ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

এ্যাগারের হ্যাটট্রিকে প্রোটিয়াদের লজ্জা

প্রকাশিত: ১২:২৪, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০

এ্যাগারের হ্যাটট্রিকে প্রোটিয়াদের লজ্জা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ২০০৫ সালে প্রথমবারের মতো প্রবর্তিত আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে প্রথম হ্যাটট্রিকের কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন ব্রেট লি। সেটা ২০০৭ প্রথম টি২০ বিশ্বকাপে, কেপটাউনে বাংলাদেশের বিপক্ষে। দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি সময় পর ফের আন্তর্জাতিক টি২০তে হ্যাটট্রিক পেলেন কোন অস্ট্রেলিয়ান। এবার প্রোটিয়াদের লজ্জায় ডুবিয়ে এ কীর্তি গড়লেন স্পিনার এ্যাস্টন এ্যাগার। জোহানেসবার্গে পরশু ৬ উইকেটে ১৯৬ রানের বড় স্কোর গড়ে এ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়া। জবাবে এ্যাগারের বাঁহাতি অফস্পিনে নীল কুইন্টন ডি ককের দক্ষিণ আফ্রিকা ১৪ ওভার ৩ বলে গুটিয়ে যায় ৮৯ রানে। ফ্যাফ ডুপ্লেসিস, এ্যান্ডলে ফেকুও ও ডেল স্টেইনডে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করা এ্যাগার শেষ পর্যন্ত ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। ১০৭ রানের বিশাল জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় অসিরা। কেপটাউনে বুধবার দ্বিতীয় ম্যাচ। স্টিভেন স্মিথ (২৭ বলে ৪২) ও এ্যারন ফিঞ্চের (৩২ বলে ৪৫) গড়ে দেয়া মঞ্চে দাঁড়িয়ে ঝড় তোলেন এ্যাশটন আগার (৯ বলে ২০*)। পরে বোলিংয়ে দেখিয়েছেন চমক; হ্যাটট্রিকসহ ৫ উইকেট। অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডারের স্পিনে টি২০তে নিজেদের সর্বনিম্ন রানে গুটিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা, পায় সবচেয়ে বড় হারের স্বাদ। টি২০তে তাদের আগের সর্বনিম্ন ছিল ৯৮। ২০১৮ সালে কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই রান করেছিল তারা। টি২০তে এই প্রথম কোন ম্যাচ শতরানে হারল দক্ষিণ আফ্রিকা। দুইবার হেরেছে ৯৫ রানে; ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, ২০১৩ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে। অন্যদিকে টি২০তে অস্ট্রেলিয়ার ১০৭ রানের চেয়ে বড় আছে কেবল একটি। গত বছর এ্যাডিলেডে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছিল ১৩৪ রানে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে এ্যাগার এদিন পূর্ণ কোটায় ২৪ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট দখল করেন। টি২০তে এটাই কোন অস্ট্রেলিয়ান বোলারের সেরা বোলিং ফিগার। এর আগে সেরা ছিলেন জেমস ফকনার। ২০১৬ সালের টি২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২৪ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। গ্রেট ব্রেট লির পাশে নাম লেখানো এ্যাগারের প্রিয় ক্রিকেটার কিন্তু ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা, ‘জাদেজা একজন রকস্টার। ব্যাট হাতে ঝড় তোলে। ক্ষিপ্র গতিতে ফিল্ডিং করে। বল হাতে স্পিন করাতে পারে। ও যখন খেলতে নামে ওর উপস্থিতিই যথেষ্ট। বল হাতে যখন স্পিন করার তখন ওর আত্মবিশ্বাস দেখার মতো। ব্যাট হাতেও ওর পজিটিভ ভাবভঙ্গি নজরে আসার মতো। নিজের এই আত্মবিশ্বাস ফিল্ডিংয়েও সঞ্চারিত করে’ বলেন তিনি। উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক টি২০তে সবমিলিয়ে এটি ১৩তম হ্যাটট্রিক। যেখানে দু’বার হ্যাটট্রিকের অনন্য রেকর্ডের মালিক লাসিথ মালিঙ্গা।