ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

অবহেলিত শিশুদের ইচ্ছা মেটাল পুলিশ

প্রকাশিত: ০০:৪৪, ২৬ ডিসেম্বর ২০২০

অবহেলিত শিশুদের ইচ্ছা মেটাল পুলিশ

মাকসুদ আহমদ, চট্টগ্রাম অফিস ॥ আমাদের সমাজে অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা নামীদামী ও আকর্ষণীয় শপিংমল ও গ্রোসারিশপে ঢুকতে চায়। বিত্তশালীদের আদুরে শিশুরা যখন মাম্মি-ড্যাডির হাত ধরে বিলাসবহুল গ্রোসারিশপে প্রবেশ করে, ঠিক ওই মুহূর্তে হতদরিদ্র পরিবারের শিশুরা অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে থাকে। আর স্বপ্ন দেখে কখনও কি ঢুকতে পারবে এমন সুপারশপে। সুবিধাবঞ্চিত এমন কিছু শিশুদের স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে এসেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)। গত বুধবার সকালে নগরীর প্রবর্তক মোড়ের ‘স্বপ্ন’ নামক বিলাসবহুল গ্রোসারিশপে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মনের অকপটে থাকা ইচ্ছেমতো কেনাকাটার আয়োজন করা হয়েছিল। এতে ৬০ সুবিধাবঞ্চিত শিশুর ইচ্ছেমতো কেনাকাটার উদ্যোগ নিয়েছেন সিএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক। এ বিষয়ে সিএমপির উত্তর বিভাগের ডিসি বিজয় বসাক জনকণ্ঠকে জানান, আমাদের সমাজের অবহেলিত ও পিতা মাতাহীন শিশুরা জীবনের নানা অপূর্ণতার মধ্য দিয়ে বেড়ে উঠছে। কিন্তু মনের সুপ্ত ইচ্ছা পূরণ হয়না। বিভিন্ন শপিংমল ও গ্রোসারিশপের সামনে দেখা যায় এসব শিশুদের। তবে তাদেরও ইচ্ছা হয় আপনার ও আমাদের সন্তানদের মতো বাবা মায়ের হাত ধরে সুপারশপে প্রবেশ করে পছন্দের জিনিস কিনতে। কিন্তু বাস্তবতার কষাঘাতে আর পিতা-মাতার দারিদ্র্যতার ছোবলে এমন ইচ্ছা কল্পনাতেই শেষ হয়ে যায়। প্রথমবারের মতো ৬০ জনের ইচ্ছা পূরণের চেষ্টা করেছি। আগামী মাসে আরও ১০০ জন শিশুকে বাবা-মায়ের আদলে নিয়ে আসা হবে মনের অকপটে থাকা ইচ্ছা পূরণে। নগরীর লালখানবাজারের ইলমুল কোরান একাডেমির ২০ জন শিশু, বকুলতলা বস্তির ৫ শিশু, টাইগারপাস বস্তির ৮জন, প্রবর্তক সংঘ অনাথ আশ্রম থেকে ১০জনসহ মোট ৬০ শিশুকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল তাদের মনের ইচ্ছামতো কেনাকাটা করতে।
monarchmart
monarchmart