ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৯ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

পরীক্ষা মূলক

বাংলাদেশ

ঠাকুরাগাঁওয়ে হত্যা মামলার আসামী শান্ত গ্রেফতার

প্রকাশিত: ২২:২৬, ৩১ জুলাই ২০১৭

ঠাকুরাগাঁওয়ে হত্যা মামলার আসামী শান্ত গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ আলোচিত সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আব্দুল মান্নান খুনের ঘটনার অভিযুক্ত আরেক আসামী যুবলীগ নেতা মারুফ আলী শান্তকে পুলিশ ২০ দিন পর গ্রেফতার করেছে। অপরদিকে শান্ত’র পরিবারের দাবি শান্ত সোমবার সকাল সাড়ে সাতটায় নিজে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় আত্নসমর্পন করেছে। ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ জানান, সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মান্নান হত্যা খুনের আসামী শান্তকে সোমবার সকালে ঠাকুরগাঁও শহর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামী শান্ত’র শিক্ষক বোন বৃষ্টি দাবি করেন, শান্ত ভাইয়া সোমবার সকাল ৭ টায় আত্মসমর্পনের আগে আমার ফোনে কয়েকবার কল দিয়েছিলো। তখন আমি স্কুলে ছিলাম তাই ফোন রিসিভ করতে পারিনি। কিছুক্ষন পরে আমার স্বামী আমাকে জানায় ভাইয়া নাকি আত্মসর্পন করেছে। পরে থানায় এসে শুনি পুলিশ নাকি ভাইয়াকে ভোর বেলা নীলফামারী জেলা থেকে গ্রেফতার করেছে। তবে পুলিশ নীলফামারীর কোনস্থান থেকে শান্তকে গ্রেফতার করেছে এমন প্রশ্নের জবাব তিনি কারো কাছে পাননি বলে জানান। উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজীব দত্তের সঙ্গে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মান্নানের বিরোধ ছিল। এর জের ধরে গত ১১ জুলাই দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের মুন্সিরহাট এলাকায় আব্দুল মান্নানকে ছুরিকাঘাত করে সজীব দত্ত ও শান্ত। পরে মান্নানকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় মান্নানের বড় ভাই আবু আলী বাদী হয়ে সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজিব দত্ত ও পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শান্তর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩-৪ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ হত্যাকান্ডের দায়ে অভিযুক্ত আসামী সজিব দত্ত, তার ভাই পিন্টু দত্ত, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ দত্ত সমীর, অভিযুক্ত আসামী শান্ত’র ভাই রতনকে এর আগে গ্রেফতার করেছে। বর্তমানে তারা রিমান্ডে রয়েছে।