বুধবার ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শেখ হাসিনার সরকার হলো সবচেয়ে বেশি নারীবান্ধব ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেখ হাসিনার সরকার হলো সবচেয়ে বেশি নারীবান্ধব ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক ॥ 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশের সবচেয়ে নারীবান্ধব সরকার। আজকের বাংলাদেশে বিচার বিভাগ, নির্বাহী বিভাগ এবং আইনসভাসহ সব ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ দৃশ্যমান বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের (উই) চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে 'জয়ী এওয়ার্ড ২০২১' প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

ড. মোমেন বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রথম ক্ষমতায় এসেই প্রাতিষ্ঠানিক ও অর্থনৈতিকভাবে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকরণের এজেন্ডা গ্রহণ করেছিলেন। শেখ হাসিনার প্রথম সরকারের সময়ে জাতীয় মহিলা উন্নয়ন নীতি প্রণয়ন এবং দ্বিতীয় মেয়াদে শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত নির্দেশনায় নারী উদ্যোক্তাদের জন্য জয়ীতা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। বর্তমান সরকারের নারীবান্ধব নীতির কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।'

বিদেশে বাংলাদেশের নারীদের কর্মসংস্থানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, 'জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনগুলোতেও বর্তমানে আমাদের নারীদের নিযুক্ত করা হচ্ছে।' তিনি বলেন, বর্তমান সরকার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও নারীর ক্ষমতায়নের পাশাপাশি নারীদের বিরুদ্ধে সবধরনের বৈষম্য দূরীকরণবিষয়ক কনভেনশন (সিইডিএডাব্লিউ) এবং বেইজিং প্ল্যাটফর্ম ফর অ্যাকশন বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।'

শেখ হাসিনার সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে বাংলাদেশ আজ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে বলেও উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

'চলমান অতিমারির মধ্যেও জীবনের প্রায় সব ক্ষেত্রে দেশের মানুষ ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল ভোগ করছে' উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, 'ই-কমার্স আজকের বাংলাদেশের প্রসারমান অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গে পরিণত হয়েছে। দ্রুত বর্ধনশীল ই-কমার্সে নারীদের ব্যাপক অংশগ্রহণ নারীর ক্ষমতায়ন ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখছে।'

অনুষ্ঠানে উই-এর নারী ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের ভেতর থেকে প্রতিবছরের মতো এবারও ১০টি ক্যাটাগরিতে ১০ জন এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আরো চারটি ক্যাটাগরিতে ৪০ জনসহ মোট ৫০ জন নারী উদ্যোক্তাকে 'জয়ী অ্যাওয়ার্ড ২০২১' প্রদান করা হয়। এর আগে উই-এর অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্ম 'উইহাটবাজার'-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি, লংকা-বাংলা ফাইনান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা শাহরিয়ার, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোহাম্মদ মনিরুল মওলা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উই- এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।

শীর্ষ সংবাদ:
কঠিন পরিণতির মুখে মুরাদ         কাজের মানের বিষয়ে ফের সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী         জাওয়াদের প্রভাবে টানা বৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি         অভিযোগ পেলেই ডিবি জিজ্ঞাসাবাদ করবে মুরাদকে         গোপনে চট্টগ্রামের হোটেলে         ভারত থেকে এলো মিগ-২১ ও ট্যাঙ্ক টি-৫৫         চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেল যোগাযোগ এখন আর স্বপ্ন নয়         তলাবিহীন ঝুড়িতে বিলিয়ন ডলার         মালয়েশিয়া প্রবাসীদের পাসপোর্ট পেতে ভোগান্তি         পরিকল্পনাকারী অর্থ ও অস্ত্রের যোগানদাতারা এখনও ধরা পড়েনি         দ্রুত পুঁজিবাজারে আনা হচ্ছে সরকারী কোম্পানির শেয়ার         সব এয়ারলাইন্স দ্বিগুণেরও বেশি ভাড়া নিচ্ছে         খালেদাকে শনিবারের মধ্যে বিদেশ না পাঠালে আন্দোলনে যাবেন আইনজীবীরা         পুষ্টিকর খাবার নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব         মুরাদ হাসানের পদত্যাগপত্র প্রধানমন্ত্রীর কাছে         ডা. মুরাদ হাসানকে জেলা কমিটির পদ থেকে বহিষ্কার         একনেক সভায় ১০ প্রকল্পের অনুমোদন         গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড পাবে ৩০ শিল্প প্রতিষ্ঠান         ‘ডা. মুরাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি’         করোনা : ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৫, শনাক্ত ২৯১