বৃহস্পতিবার ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৬ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

২০১৭ সালের বিশ্বাঙ্গন

২০১৭ সালের বিশ্বাঙ্গন
  • মু. আব্দুল্লাহ আলআমিন

শেষ হতে চলেছে ২০১৭। বিদায়ী বছরে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এমন সব ঘটনা ঘটে যাতে শান্তিকামী মানুষ আশাহত। বছরজুড়ে আলোচনায় ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং শেষের অর্ধেকটা সময় নিয়মিত সংবাদ শিরোনাম হয়েছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এসব নিয়ে লিখেছেন মু. আব্দুল্লাহ আলআমিন

ডোনাল্ড ট্রাম্পের চমক

ডোনাল্ড জে ট্রাম্প ২০ জানুয়ারি আমেরিকার ৪৫তম এবং মাইক পেন্স ৪৮তম ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য অর্থ মেক্সিকোকেই দিতে হবে, ট্রাম্পের এ কথার প্রতিক্রিয়ায় দেশটির প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতো ২৫ জানুয়ারি তার সঙ্গে পূর্ব নির্ধারিত সাক্ষাত বাতিল করেন। ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর ২৬ জানুয়ারি প্রথম বিদেশী সরকারপ্রধান হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র সফরে যান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। তিনি রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের পক্ষ থেকে তাবে ব্রিটেন সফরের আমন্ত্রণ জানান। তবে এ নিয়ে ব্রিটেনে সমালোচনার ঝড় ওঠার পর ২০১৭ সালে ট্রাম্পের ব্রিটেন সফর করা হয়ে ওঠেনি। ২৭ জানুয়ারি ট্রাম্প ইরান, ইরাক, সুদান, সোমালিয়া, লিবিয়া ও ইয়েমেন থেকে ১২০ দিনের শরণার্থী আসা নিষিদ্ধ করে একটি নির্বাহী আদেশে ট্রাম্প সই করেন। ৬ এপ্রিল তিনি ফ্লোরিডার পাম বিচের মার-এ-লাগো গলফ্ রিসোর্টে সফররত চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন।

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া হস্তক্ষেপ করেছিল, বিষয়টি বছর জুড়ে ট্রাম্প প্রশাসনকে অস্বস্তিকে ভুগিয়েছে। ১৩ ফেব্রুয়ারি জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে মাইকেল ফ্লিনের পদত্যাগ এ বিতর্কে গতি সঞ্চার করে। ২ মার্চ হোয়াইট হাউস এ খবর নিশ্চিত করে যে ট্রাম্প জামাতা জারেড কুশনার ডিসেম্বরে (ট্রাম্পের নির্বাচনের পর দায়িত্ব গ্রহণের আগে) নিউইয়র্কের ট্রাম্প টাওয়ারে সের্গেই কিসলিয়াকের (রুশ রাষ্ট্রদূত) সঙ্গে আলোচনা করেছেন। ফ্লিন এ সময়ে কুশনারের সঙ্গে ছিলেন। ৮ মে এফবিআইয়ের প্রধানের পদ থেকে জেমস কোমিকে অপসারণ করেন ট্রাম্প। রুশ হস্তক্ষেপ নিয়ে তদন্ত কাজ পরিচালনার জন্য ১৭ মে রবার্ট মুয়েলারকে স্পেশাল প্রসিকিউটর হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

৬ জুলাই পোল্যান্ডের ওয়ারসোতে বসে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন এরপর সিঙ্গাপুরে বসে আসিয়ান সম্মেলনে। উভয় সম্মেলনেই ট্রাম্প যোগ দেন। ২০ জুলাই হোয়াইট হাউসের মুখপাত্রের পদ থেকে ইস্তফা দেন শন স্পাইসার। অ্যান্টোনিও স্কারামুচি কমিউনিকেশনস্ ডিরেক্টর পদে নিয়োগ পান। দায়িত্ব গ্রহণের ১০ দিনের মাথায় তিনি পদত্যাগ করেন। ১৮ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনে তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া একে স্বাগত জানায়। নবেম্বরের শুরুতে তিনি এশিয়ায় ১১ দিনের দীর্ঘ সফর করেন। ১৯৯৪ সালে বিল ক্লিনটনের পর কোন মার্কিন প্রেসিডেন্ট এশিয়ায় এত লম্বা সফর আর করেননি। ৬ ডিসেম্বর ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে বছরের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক বিতর্কের জন্ম দেন। প্যারিস জলবায়ু চুক্তিসহ বহু আন্তর্জাতিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে এনেছেন।

মধ্যপ্রাচ্যে নয়া রাজনৈতিক সঙ্কট

সৌদি নেতৃত্বাধীন কয়েকটি উপসাগরীয় দেশ ৫ জুন অপর উপসাগরীয় দেশ কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করে। অভিযোগ দেশটি সন্ত্রাসবাদীদের মদদ দিচ্ছে ও সৌদি আরবের আঞ্চলিক প্রতিপক্ষ ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রেখেছে। কাতারভিত্তিক মধ্যপ্রাচ্যে একমাত্র মুক্ত গণমাধ্যম আলজাজিরাও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়ে। শেষ পর্যন্ত কাতারকে পুরোপুরি একঘরে করা সম্ভব হয়নি। বরং এই নিষেধাজ্ঞা ওই অঞ্চলে ইরান ও তুরস্কের প্রভাব বাড়িয়েছে। ১৯ জুলাই কাতারকে বয়কটকারী আরব দেশগুলো তাদের ১৩ দফা প্রত্যাহার করে নিয়ে সমঝোতার জন্য ছয় দফা শর্ত দিয়েছে। ১৬ আগস্ট সৌদি আরব কাতারের হজযাত্রীদের জন্য সালওয়া সীমান্ত খুলে দেয়।

লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরিকেও নিয়ে রিয়াদ এ রকম আরেকটি কূটনীতির খেলা খেলে নভেম্বরে। ৪ নভেম্বর সৌদি আরব সফরে গিয়ে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন সাদ। বলা হয়েছিল নিরাপত্তা জনিত কারণে তিনি দেশে পদত্যাগ করতে পরেননি। পরে জানা যায়, প্রভাবশালী শিয়া মিলিশিয়া গ্রুপ হিযবুল্লাহর প্রতি যথেষ্ট কঠোর মনোভাব না দেখানোয় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের চাপে তিনি পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন। হারিরি ২১ নভেম্বর বৈরুতে ফিরে প্রথমে তার প্রয়াত পিতা রফিক হারিরির কবর যিয়ারত করেন। রফিক হারিরি ২০০৫ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি এক ট্রাক বোমা হামলায় নিহত হয়েছিলেন। বিন সালমান সৌদি আরবে ক্রাউন প্রিন্সের মর্যাদা পাওয়ার পর একের পর এক পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে ক্ষমতা সুসংহত করে চলেন। তিনি ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ করেন এবং ইরানকে আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতার জন্য দায়ী করেন। তিনি এমনকি ইরানের নেতৃত্বকে হিটলারের সঙ্গে তুলনা করেছেন। সাদের সফল লেবানন প্রত্যাবর্তন তাই আঞ্চলিক রাজনীতিকে নাড়া দেয়। বিন সালমান যেভাবে নিজের প্রভাব বলয় বাড়িয়ে চলেন তা ছিল অপ্রতিরোধ্য। হারিরি দেশে ফিরে গিয়ে তার উচ্চাভিলাষী রথযাত্রায় হ্যাচকা টান দেন।

বিপ্লব পটিয়সী যুবরাজ

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আযিযের ছেলে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। ২১ জুন আকস্মিকভাবে তাকে ডেপুটি ক্রাউন প্রিন্স থেকে পদোন্নতি দিয়ে ক্রাউন প্রিন্স করা হয়। ২৬ সেপ্টেম্বর নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেয়া হয়। ২৪ অক্টোবর তিনি ‘ওহাবি’ মতবাদ ছেড়ে ‘মধ্যবর্তী’ ইসলামের দিকে প্রত্যাবর্তনের ঘোষণা দেন। ৪ নভেম্বর দুর্র্নীতির অভিযোগ রাজপরিবারের ৩০ জনের বেশি সদস্যকে আটক করা হয়। ১৩ ডিসেম্বর সৌদি আরব ও আরব আমিরাত একক মুদ্রা চালুর সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা শুরু করে।

সিরিয়া

সিরিয়ায় খান শায়খুনে বেসামরিক লোকজনের ওপর রাসায়নিক হামলার পরদিন ৫ এপ্রিল ট্রাম্পের নির্দেশ সিরিয়ার শায়রাত বিমান ঘাঁটি টার্গেট করে ৪৯ টি টোমাহক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। সিরিয়ায় চলমান গৃহযুদ্ধে এটি ছিল সরকারী অবস্থান লক্ষ্য চালান প্রথম (এবং সম্ভবত সর্বশেষ) সামরিক হামলা।

আফগানিস্তান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে ১২ এপ্রিল নানগারহার প্রদেশে মাদার অব অল বোম্বস (এমওএবি) নামে এ যাবতকালের বৃহত্তম বোমা নিক্ষেপ করা হয়। আইএসের ঘাঁটি ধ্বংসের জন্য এটি করা হয় বলে পেন্টাগন দাবি করে।

তেরেসা মের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ

তেরেসা মের জন্য ২০১৭ সালটি ছিল চ্যালেঞ্জিং। প্রথম চ্যালেঞ্জ ছিল ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া শুরু করা। দ্বিতীয় চ্যালেঞ্জ আগাম নির্বাচন আয়োজন। ২৯ মার্চ তিনি আর্টিকেল ৫০ উত্থাপনের মাধ্যমে ব্রেক্সিটের পথে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করেন। ২০১৯ সালের মধ্যে ২৯ মার্চের মধ্যে ব্রিটেনকে ইইউর সঙ্গে বোঝাপড়া চূড়ান্ত করতে হবে। ইইউর সঙ্গে কোন চুক্তি করে না চুক্তি ছাড়া বিচ্ছেদ পর্ব সমাধা করবেন না শেষ পর্যন্ত ইইউর মধ্যে থেকেই যাবে যাবে ব্রিটেন তা এখনও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে ৮ ডিসেম্বর ব্রাসেলস ও লন্ডনের মধ্যে একটি সমঝোতা হয়েছে যার ভিত্তিতে আগামী দিনগুলোতে ব্রেক্সিট আলোচনা অগ্রসর হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

৮ জুন ব্রিটেনে আগাম সাধারণ নির্বাচন হয়। এতে মের নেতৃত্বাধীন কনজারভেটিভ পার্টি টিকে গেলেও আগের বারের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারায়। লাভবান হয় বিরোধী লেবার পার্টি। তাদের আসন বাড়ে ৩০টি। ব্রিটিশ রাজনীতিতে প্রভাব বাড়ে বিরোধী নেতা জেরেমি করবিনের। কনজারভেটিভ ও লেবার উভয় দল থেকে তিনি পদে পদে ব্রেক্সিট বিল নিয়ে বাধার সম্মুখীন হন। ২৯ নবেম্বর মে গোপনে ইরাক সফর করেন।

রাখাইনে নির্যাতন ও গণহত্যা

২৫ আগস্ট রাখাইনে সেনাবাহিনীর নিপীড়ন শুরুর এক মাসের মধ্যে ৭ হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা করা হয়। নিহতদের মধ্যে ৫ বছরের কমবয়সী শিশু ছিল প্রায় ৮শ’, ডক্টর্স স্যঁ ফ্রন্টিয়ার্স নামে একটি সাহায্য সংস্থার করা অতি সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে একথা উল্লেখ করা হয়েছে। এই শিশুদের মধ্যে অন্তত ৬০ ভাগকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। রাখাইনের রোহিঙ্গাদের পুড়িয়ে, পিটিয়ে, ধর্ষণ-নিপীড়ন করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে সংস্থাটি জানায়। শত শত গ্রাম পুড়িয়ে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। সেখানে ব্যাপক হত্যা আর গণধর্ষণের বর্ণনা দিয়েছেন পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা। স্যাটেলাইটে তোলা ছবি বিশ্লেষণ করে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলছে, বার্মার (মিয়ানমার) রাখাইন রাজ্যে গত দুইমাসে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। অক্টোবর ও নবেম্বরে মাসে ৪০টি গ্রামের ভবনসহ বহু ঘরবাড়ি ধ্বংস করা হয়েছে বলে সংস্থাটি দেখতে পেয়েছে। গণহত্যা থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে আনুমানিক ছয় লক্ষাধিক রোহিঙ্গা শরণার্থী।

তারা এখন বিশ্বের সর্ববৃহৎ নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর শরণার্থী শিবিরে বাস করছে। ২৩ নবেম্বর মিয়ানমারের রাজধানী নেপিডে দুদেশের মধ্যে সম্পাদিত সমঝোতা অনুযায়ী ইয়াঙ্গুন কিছু ফিরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে। রোহিঙ্গাদের সঙ্গে চরম অমানবিক ব্যবহারের ঘটনায় বিভিন্ন দেশ মিয়ানমার ও এর গণতান্ত্রিক আন্দোলনের নেত্রী আউং সান সুচির নিন্দা করেছে। মানবাধিকার নেত্রী হিসেবে সুচির এক সময় অনেক সুনাম থাকলেও রোহিঙ্গা ইস্যুতে নীরব থাকায় তার সে সম্মান এখন অনেকটা ম্লান হয়। বৃহস্পতিবারও তিনি রোহিঙ্গা সঙ্কটকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে একটি দ্বিপাক্ষিক ইস্যু বলে মন্তব্য করেন। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে শেষ ইয়াঙ্গুন রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়। তবে তারা আসলেই ফিরিয়ে নেবে কি না তা নিশ্চিত নয়।

উত্তর কোরিয়া

বছরজুড়ে আলোচনায় ছিল উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু পরীক্ষা। জানুয়ারির প্রথম দিনই দেশটির নেতা কিম জং উন ঘোষণা করেছিলেন, তার দেশ এখন আইসিবিএম তৈরির খুব কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। কমিউনিস্ট শাসিত একঘরে দেশটি জুলাইতে দুটি ও নবেম্বরে একটি আইসিবিএম পরীক্ষা চালায়। ৩ সেপ্টেম্বর একদিনে ছ’টি ক্ষেপণাস্ত্র ও একটি বৃহৎ পরমাণু পরীক্ষা করে, পিয়ংইয়ংয়ের দাবি অনুযায়ী এটি ছিল হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষা। কিম উন আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রে প্রশান্ত মহাসাগরীয় টেরিটরি গুয়ামে হামলা চালানোর হুমকি দিলে দুদেশের সম্পর্কে টানটান উত্তেজনা দেখা দেয়। ট্রাম্প ফায়ার এ্যান্ড ফিউরির মতো উত্তর কোরিয়াকে ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দেন। বিবাদ নিরসনে ওয়াশিংটন শেষ পর্যন্ত কূটনৈতিক পথেই থাকে।

কিম উনে সৎ ভাই ১৩ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়া সফরকালে বিষক্রিয়ায় মারা যান। দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দা সংস্থা জানায় কিম উনের নির্দেশে তাকে বিষ প্রয়োগ করা হয়। ২২ সেপ্টেম্বর কিম উন ডোনাল্ড ট্রাম্পকে উন্মাদ আখ্যা দিয়ে বলেন তার দেশ আক্রান্ত হলে যুক্তরাষ্ট্রকে চরমমূল্য দিতে হবে। উত্তর কোরিয়া যেভাবে ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা বাড়িয়ে চলে তাতে মার্কিন-দক্ষিণ কোরিয়া জোটের সক্ষমতা প্রশ্নের মুখে পড়ে। তাদের আইসিবিএম যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখন্ডে আঘাত হানতে সক্ষম।

ফ্রান্সে রাজনৈতিক ভূমিকম্প

ফ্রান্সে ৭ মে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নপন্থী ইমানুয়েল ম্যাক্রোন (৩৯) জয়ী হন। তিনি উগ্র ডানপন্থী মেরি লিপেনকে পরাজিত করেন। ম্যাক্রোনের নবগঠিত অঁ মার্শে পার্টি দেশটির রাজনীতিতে এক অভূতপূর্ব বিপ্লব ঘটায়। দীর্ঘদিনের প্রভারশালী দুটি দল রিপাবলিকান ও সোশালিস্টদের কেউই এই নির্বাচনে সুবিধা করতে পারেনি।

ভেনেজুয়েলার অর্থনৈতিক সঙ্কট

চলতি বছর ভেনেজুয়েলা কঠিন রাজনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলা করে। টানা চারমাস সরকারবিরোধী আন্দোলনের পর ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত গণভোটের মাধ্যমে গঠিত গণপরিষদ বিরোধীদের ওপর ছড়ি ঘোরানোর সুযোগ এনে দেয় সোশালিস্ট প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর জন্য। আগস্টের শুরুতেই তিনি তার একনিষ্ঠ সমালোচক হিসেবে পরিচিত অ্যাটর্নি জেনারেল লুইসা ওর্তেগাকে বরখাস্ত করেন।

জেরুজালেম

১৯৬৭ সালের ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধে ইসরাইল পূর্ব জেরুসালেম দখল করে নিয়েছিল। পরে সেটি নিজের সঙ্গে জুড়ে দিলেও তা কখনও আন্তর্জাতিকভাবে দেশটির বৈধ ভূখ-ের মর্যাদা পায়নি। ওল্ড সিটি নামে পরিচিত শহরের পুরনো অংশও ইসরাইলের অংশ হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত নয়। ফিলিস্তিনীরা এই শহরকে রাজধানী করে একটি স্বাধীন দেশ গড়তে চায়। ট্রাম্পের ৬ ডিসেম্বরের ঘোষণা শুধু আরব দেশগুলোই নয়, বরং পশ্চিমা মিত্ররাও সমালোচনা করে। থেকে ফিলিস্তিনী ভূখ-গুলোতে বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার জেরে ফিলিস্তিনী কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে একটি পূর্ব নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করেন। ফিলিস্তিনীদের অব্যাহত দুর্দশা আন্তর্জাতিক সহানুভূতি অর্জন করলেও এ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এ পর্যন্ত তাদের সমর্থনে সেভাবে এগিয়ে আসেনি। ট্রাম্পের জেরুজালেম স্বীকৃতির পর এ বিষয়ে সব দেশকে ঐক্যবদ্ধ করে।

কাতালান

১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত গণভোটে স্পেনের স্বাধীনতার পক্ষে ভোট পড়ে। কিন্তু মাদ্রিদের দৃষ্টিতে অবশ্য ওই গণভোট অবৈধ ছিল। ওই নির্বাচন যেন হতে না পারে সেজন্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে শক্তির প্রয়োগ করা হয়েছিল। কাতালান নেতা পুজদেমন যেন দ্রুত স্বাধীনতার ঘোষণা দেন সেজন্য স্বাধীনতাপন্থীদের থেকে তার ওপর চাপ ছিল। এ ঘটনা সাবেক একনায়ক ফ্রান্সিসকো ফ্রাঙ্কোর শাসনামলের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়।

আইএসের পতন

চরমপন্থী গ্রুপ ইসলামিক স্টেট বা আইএস ২০১৪ সালে সিরিয়া ও ইরাকের ৩৪ হাজার বর্গমাইল এলাকা নিয়ে তাদের স্বঘোষিত খেলাফত প্রতিষ্ঠা করেছিল। ১৭ নবেম্বর তারা ইরাকে তাদের সর্বশেষ ঘাঁটিটি হাতছাড়া হয়। মার্কিন বাহিনীর সহায়তা ইরাকী নিরাপত্তা বাহিনী শেষ পর্যন্ত এই জয় অর্জন করে।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আলআবাদি পরদিন বাগদাদে সংবাদ সম্মেলন আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়লাভের ঘোষণা দেন। নবেম্বরে ফোরাত নদীর তীরবর্তী রাওয়া শহর থেকে আইএসকে হটিয়ে দেয় ইরাকী বাহিনী। তারপর সিরীয় সীমান্তের অল্প কিছু এলাকা জঙ্গী গ্রুপটির নিয়ন্ত্রণে ছিল। নবেম্বরের মাঝামাঝি রাশিয়া মিত্রদেশ সিরিয়ায় আইএসের বিরুদ্ধে তাদের অভিযান শেষ করার ঘোষণা দেয়। এর আগে অক্টোবরে সিরিয়ায় তাদের স্বঘোষিত রাজধানী রাকার পতন ঘটে। আইএসের বিরুদ্ধে ইরাকী বাহিনী ফেব্রুযারি থেকে লড়াই করে আসে পরাজিত হলেও অনেকের ধারণা জঙ্গী গ্রুপটির সদস্যরা দুর্গম এলাকা আত্মগোপন করে থাকতে পারে।

পাকিস্তানে নওয়াজের বিদায়

পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট ২৮ জুলাই নওয়াজ শরীফকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী পদের জন্যে অযোগ্য ঘোষণা করার পর তিনি পদত্যাগ করেন। ২০১৬ সালে পানামা পেপার্স নামে খ্যাত ফাঁস হওয়া নথিতে আর্থিক অনিয়মের জন্য নওয়াজ ও তার পরিবারের সদস্যদের নাম থাকার জেরে শেষ পর্যন্ত তাকে ক্ষমতা থেকে সরে যেতে হয়। নওয়াজ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি তদন্ত দেয় আদালত। একই সঙ্গে এমপির পদও হাতছাড়া হয় নওয়াজের। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন শহীদ খাকান আব্বাসী। নওয়াজ অবশ্য তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

ডোকলাম নিয়ে অচলাবস্থা

১৬ জুন সিকিম সীমান্তের দোকলাম মালভূমিতে ত্রিদেশীয় জংশনের কাছে চীনের সেনাদের সড়ক নির্মাণকাজে বাধা দেয় ভারতীয় সেনারা। এরপর থেকেই মুখোমুখি হয় দুই দেশ। তখন থেকেই কোনও পক্ষ পিছু হটার কোনও আলামত দেখায়নি। চীনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দোকলাম মালভূমি (যেটিকে তারা দোংলাং বলে) তাদের ভূখন্ডের অংশ। সেখানে সড়ক নির্মাণের পূর্ণ অধিকার তাদের আছে। দোকলাম মূলত ভুটানের একটি ছিটমহল। তবে ভুটান এই বিবাদে কোন পক্ষ অবলম্বন করেনি। শেষ পর্যন্ত আগস্টের শেষ দিকে দুই দেশ সীমান্তে উত্তেজনা নিরসনে রাজি হয়।

হাম্বানটোটা বন্দর

শ্রীলঙ্কা ১২ ডিসেম্বর একটি গভীর সমুদ্রবন্দর চীনের কাছে হস্তান্তর করে। বন্দরটি ৯৯ বছরের জন্য চীনের কাছে ইজারা দেয়া হয়। জুনে চীনের একটি রাষ্ট্রীয় কোম্পানি শ্রীলঙ্কার দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর হাম্বানটোটা ইজারা নেয়ার কথা জানিয়েছিল। বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত পূর্ব-পশ্চিম শিপিং রুটে গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দরটি অবস্থিত। সে সময় ৯৯ বছরের জন্যে ১১২ কোটি ডলারে বন্দরটি ইজারা নেয়ার কথা জানানো হয়। কলোম্বোয় বন্দর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেন, এর মধ্য দিয়ে ৩০ কোটি ডলার আয় করেছে তার দেশ।

শীর্ষ সংবাদ:
সিনহার মৃত্যুর ঘটনায় দুই বাহিনীর সম্পর্কে চিড় ধরবে না         শেখ কামাল বেঁচে থাকলে দেশকে অনেক কিছু দিতে পারত         শহীদ শেখ কামাল ছিলেন দূরদর্শী, নির্লোভ নির্মোহ ॥ কাদের         সোশ্যাল মিডিয়ায় অস্থিরতা ছড়ালে ব্যবস্থা ॥ তথ্যমন্ত্রী         শেখ কামালের জীবন থেকে শিক্ষা নিন- তরুণ সমাজকে মেয়র তাপস         করোনা ভ্যাকসিনের আশায় বিশ্ববাসী         ভার্চুয়াল না নিয়মিত, কোন্ পদ্ধতিতে বিচার চলবে সিদ্ধান্ত আজ         বৈরুত বিস্ফোরণে ৪ বাংলাদেশী নিহত         ক্যাবল সংযোগ উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু         বাংলাদেশকে ৩২৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে জাপান         হাওড়ে ভ্রমণে গিয়ে এক পরিবারের ৮ জনসহ ১৭ প্রাণহানি         অস্ত্র মামলায় রিমান্ড শেষে সাহেদ জেল হাজতে         লবণ দেয়া কাঁচা চামড়া সরকার নির্ধারিত দামে বেচাকেনা হবে         ৯ আগস্ট থেকে কলেজে ভর্তির আবেদন         টেকনাফের ওসি প্রদীপকে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাংলাদেশকে ৩২৯ মিলিয়ন ডলার সহায়তার ঘোষণা জাপানের         সিনহা হত্যায় দোষীদের বিচার হবে : সেনা প্রধান         ৪৪টি অনলাইন পোর্টালের বিষয়ে অনাপত্তি পেয়েছি ॥ তথ্যমন্ত্রী         আমাদের বেশী বেশী করে গাছ লাগাতে হবে : রেলপথ মন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৩ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৫৪        
//--BID Records