ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০

রিহ্যাবে প্রশাসক নিয়োগ

প্রকাশিত: ২০:১৬, ২৯ নভেম্বর ২০২৩

রিহ্যাবে প্রশাসক নিয়োগ

রিহ্যাব

  • তিনমাসের মধ্যে নির্বাচন হবে 

দেশের আবাসন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন রিহ্যাবে প্রশাসক নিয়োগ দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের স্মারক নম্বর ২৬.০০.০০০০.১৫৭.৩৩.০০৩.৯২.৬৫২ আদেশে প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন উপসচিব জান্নাতুল ফেরদৌস। 

প্রশাসককে আগামী তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করে নতুন পরিচালনা পর্ষদ গঠনের আদেশ দেওয়া হয়। উচ্চ আদালতের আদেশ মেনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। বুধবার বাণিজ্য মন্ত্রণায়ের এক অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়। ওই আদেশে বলা হয়েছে, রিয়েল এ্যস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)-এর দৈনন্দিন কাজ পরিচালনাসহ কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন করার লক্ষ্যেই প্রশাসক নিয়োগ করা হলো। সম্প্রতি বিচারপতি এনায়েতুর রহিমের চেম্বার জজ আদালত এক আদেশে মহাপরিচালক বাণিজ্য সংগঠনকে আগামী তিনমাসের মধ্যে রিহ্যাবের নির্বাচন সম্পন্ন করার আদেশ দেয়। 

এদিকে, ভোট ছাড়াই ২০১৪ সাল থেকে রিহ্যাবের সভাপতির পদে রয়েছে আলমগীর শামসুল আলামীন কাজল। আর এ নিয়েই রিহ্যাবে দ্বন্ধ শুরু হয়। রিহ্যাবের বর্তমান কমিটির মেয়াদ গত মাসে শেষ হয়েছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর এই কমিটির মেয়াদ পাঁচ মাস বৃদ্ধি করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। পরে এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে মামলা করেন রিহ্যাবের এক সদস্য। উচ্চ আদালত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তটি তিন মাসের জন্য স্থগিত করেন। 

পরে ১৩ নভেম্বর চেম্বার জজ আদালত নির্দেশ দেন, তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে। আইন অনুযায়ী বাণিজ্য সংগঠন অনুবিভাগের মহাপরিচালককে এই সময়ের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন। রিহ্যাবের নতুন প্রশাসক নির্দিষ্ট সময়ে নির্বাচন সম্পন্ন করে নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করবে বলে আশা প্রকাশ করছে সংগঠনটির সাধারণ সদস্যরা। 

তাঁদের মতে, দীর্ঘদিন নির্বাচন না হওয়ায় রিহ্যাবের অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে। প্রতিনিয়ত ব্যাহত হচ্ছে এখাতের ব্যবসায়িক কর্মকান্ড। আবাসন ব্যবসা হুমকির মুখে পড়েছে। এ অবস্থায় আবাসন খাতের সঙ্কট দূর করতে হলে রিহ্যাবে যোগ্য ও সঠিক নেতৃত্ব দরকার। 

জানা গেছে, প্রশাসক নিয়োগ হওয়ার খবরে সংগঠনটিতে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। যারা নির্বাচন করবেন ইতোমধ্যে তারা আবার সরব হয়ে উঠছেন। টেলিফোন, ফেচবুক ও অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে সাধারণ সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছেন।  
 
 

 

এস

×