বুধবার ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

যৌথ উদ্যোগে ভারতে বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ করবে বাংলাদেশ

  • জানালেন পিডিবি চেয়ারম্যান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভারতে যৌথ উদ্যোগে বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ কোম্পানি (বিআইএফসিএল) বিদ্যুত কেন্দ্রটি নির্মাণ করবে। বিদ্যুত কেন্দ্রের অর্ধেক মালিক হবে বাংলাদেশ বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এবং ভারতের রাষ্ট্রীয় কোম্পানি ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড (এনটিপিসি)। এই কেন্দ্রটি নির্মাণ শেষে বাংলাদেশ সেখান থেকে বিদ্যুত আমদানি করবে। কয়লা চালিত কেন্দ্রটির উৎপাদন ক্ষমতা হবে এক হাজার ৩২০ মেগাওয়াট। দিল্লীতে বাংলাদেশ-ভারত বিদ্যুত খাতে সহায়তা বিষয়ক ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক শেষে বৃহস্পতিবার দেশে ফিরে পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালিদ মাহমুদ বলেন, আমরা এ বিষয়ে একটি কমিটি করে দিয়ে এসেছি। এখন ওই কমিটি বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগটি বাস্তবায়ন করবে। রামপালে যে প্রক্রিয়ায় বিআইএফসিএল বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ করছে একই প্রক্রিয়াতে ভারতে আমরা কেন্দ্র নির্মাণ করব। তিনি বলেন, ভারত এ বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে। এখন আমরা ভারত থেকে বিদ্যুত আমদানি করছি। ওই কেন্দ্রের বিদ্যুতও বাংলাদেশ আমদানি করবে।

বৈঠকের নতুন দিক সম্পর্কে পিডিবি চেয়ারম্যান বলেন, ভারত থেকে আমরা সৌর বিদ্যুত আমদানির প্রস্তাব দিয়েছি। এ বিষয়ে দুই দেশের একটি কমিটি কাজ করবে। ভারতে সৌর বিদ্যুত খুব সস্তায় পাওয়া যায়। আমরা তাদের এত কম দামে বিদ্যুত উৎপাদনের কৌশল জানতে চাইলে তারা জানিয়েছে সেখানে তারা জমি এবং গ্রিড লাইন করে দেয়। উদ্যোক্তাদের কেবল প্যানেল বসালেই চলে। আমাদের এখানে আমরা সৌর বিদ্যুত উৎপাদনের চেষ্টা করেও জমি সংস্থান না করতে পারায় তা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান তিনি। তবে ভারত এ বিষয়ে আমাদের সহায়তা করতে আগ্রহ দেখিয়েছে বলে জানান তিনি।

বিদ্যুত সচিব ড. আহমদ কায়কাউসের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল গত সোমবার দিল্লী যান। মঙ্গল ও বুধবার বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের একাংশ বৃহস্পতিবার বিকেলে দেশে ফিরে আসেন। এর মধ্যে পিডিবি চেয়ারম্যান বিকেলে টেলিফোনে বৈঠকের আলোচনার বিষয়টি জানান।

রামপালে ভারত এবং বাংলাদেশের উদ্যোগে বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণের শুরু থেকেই দেশের পরিবেশবাদীরা ভারত কেন তার দেশে এ ধরনের প্রকল্প নির্মাণ না করে এককভাবে বাংলাদেশে কয়লার দূষণ ছড়িয়ে দিচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলে। বাংলাদেশও গত কয়েকটি বৈঠকে ভারতের বিদ্যুত খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ দেখিয়েছে। এছাড়া দেশের বেসরকারী খাতের কয়েকটি কোম্পানিও ভারতের বিদ্যুত খাতে বাংলাদেশী বিনিয়োগের ব্যবস্থা করতে সরকারকে অনুরোধ জানায়। ভারত ইতোপূর্বে তাদের বিদ্যুত কেন্দ্র করার বিষয়ে মতামত প্রদান থেকে বিরত থাকলেও এখন এ বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে।

বলা হচ্ছে বিদ্যুত কেন্দ্রটি নির্মাণে রামপালের প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে। এক্ষেত্রে কোম্পানি গঠনের বিষয়ে নতুন করে আলোচনার কোন দরকার হবে না। শুধু ভারতে কোম্পাটির রেজিস্ট্রেশন করলেই কেন্দ্র নির্মাণ করা যাবে। কেন্দ্রটি যেহেতু বাংলাদেশে বিদ্যুত রফতানি করবে তাই বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে সুবিধাজনক কোন জায়গায় এটি নির্মাণ করা হতে পারে।

শীর্ষ সংবাদ:
স্বপ্ন পূরণে ভাগ্য বদল ॥ পদ্মা সেতু নামেই ২৫ জুন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         রোহিঙ্গারা অপরাধে জড়াচ্ছে প্রত্যাবাসন অনিশ্চয়তায়         ১৩৫ বিলাসবহুল পণ্যে ২০ ভাগ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক আরোপ         আমি ত্রাস সঞ্চারি ভুবনে সহসা সঞ্চারি ভূমিকম্প...         দিনের ভোট দিনেই হবে, রাতে হবে না ॥ সিইসি         সম্রাটকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠালেন আদালত         হাতিরঝিলের পানির ক্ষতি করা যাবে না ॥ হাইকোর্ট         এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে লড়ছে দুদল         মাঙ্কিপক্সের প্রবেশ রোধে সর্বোচ্চ সতর্ক হতে হবে         ঢাবিতে ছাত্রলীগ ছাত্রদল সংঘর্ষ ॥ আহত ৩০         জামায়াতের সঙ্গেও সংলাপে বসবে বিএনপি ॥ ফখরুল         সিলেটে বন্যার পানি নামছে ধীরে, নানা সঙ্কট         জলাবদ্ধতা থেকে এবারের বর্ষায়ও মুক্তি মিলছে না চট্টগ্রামবাসীর         শেখ হাসিনা সরকার পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে এনেছে ॥ কাদের         প্রত্যাবাসন নিয়ে রোহিঙ্গারা দীর্ঘ অনিশ্চয়তার কারণে হতাশ হয়ে পড়ছে : প্রধানমন্ত্রী         হাতিরঝিলে স্থাপনা উচ্ছেদসহ ওয়াটার ট্যাক্সি নিষিদ্ধে রায় প্রকাশ         মাদকাসক্ত সন্তানকে গ্রেফতারে বাবা-মা আসেন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নিয়মানুযায়ী দিনের ভোট দিনেই হবে ॥ সিইসি         রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনই স্থায়ী সমাধান         ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন