখলে রাখা বার্সিলোনা গোলমুখে ৩১টি শট নিয়ে ১১টি রাখে লক্ষ্যে। তবে জালে কেবল দুইবারই বল জড়াতে পারে কোচ জাভি হার্নান্দেজের শিষ্যরা। অন্যদিকে গোলমুখে ১৫টি শট নিয়ে সাতটি লক্ষ্যে রেখে চারটিকেই গোলে পরিণত করে জিরোনা। ম্যাচের ১২ মিনিটে আর্টেম ডভবিক জিরোনাকে এগিয়ে নেন। এর সাত মিনিট পর বার্সাকে সমতায় ফেরান পোলিশ তারকা রবার্ট লেভানডোস্কি। ৪০ মিনিটে মিগেল গুটিয়েরেজ লক্ষ্যভেদ করলে লিড নিয়েই প্রথমার্ধ শেষ করে সফরকারী জিরোনা।

বিরতির পর ম্যাচের ৮০ মিনিটে জিরোনাকে ৩-১ গোলে এগিয়ে নেন ভালেরি ফার্নান্দেজ। এরপর ম্যাচের যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে (৯০+২) ইকে গুন্ডোগান বার্সার হয়ে গোল করে ব্যবধান করেন ৩-২। তখন হার এড়ানোর স্বপ্ন বুনতে থাকে কাতালানরা। কিন্তু ম্যাচের শেষ মিনিটে গোল করে (৯০+৫) বার্সার কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন ক্রিস্টিয়ান স্টুয়ানি। ফলে জিরোনা ম্যাচ জিতে নেয় ৪-২ গোলে। 
কোনো দল ৪০ পয়েন্ট পেলে স্পেনের শীর্ষ লিগে টিকে যাবে এমনটা ধরে নেয়া হয়! তাই জিরোনার এবার দ্বিতীয় বিভাগে অবনমিত হওয়ার শঙ্কা নেই। ম্যাচের পর অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এটা নিয়েই সন্তুষ্টি ঝরেছে দলটির কোচ মাইকেলের কণ্ঠে। তিনি বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত ৪১ পয়েন্ট পেয়েছি। আমাদের ভাবনার চেয়ে আগেভাগেই এটা ঘটেছে। আমরা ইতিহাস গড়েছি। এই ম্যাচটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। দারুণ একটা ম্যাচ ছিল। শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা নিয়ে আলাপে জড়াতে না চাইলেও নিজেদের ধারাবাহিক পারফর্ম্যান্সে বেজায় খুশি জিরোনা কোচ।

আত্মবিশ্বাসী মাইকেল বলেন, আমরা এই মুহূর্তগুলো বেশ উপভোগ করছি। বর্তমানে দলের সবাই মানসিকভাবে ইতিবাচক অবস্থানে আছে। আমি জানি না লা লিগা জয়ের মতো আমাদের ক্ষমতা আদৌ আছে কিনা। কিন্তু আমরা যে কোনো প্রতিপক্ষকে হারানোর যোগ্যতা রাখি। অন্যদিকে এই হারে বার্সিলোনার শিরোপা ধরে রাখা নিয়ে আরও সংকট সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে দলটির কোচ জাভি হার্নান্দেজ বলেন, এ ম্যাচে জিরোনার জয় প্রাপ্য ছিল। তাদের দলে বেশ কিছু প্রতিভাবান খেলোয়াড় আছে। জিরোনা আমাদের থেকে ৭ পয়েন্ট এগিয়ে আছে। আমরা ব্যবধান যতটা সম্ভব কমিয়ে আনার চেষ্টা করছি।

এই মুহূর্তে এটাই আমাদের বাস্তবতা। অন্যদিকে গ্রানাডা ও অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের ম্যাচ চলাকালে হৃদয়বিদারক এক ঘটনা ঘটেছে। গ্যালারিতে মারা গেছেন এক দর্শক। যে কারণে গ্রানাডার মাঠে রবিবার ১৮ মিনিটের পর খেলা বন্ধ হয়ে যায়। ওই সময় ইনাকি উইলিয়ামসের গোলে ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল বিলবাও। ম্যাচের ২০ মিনিট পর মাঠ ছেড়ে যান দুদলের খেলোয়াড়রা। দর্শকদেরও স্টেডিয়াম ছাড়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। পরে লা লিগা কর্তৃপক্ষ ম্যাচটি স্থগিত করেছে। ম্যাচটি পরবর্তীতে আয়োজন করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে ওই দর্শকের মৃত্যুর কারণ জানায়নি কোনো পক্ষই। স্পেনের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

×