সোমবার ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

হাটহাজারীর ত্রিপুরা পল্লীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ১২ পরিবারকে

হাটহাজারীর ত্রিপুরা পল্লীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ১২ পরিবারকে

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফটিকছড়ি ॥ হাটহাজারী উপজেলার ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের ত্রিপুরা পল্লীর বারোটি পরিবার প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে বেজায় খুশী। এসব পরিবারের সদস্যরা কোন দিন স্বপ্নেও ভাবেনি প্রধানমন্ত্রী তাদেরকে ঘর বানিয়ে উপহার দেবেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিনের কাছ থেকে চাবি বুঝে নিয়ে নতুন ঘরে উঠেছে উক্ত ইউনিয়নের দুর্গম মনাই ত্রিপুরা পল্লীর বারোটি পরিবার। এছাড়া,আরো ৪ টি ঘর নির্মাণাধীন।

দ্বিতীয় দফায় ঘর পাওয়ারা হলেন- মোহন ত্রিপুরা, খড়িয়া ত্রিপুরা, রাধারাম ত্রিপুরা, বানী কুমার ত্রিপুরা, শচীরং ত্রিপুরা ও রবিন ত্রিপুরা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অর্থায়নে ‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা শীর্ষক কর্মসূচি’র আওতায় এই ঘরগুলো নির্মাণ করা হয়েছে। এসব ঘরে রয়েছে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাঘর ও একটি শৌচাগার। আর প্রতিটি ঘর বানাতে খরচ হয়েছে দুই লাখ ২০ হাজার টাকা করে।

সোনাই ত্রিপুরা পল্লীটি উপজেলার ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের আওতাধীন । চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়ক থেকে প্রায় আট কিলোমিটার পশ্চিমে পাহাড়ের পাদদেশে এই পল্লীতে ৫৭ টি পরিবারের বসবাস। এর আগে ২৭ মে দুর্যোগ ব্যবস্থানা অধিদপ্তরের অর্থায়নে আরো ছয়টি পরিবারকে নতুন পাকা ঘর দেয়া হয়েছিল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন দৈনিক জনকন্ঠকে জানান, “পাহাড়ের পাদদেশে ভগ্নপ্রায় কাঁচা ঘরে ত্রিপুরা পল্লীর এই ১২টি পরিবার বসবাস করত।

“ত্রিপুরা পাড়ার বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আবেদন করা হলে ১২ টি ঘরের জন্য বরাদ্ধ মেলে।

তিনি আরো জানান, এলাকার দায়িত্বে যোগদানের পর ২০১৮ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর মনাই ত্রিপুরা পল্লীতে যাওয়ার কথা জানিয়ে রুহুল আমিন বলেন, “এখানকার বাসিন্দাদের মূল পেশা কৃষি কাজ ও পাহাড়ে কাঠ কাটা। পাড়ার সাথে যোগাযোগের একমাত্র সড়কটি ছিল মাটির। এতে বাসিন্দাদের ভয়ানক দুর্ভোগ পোহাতে হত।”

তাদের জীবনমান উন্নয়নে ইতিমধ্যে দুই কিলোমিটার রাস্তা, সৌর বিদ্যুৎ, বিদ্যালয়, অগভীর নলকূপ, শৌচাগার ও খেলার মাঠ নির্মাণের কাজ শেষ করা হয়েছে। যেখানে কোন স্কুলই ছিলনা; সেখানে স্কুল প্রতিষ্ঠা করে শিশুদের পাঠদান করা হচ্ছে। বর্তমানে এ স্কুলে প্রায় এক শতাধিক শিক্ষার্থী লেখাপড়া করে। শিক্ষার্থীদের একটি বড় অংশ শিক্ষাবৃত্তিও পেয়েছে।

‘আমার গ্রাম-আমার শহর’ (সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন) প্রকল্পের আওতায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের পৃষ্ঠপোষকতায় এসব কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ ত্রিপুরা পল্লীতে ঘর সহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন পেয়ে এ পল্লীর ৫৭ টি পরিবারের সদস্যরা প্রাণ খুলে প্রধানমন্ত্রীর জন্য আশির্বাদ করছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
ভিপি নুর গ্রেফতার         ‘শেখ মুজিব এ নেশন’স ফাদার’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন         ধর্ষণ মামলার প্রতিবাদে শাহবাগে ভিপি নুরদের বিক্ষোভ         স্বাস্থ্যের সেই গাড়িচালক আব্দুল মালেক বরখাস্ত         করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর দুই অনুশাসন         ডাকসু ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ঢাবি ছাত্রীর ধর্ষণ মামলা         বিজিবির ১৯১ জনের মুক্তিযোদ্ধা গেজেট বাতিল স্থগিত         দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখেই প্রস্তুতি নিচ্ছে জাতীয় পার্টি         সফটওয়্যার আপগ্রেড হলেই প্রাথমিক শিক্ষকদের উচ্চধাপে বেতন         তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারী জামিনে মুক্ত         ঢাকা উত্তরের ৯টি ওয়ার্ড ডেঙ্গুর ঝুঁকিতে         ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরুর বিষয়ে ২ দিনের মধ্যে চিঠি দেবে চীন         চাকরির নামে প্রতারণা, তিন প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রেফতার ১৪         স্বাস্থ্যের গাড়িচালক আব্দুল মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডে         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে যা জানালেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব         করোনা ভাইরাসে আরও ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত সাড়ে তিন লাখ ছাড়াল         বাংলাদেশ ও ভারতের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বহুমাত্রিক ॥ কাদের         ১৮ বছর পর মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় দুই আসামীর ফাঁসি         ঢাকায় নির্মাণ হচ্ছে ১১১ তলা ‘বঙ্গবন্ধু ট্রাই টাওয়ার’         মানবপাচার ॥ নৃত্যশিল্পী ইভান ৭ দিনের রিমান্ডে