সোমবার ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সমঝোতা হয়েছে ৯২-এর চুক্তি অনুসরণে ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সমঝোতা হয়েছে ৯২-এর চুক্তি অনুসরণে ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দমন-পীড়নের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে যে সমঝোতা হয়েছে তা ১৯৯২ সালে দেশ দুটির মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির অনুসরণেই হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী।

মিয়ানমার সফর করে দেশটির সঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে একটি সম্মতিপত্র সই করে এসে শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন-পীড়নের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে গত বৃহস্পতিবার সমঝোতা স্মারকে সই করে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। চুক্তি অনুযায়ী, আগামী দুই মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী জানান, এবারের সমঝোতা অনুযায়ী গত বছরের অক্টোবর এবং এ বছরের ২৫ আগস্টের পর যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে, মিয়ানমার শুধু তাদেরই ফিরিয়ে নেবে।

এছাড়া রোহিঙ্গারা রাখাইনে ফেরার পর সীমিত সময়ের জন্য অস্থায়ী আশ্রয়স্থলে থাকবে বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'মিয়ানমার ওই চুক্তি [১৯৯২ সালের চুক্তি] অনুসরণ করতে চায় বলে সেভাবেই করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো। এর ত্রুটি–বিচ্যুতি, এটা নেই কেন, ওটা নেই কেন— এসব বলে তো কোনো লাভ নেই। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, রোহিঙ্গাদের তারা ফেরত নিতে চেয়েছেন।'

মিয়ানমারের সঙ্গে নতুন করে সই হওয়া সমঝোতায় দেশের স্বার্থ উপেক্ষিত হয়েছে কি-না জানতে চাইলে মাহমুদ আলী বলেন, 'যে চুক্তি হয়েছে তাতে আমি সন্তুষ্ট। আমরা স্বার্থ ঠিক রেখেছি। আমাদের মূল লক্ষ্য হলো রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো।'

এছাড়া রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মাঠপর্যায়ে আরেকটি চুক্তি সই হবে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, চুক্তি বাস্তবায়নে কাজ করবে যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে নির্দিষ্ট সময়সীমা না থাকা প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'একটি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা সম্ভব নয়। মূল বিষয়টি হচ্ছে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো এবং যৌক্তিক সময়ের মধ্যেই প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।'

এছাড়া রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ ও মিয়ানমার উভয় দেশই জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের সহযোগিতা নেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

শীর্ষ সংবাদ:
প্রণোদনায় গতি ॥ করোনার ধকল কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি         শীতে করোনার প্রকোপ বাড়তে পারে, এখন থেকে প্রস্তুতি চাই         অনলাইনে ৩৬ টাকা দরে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু         তিতাসের বকেয়া সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা উদ্ধারের সুপারিশ         গ্রীষ্মকালে পেঁয়াজ আবাদ করা গেলে ঘাটতি থাকবে না         আবার সংসদের বিশেষ অধিবেশন বসছে         আইনমন্ত্রীর সহায়তায় নবজাতককে ফিরে পেলেন আঞ্জুলা         পাঁচ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধ উৎপাদনে বাধা নেই         স্বাস্থ্যের ড্রাইভারের ঢাকায় একাধিক বাড়ি, গাড়ি, শত কোটির মালিক         ইলিশ উৎপাদন আরও বাড়ানোর উদ্যোগ         ইস্পাত কারখানায় গলিত লোহা ছিটকে দগ্ধ পাঁচ শ্রমিক         যোগান বাড়াতে পেঁয়াজের শুল্ক প্রত্যাহার         ব্যাংক যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দেওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রীর         ‘বিএনপি নেতাদের কারণেই খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর দাবি ওঠতে পারে’         করোনা ভাইরাসে আরও ২৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪৪         ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ ॥ আসামি মজনুর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন বাবা         করোনা ভাইরাসমুক্ত হলেন অ্যাটর্নি জেনারেল         দুদকের মামলায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর         ‘বিএনপির আন্দোলনের তর্জন গর্জনই শোনা যায়, কিন্তু বর্ষণ দেখা যায় না’         সৌদি এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বাতিল করল বেবিচক