শুক্রবার ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা মাঠে

  • সিরাজগঞ্জ পৌর নির্বাচন

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ সিরাজগঞ্জ জেলা সদরসহ ৬ পৌরসভার মেয়র এবং কাউন্সিলর পদের সম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠে নেমেছেন। দলীয় মনোনয়ন পেতে ইতোমধ্যেই দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। দলের বিভিন্ন ইউনিটে এবং পাড়া-মহল্লায় মতবিনিময় সভা করছেন। বিভিন্ন মহল্লার মসজিদে নামাজ আদায় করে মুসল্লিদের দোয়া চাইছেন। মন্দিরে মন্দিরে ভক্তদের আশীর্বাদ প্রার্থনা করছেন। আগামী ডিসেম্বর নাগাদ পৌরসভার ভোট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশন (ইসি) ওই সময়ে ভোট করার প্রস্তুতি নিয়ে এগোচ্ছে। ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ সদর, শাহজাদপুর, উল্লাপাড়া, রায়গঞ্জ, বেলকুচি ও কাজিপুর পৌরসভা মেয়র এবং কাউন্সিলর পদে ভোট হয়েছিল। পরের বছর ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি পৌরসভার নির্বাচিত প্রতিনিধিগণের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এই হিসেবে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে এসব পৌরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। পৌরসভা আইন অনুযায়ী, পৌরসভার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ৯০ দিনের মধ্যে ভোট গ্রহণের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

মেয়র পদের প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে সিরাজগঞ্জ পৌরসভায় জেলা আওয়ামী লীগের চার নেতা ও পৌর আওয়ামী লীগের দুই নেতা ইতোমধ্যেই মাঠে নেমেছেন। এরা হচ্ছেন- জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বর্তমান মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা, এ্যাডভোকেট কেএম হোসেন আলী হাসান, হাজী ইসহাক আলী এবং সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ সেলিম আহম্মেদ। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন এবং পৌর আওয়ামী লীগের বার বার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক দানিউল হক মোল্লা দানি। বিএনপি দলীয় মনোনয়ন পেতে সিরাজগঞ্জ সরকারী কলেজের সাবেক জিএস জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, জেলা বিএনপি যুগ্ম সম্পাদক নুর কায়েম সবুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা মোস্তফা জামান, যুগ্ম সম্পাদক মুন্সী জাহেদ আলম ও রাশেদুল হাসান রঞ্জন এবং যুবদলের সভাপতি আব্দুল জব্বার বাবু প্যানা ব্যানারে প্রচার করছেন প্রার্থিতা। তাছাড়াও কাউন্সিলার পদের ১৫ ওয়ার্ডের প্রতিটি ওয়ার্ডে একাধিক প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। দোয়া চাইছেন পাড়া-মহল্লায়। কে আত্মীয়, পরম আত্মীয় খুঁজে বের করে হাল নাগাদ করছেন আত্মীয়তা ও বন্ধুত্ব। শুধু সিরাজগঞ্জ পৌরসভা নয়, জেলার আরও পাঁচ পৌরসভায় প্রচারে নেমেছেন আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী মেয়র প্রার্থীরা। উল্লাপাড়া পৌরসভায় বর্তমান মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আরজু, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব সারোয়ার। বিএনপি, সাবেক মেয়র বেলাল হোসেন ও উপজেলা বিএনপি আজাদ হোসেনের নাম শোনা যাচ্ছে।

শাহজাদপুর পৌরসভায় পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ভিপি আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাহু, সাবেক মেয়র নজরুল ইসলাম, সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নাসির উদ্দিন, তরু লোদী, আব্দুস সালাম বেপারি, মাহবুব ওয়াহিদ কাজল রয়েছেন মেয়র পদে প্রার্থিতা নিশ্চিতের দৌড়ে। বিএনপি থেকে এখনও কারও নাম জানা যায়নি।

বেলকুচি পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী হিসেবে দৌড়ঝাঁপ করছেন বর্তমান মেয়র আশানুর বিশ্বাস, সাজ্জাদুল হক রেজা ও পৌর আওয়ামী লীগের আব্দুল মজিদ খান। বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী আলতাফ হোসেন প্রামাণিক ও জামায়াতের আরিফুল ইসলাম সোহেল। কাজিপুর পৌরসভায় বর্তমান মেয়র হাজী নিজাম উদ্দিন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হান্নান তালুকদার মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ করছেন।

তাড়াশ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মেয়র পদপ্রার্থীরা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হক, সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিত কর্মকার, ফরহাদ হোসেন বিদ্যুত, শাহিনুর আলম লাবু ও বাবুল সেখ। বিএনপির আব্দুল বারীক খন্দকার ও মনসুর রহমান বাচ্চু।

শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গা স্থানান্তর শুরু ॥ উখিয়া থেকে ভাসানচর         একাত্তরের নৃশংসতা ভোলার নয়, এ ব্যথা চিরদিন থাকবে         আগামী বছরজুড়েই থাকবে নির্বাচনী ডামাডোল         মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে একাট্টা দেশ         শ্রেষ্ঠ অভিনেতা তারিক আনাম, শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী সুনেরাহ         করোনায় দেশে আরও ৩৫ জনের মৃত্যু         ’২৪ সালের নির্বাচনে ফের প্রার্থী হতে পারেন ট্রাম্প         প্রতিবন্ধীদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহ্বান         বগুড়ায় রেকর্ড পরিমাণ আলু উৎপাদনের সম্ভাবনা         বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় দণ্ডিতদের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল চেয়ে রিট         বিএনপি-জামায়াত জোট হেফাজত নেতাদের মন্ত্রী বানাতে চেয়েছিল!         দাম্পত্য কলহের জের, রায়েরবাজারে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ         ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস’ উদযাপন উপলক্ষে বাস্তবায়ন কমিটি গঠন         রোহিঙ্গাদের ইউরোপ-আমেরিকা নিচ্ছেন না কেন, প্রশ্ন মোমেনের         ব্রিটেনের সঙ্গে বাণিজ্য বৈঠক জানুয়ারিতে         আগামী ১৩-১৫ ডিসেম্বর জাতীয় স্মৃতিসৌধ এলাকায় প্রবেশ নিষেধ         হোয়াইট বোর্ড’–এর দ্বিতীয় সংখ্যা প্রকাশিত         একাত্তরের নৃশংসতা ভোলার নয় : প্রধানমন্ত্রী