ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

আমতলী হাসপাতালে কিটসের সংঙ্কট

প্রকাশিত: ০৫:৩৩, ২৮ আগস্ট ২০১৯

আমতলী হাসপাতালে কিটসের সংঙ্কট

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী, বরগুনা ॥ বরগুনার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডেঙ্গু জ্বর শনাক্তকরন এনএস-১ ও আইজিপি-আইজিএম কিটসের চরম সঙ্কট দেখা দিয়েছে। কিটস সঙ্কটে ভোগান্তিতে পরেছে রোগীরা। দ্রুত বরাদ্দ না পেয়ে বন্ধ হয়ে যাবে হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বর পরীক্ষা এ তথ্য জানালেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, গত ৭ আগষ্ট আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ডেঙ্গু জ্বর শনাক্তকরনের কিটস ক্রয় বাবদ দুই লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। ওই টাকা দিয়ে কোটেশনে তিন’শ এনএস-১ ও দুই’শ আইজিপি-আইজিএম কিটস কিনে সরবরাহ করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। বিনামূল্যে এ কিটস দিয়ে রোগীদের পরীক্ষা করা হয়। গত ২০ দিন ধরে হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ২৫-৩০ জন খুবই অসুস্থ রোগীকে এ পরীক্ষা করছে প্যাথলজি বিভাগ। ফলে হাসপাতালে এ কিটসের চরম সঙ্কট পরেছে। আগামী দু’এক দিনের মধ্যে কিটস শেষ হয়ে যাবে বলে জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এখনই বরাদ্দ না পেলে হাসপাতালে ডেঙ্গু পরীক্ষা বন্ধ হয়ে যাবে বলে জানান তারা। এতে চরম দুর্ভোগে পরবে রোগীরা। বুধবার হাসপাতালে ৪৮ জন রোগীকে ডেঙ্গু জ্বর পরীক্ষা করা হয়েছে। আমতলী উপডজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্যাথলজি বিভাগের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ল্যাব) জাহিদুল ইসলাম বলেন, কিটস প্রায়ই শেষের পথে। এখনই কিটস না পেলে পরীক্ষা করানো সম্ভব হবে না। আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শংকর প্রসাদ অধিকারী বলেন, হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বর শনাক্তকরনের দুই ধরনের কিটসের সঙ্কট রয়েছে। দুই এক দিনের মধ্যে বরাদ্দ না পেলে হাসপাতালে ডেঙ্গু পরীক্ষা করানো যাবে না। তিনি আরো বলেন, প্রতিদিন যে পরিমান রোগী পরীক্ষা করতে হাসপাতালে আসেন ওই পরিমান রোগীকে পরীক্ষা করানো সম্ভব হচ্ছে না। খুবই অসুস্থ রোগীদের পরীক্ষা করানো হয়। এতেই প্রতিদিন হাসপাতালে গড়ে ২৫-৩০ জন রোগীকে পরীক্ষা করতে হচ্ছে। বরগুনা জেলারেল হাসপাতালের সিভিল সার্জন হুমায়ূন শাহীন খান বলেন, হাসপাতালে অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রয়োজন মতো তারা কিটস কিনে নিবেন।
monarchmart
monarchmart