শুক্রবার ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

তথ্যপ্রযুক্তিতে আমাদের মুক্তিযুদ্ধ

  • রেজা নওফল হায়দার

কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য যে কোডগুলো প্রচার করা হতো আর সেই সঙ্গে সংবাদ ও বিশ্লেষণ সবকিছু মিলিয়ে প্রযুক্তি ব্যবহার তথ্যটাকে ছড়িয়ে দেবার অদম্য প্রয়াস ছিল একাত্তরে। সেই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা বিশাল সাইবার হাইওয়েতে প্রবেশ করে কতকিছু জানতে পারছি। বিশাল এই তথ্যপ্রযুক্তি হাইওয়ে প্রবেশের সব থেকে সহজ মাধ্যম আমাদের হাতে থাকা স্মার্ট ফোন।

সেই হিসেবেই দেশে প্রতিনিয়তই বাড়ছে স্মার্টফোনের ব্যবহার। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে স্মার্টফোনের উপযোগী বিভিন্ন এ্যাপ ও গেমের ব্যবহার। সময়ের চেয়ে এ্যাপের ব্যবহারের একটু ভিন্ন ধাঁচ খেয়াল করা যায় নানা দিবসগুলোতে। বিশেষ করে ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৬ ডিসেম্বর, ৭ মার্চ ও ২৬ মার্চে বাঙালীদের বাংলা এ্যাপগুলো বেশি ব্যবহার করতে দেখা যায়। ৭ মার্চ ২৬ মার্চ (স্বাধীনতা দিবস)। গুগল প্লে স্টোর থেকে যতগুলো এ্যাপ ডাউনলোড হচ্ছে তার মধ্যে জনপ্রিয় কয়েকটি এ্যাপ নিয়ে এবারের বিশেষ আয়োজনে থাকছে বিশেষ প্রতিবেদন।

৭ মার্চের অমর ভাষণ ॥ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্ব ইতিহাসে যুগসৃষ্টিকারী সেরা ভাষণগুলোর একটি। বাঙালীর মুক্তির সড়ক নির্মাণে অনন্য-দূরদর্শী ভাষণ এটি। ১৯ মিনিটের এ ভাষণে ভাব, ভাষা, শব্দ চয়ন মানব যোগাযোগের ক্ষেত্রে অবিস্মরণীয় উপাদানে পরিণত হয়েছে। প্রতিটি বাক্য প্রয়োগে উঠে এসেছে একটি জাতির ইতিহাস, আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকারের সংগ্রাম ও জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার কথা। এতে রয়েছে দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে পাকিস্তানী স্বৈরশাসক, বণিক, শিল্পপতি- যারা তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের ওপর শোষণ ও নির্যাতনের স্টিমরোলার চালিয়েছিলেন, তাদের কবল থেকে মুক্তির কথা। ভাষণে উঠে এসেছে বাংলাদেশের রাজনৈতিক মুক্তির দাবি; পাকিস্তানী ঔপনিবেশিক শাসন থেকে বাঙালীর অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অধিকার অর্জনের কথা। উচ্চারিত হয়েছে মুক্তি ও স্বাধীনতা অর্জনের জন্য জনগণকে প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান; কোন কৌশলে যুদ্ধ ও জনযুদ্ধ পরিচালিত হবে তার নির্দেশনা। এছাড়া ঘোষণা করা হয়েছে চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের জন্য সর্বাত্মক ত্যাগ স্বীকারের বজ্রশপথ।

৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু বজ্রকণ্ঠে উচ্চারণ করেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ কেননা, স্বাধীনতা যতটা রাজনৈতিক-ভৌগোলিক, মুক্তি ততটাই অর্থনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং মনস্তাত্ত্বিক। এটাই ছিল মূলত বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা এবং তা অর্জনের জন্য সর্বস্তরের জনগণকে প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান। একটি জাতি স্বাধীন হলেই মুক্ত হয় না। বঙ্গবন্ধু সেই মুক্তি চেয়েছিলেন, যা স্বাধীনতাকে অর্থবহ করে তোলে। এজন্যই তিনি প্রথমে মুক্তি ও পরে স্বাধীনতার কথা বলেছিলেন। মুক্তি মানে অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সকল ধরনের শোষণ-বৈষম্য থেকে মুক্তি। আর এই বিষয়ে যে এ্যাপটি সবাইকে মুগ্ধ করেছে-

goo.gl/WyEKSy এ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন এই ঠিকানা থেকে।

মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ ॥ এই এ্যাপটির মাধ্যমে জানা যাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ছিল ১৯৭১ সালে সংঘটিত তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পূর্ব পাকিস্তানের সশস্ত্র সংগ্রাম, যার মাধ্যমে বাংলাদেশ একটি স্বাধীন দেশ হিসাবে পৃথিবীর মানচিত্র আত্মপ্রকাশ করে। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতের অন্ধকারে পাকিস্তানী সামরিক বাহিনী পূর্ব পাকিস্তানে বাঙালী নিধনে ঝাঁপিয়ে পড়ে একটি জনযুদ্ধের আদলে মুক্তিযুদ্ধ তথা স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা ঘটে। পঁচিশে মার্চের কালরাতে পাকিস্তানী সামরিক বাহিনীর ঢাকায় অজস্র সাধারণ নাগরিক, ছাত্র, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, পুলিশ হত্যা করে। গ্রেফতার করা হয় ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রাপ্ত দল আওয়ামী লীগ প্রধান বাঙালীর তৎকালীন প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। গ্রেফতারের পূর্বে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দেন এই এ্যাপসে অনেকগুলো বৈশিষ্ট্যের মধ্যে কয়েকটি উল্লেখ করা হলো- পটভূমি, পূর্ব পাকিস্তানের দুর্দশার ইতিহাস, অর্থনৈতিক বৈষম্য, ভাষা আন্দোলন, সামরিক অসমতা, রাজনৈতিক অসমতা, ১৯৭০-এর সাইক্লোনের প্রতিক্রিয়া, ১৯৭০-এর নির্বাচন, মুজিব-ইয়াহিয়া বৈঠক, গণহত্যা ও জনযুদ্ধের সূত্রপাত, স্বাধীনতার ঘোষণা, বিভিন্ন মাধ্যমে ঘোষণাপত্র, অস্থায়ী সরকার গঠন বর্ণনা রয়েছে। যেমন- মুক্তিযুদ্ধ : জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, মুক্তিযুদ্ধ : অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর এবং ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধে পাকিস্তান বাহিনীর আত্মসমর্পণ ও বিজয় এবং জাতিসংঘে কূটনৈতিক তৎপরতা, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি, গণহত্যা, মুক্তিযুদ্ধ ও বিশ্বসমাজ ইত্যাদি। এ্যাপসটির ডাউনলোড লিংক- goo.gl/PKcyXJ

পিরিয়ড অব নাইনটিন সেভেনটি ওয়ান ॥ এ্যাপ্লিকেশনটিতে বাংলাদেশের স্বাধীনতার যুদ্ধে শহীদ সাত জন বীরশ্রেষ্ঠ এর নাম, পরিচয়, জীবনবৃত্তান্ত এবং তাদের অসামান্য অবদানের বর্ণনা রয়েছে। বিজয় দিবস উপলক্ষে, দেশের সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দ্যেশে করে এই এ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি। এ্যাপ্লিকেশনের ডিজাইনেও রয়েছে সৌন্দর্য। বর্তমান সময়ের তরুণদের বাংলাদেশের ইতিহাস ও সাত জন বীরশ্রেষ্ঠ-এর বৃত্তান্ত এই এ্যাপে উল্লেখ রয়েছে। গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউন লোড করে নিতে পারেন আরনার পছন্দের এই এ্যাপটি। ১৯৭১ সালে তাদের অবদান ও তাদের দুঃসাহসিক যুদ্ধের বিবরণ ও এই এ্যাপটিতে রয়েছে। এ্যাপসটির ডাউনলোড লিংক- goo.gl/WwGZeH

বীরশ্রেষ্ঠ ॥ এই এ্যাপের মাধ্যামে মুক্তিযুদ্ধের পরে যারা জন্মগ্রহণ করেছ তার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে পারবে। গুগল প্লেস্টোর থেকে এই এ্যাপটি ডাউনলোাড করে নিতে পারেন। এ্যাপটি দিয়ে এ যুগের তরুণদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস মনে করিয়ে দেয়া সম্ভব। বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি দিয়ে ও বিভিন্ন তথ্য দিয়ে এই এ্যাপটি সাজানো। ইতোমধ্যে অনেকেই ডাউনলোড করে এর সুফল উপভোগ করতে শুরু করেছে। বিজয়ের মাসে এই এ্যাপটি বেশ জনপ্রিয়ও হয়েছে। ডাউনলোড লিংক-goo.gl/eUp2Gk

মুক্তিযুদ্ধ ॥ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ছিল ১৯৭১ সালে সংঘটিত তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পূর্ব পাকিস্তানের সশস্ত্র সংগ্রাম, যার মাধ্যমে বাংলাদেশ একটি স্বাধীন দেশ হিসাবে পৃথিবীর মানচিত্র আত্মপ্রকাশ করে। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতের অন্ধকারে পাকিস্তানী সামরিক বাহিনী পূর্ব পাকিস্তানে বাঙালী নিধনে ঝাঁপিয়ে পড়লে একটি জনযুদ্ধের আদলে মুক্তিযুদ্ধ তথা স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা ঘটে। পঁচিশে মার্চের কালরাতে পাকিস্তানী সামরিক জান্তা ঢাকায় অজস্র সাধারণ নাগরিক, ছাত্র, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, পুলিশ হত্যা করে। গ্রেফতার করা হয় ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রাপ্ত দল আওয়ামী লীগ প্রধান বাঙালীর তৎকালীন প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। গ্রেফতারের পূর্বে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। এ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে goo.gl/fSTPwx এই ঠিকানা থেকে।

স্বাধীনতা ২৬ ॥ স্বাধীনতার মাসে স্বাধীনতার চেতনাকে তরুণ প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে ‘ইএটিএলএ্যাপস’ নিয়ে এসেছে স্মার্ট ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য ‘স্বাধীনতা ২৬’ মোবাইল এ্যাপ্লিকেশন।

এ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চালিত এ্যাপটির উদ্যোক্তা হলো এথিক্স এ্যাডভান্সড টেকনোলজি লিমিটেড (ইএটিএল)। স্বাধীনতা যুদ্ধের নানা ঘটনাবলীর উপর নির্মিত এ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে জানা যাবে সেক্টর কমান্ডারদের নামসহ অঞ্চল, দায়িত্ব, সদস্য ইত্যাদি, বীরশ্রেষ্ঠদের নাম ও তাদের সংক্ষিপ্ত জীবনী, কালপঞ্জি অনুসারে কখন কী ঘটেছিল যেমন ১৯৪৭, ৫২, ৫৪, ৬২, ৬৬, ৬৮, ৬৯, ৭০ ও ৭১। সেট করতে পারবেন নানা রকম ওয়ালপেপার। শুনতে পারবেন ‘এক সাগর রক্তের বিনিময়ে, এক নদী রক্ত পেরিয়ে, একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে, জন্ম আমার ধন্য হলো, সব ক’টি জানালা খুলে দাও না’ প্রভৃতি মুক্তির গানের অডিও লিরিক্সগুলো। এছাড়াও, ইউটিউব লিংকের মাধ্যমে দেখতে পারবেন মুক্তিযুদ্ধের দুর্লভ সব ভিডিও। আরও জানা যাবে বিখ্যাত লেখক-সাহিত্যিকদের মুক্তিযুদ্ধের উপর লিখিত বিভিন্ন ধরনের বইয়ের তালিকা। এ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে ইএটিএল এ্যাপস স্টোর www.eatlapps.com থেকে।

শীর্ষ সংবাদ:
অবৈধপথে ক্ষমতা দখলে ষড়যন্ত্রের গলি খুঁজছে বিএনপি ॥ কাদের         ইয়েমেনে পরাজিত সৌদি রাজা সালমান প্রলাপ বকছেন: ইরান         মার্কিন বিমানবাহী রণতরী পর্যবেক্ষণের ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করল আইআরজিসি         একসঙ্গে দুটি বিরল রোগে আক্রান্ত নবজাতক         করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্য ॥ নতুন আক্রান্ত ১৩৮৩         জলবায়ু পরিবর্তন ॥ পৃথিবী রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব         সার্কভুক্ত দেশগুলোকে নিবিড় সহযোগিতার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর         লন্ডনে থানার ভেতর পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা         বাংলাদেশ-ভারত সহযোগিতা নিছক দেনাপাওনার ঊর্ধ্বে ॥ রীভা গাঙ্গুলি         নিয়মতান্ত্রিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে ॥ প্রতিশ্রুতি রিপাবলিকানদের         মহামারিতে বিশৃঙ্খলায় বিশ্ব ॥ নিরাপত্তা পরিষদে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়         হাতিয়ায় মাছধরা ট্রলার ডুবি, ২ জেলের মৃতদেহ         করোনা ভাইরাস ॥ যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ৭০ লাখ ছাড়ালো         ভারত ছাড়ল হার্লে ডেভিডসন         সিংহের লেজ নিয়ে নাড়াচাড়া করবেন না ॥ ট্রাম্পকে ইরান         ১৩ ঘণ্টা পর নারায়ণগঞ্জের ট্রেন চালু         অর্থনীতি দ্রুত পুনরুদ্ধারই চ্যালেঞ্জ ॥ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় লকডাউন নয়         সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় সঙ্কট কাটল সৌদি প্রবাসীদের         একক নিয়ন্ত্রণের কোন কমিটি অনুমোদন নয়         দ্বিচারিতা আর ষড়যন্ত্রই বিএনপির রাজনৈতিক দর্শন ॥ কাদের