ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৯ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

আরাভ খান ইস্যুতে প্রশ্নবানে বিব্রত পররাষ্ট্রের মুখপাত্র

প্রকাশিত: ১৯:১৪, ২৩ মার্চ ২০২৩

আরাভ খান ইস্যুতে প্রশ্নবানে বিব্রত পররাষ্ট্রের মুখপাত্র

পররাষ্ট্রের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীন 

পলাতক আসামি আরাভ খান ইস্যুতে সারাদেশ আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে।  আরাভকে নজরদারিতে রাখা ও দুবাই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ হয়েছে বলে তথ্য দিয়েছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীনকে আরাভ ইস‌্যু‌তে বেশ ক‌য়েক‌টি প্রশ্নের মু‌খে পড়‌তে হয়। একের পর এক প্রশ্নের জবাব দি‌তে গি‌য়ে বিব্রতকর প‌রি‌স্থি‌তি‌তে পড়েন তিনি।

২ দিন আগে আরাভ ইস্যুতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহ‌রিয়ার আল‌ম যে ত‌থ্য দিয়েছেন সে ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কা‌ছে আর কোনো অগ্রগতি আছে কি না জানতে চান সাংবাদিকরা।

জবাবে মুখপাত্র বলেন, আরাভের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কাজ করছে। যদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আমাদের কাছে সহায়তা চায় বা আমাদের যে দূতাবাস (দুবাই) আছে তাদের কোনো সহায়তার প্রয়োজন হয়, তাহলে আমরা অবশ্যই তথ্য দিয়ে সহায়তা করব।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিংবা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এখনো দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি- বিষয়টি স্পষ্ট নয় জানিয়ে মুখপাত্রকে একটু খোলাসা করতে বলেন সাংবাদিকরা। 

জবাবে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে কোনো সহায়তা চাওয়া হয়নি। তবে এ বিষয়ে দূতাবাস যোগাযোগ রাখছে এবং তথ্য চাওয়া হলে আমরা তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করব।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, আরাভ গ্রেপ্তার হননি। তিনি পালিয়ে থাকতে পারবেন না, নজরদারিতে আছেন। 

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে বাড়তি কী তথ্য আছে জানতে চান সাংবাদিকরা। প্রশ্নবানে জর্জরিত মুখপাত্র বলেন, প্রতিমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তার বেশি আমার কাছে তথ্য নেই। এখন পর্যন্ত আরাভ নজরদারিতে আছে। তাকে এখনো গ্রেপ্তার করা হয়নি, আমরা এমনটাই জানি।

আরাভের ভারতীয় পাসপোর্ট আছে। সেক্ষেত্রে দুবাই থেকে তাকে ফেরানো কতটা জটিল হবে- এ প্রশ্নের জবাবে সেহেলী সাবরীন বলেন, ভারতের পাসপোর্টের বিষয়টি নিয়ে কাজ করা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার। কাজেই ভারতের পাসপোর্ট বাতিল করে তাকে দেশে ফেরত আনা হবে কি না সেটি নিয়ে ওই মন্ত্রণালয় কাজ করবে।

এমএস

×