ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২, ২ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

সোনারগাঁয়ে জামায়াত নেতার রেলের জমি দখল

প্রকাশিত: ০৪:১৪, ১৮ অক্টোবর ২০১৬

সোনারগাঁয়ে জামায়াত নেতার রেলের জমি দখল

নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ, ১৭ অক্টোবর ॥ সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের নয়াপুর এলাকায় কয়েক কোটি টাকার রেলওয়ের সম্পত্তি দখল করে অবৈধভাবে দোকানপাট নির্মাণ করছেন প্রভাবশালী আব্দুল কাইয়ুম। তিনি রেলওয়ের দখলকৃত জায়গায় টিনশেড দোকানপাট ও গোডাউন ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়েছেন। রেলওয়ে বলছে, অবৈধভাবে দখল করে দোকানপাট ও গোডাউন নির্মাণ করেছেন। দখলদারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। জানা গেছে, সাদিপুর ইউনিয়নের নয়াপুর এলাকায় রেলওয়ের প্রায় ৭০ একর জমি প্রভাবশালী মহল দখল করে নিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করে আসছে। এদের মধ্যে নয়াপুর (কাঠালিয়া পাড়া) গ্রামের আব্দুল কাইয়ুুম লিজ ছাড়াই পাঁচ বিঘা জমি দখল করে দোকানপাট ও গোডাউন নির্মাণ করেছেন। এছাড়া নয়াপুর এলাকায় রেলওয়ের জমিতে স্থানীয় প্রভাবশালীরা বড় বড় মার্কেট নির্মাণ করে পাঁচ থেকে ১০ লক্ষাধিক টাকা করে প্রতিটি দোকান বিক্রি করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এলাকাবাসী অভিযোগ করে, নয়াপুর এলাকায় রেলওয়ে সম্পত্তি দখলের প্রতিযোগিতা চলছে। স্থানীয়রা জানায়, দখলকার আব্দুল কাইয়ুম জামায়াত নেতা। স্থানীয় চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ মোল্লা জামায়াত নেতার দখলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অভিযুক্ত আব্দুল কাইয়ুম জানান, আমি ২০ বছর ধরে বাংলাদেশ রেলওয়ের কাছ থেকে জমি লিজ নিয়ে ব্যবহার করে আসছি। ৯৯ সাল থেকে লিজ নিয়েছি। প্রতিবছর লিজের টাকাও পরিশোধ করে আসছি। এমনকি ব্যবসায়িক লিজ নিয়েও জমিতে ঘর তুলে ব্যবহার করে আসছি। যারা জীবনেও রেলওয়ের জমি লিজ আনেনি তারাও সম্পত্তি দখল করে খাচ্ছে। তাদের কিছুই হচ্ছে না। অথচ আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করে দখলদারিত্বের অভিযোগ আনা হয়েছে। এটা মিথ্যে। তিনি আরও জানান, আমি কোন রাজনীতি করি না। আমি জামায়াতের কেউ না। সুবিধা নিতেই আমাকে জামায়াত নেতা বানানো হয়েছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ের ভূ-সম্পত্তি বিভাগের সহকারী ভূ-সম্পদ কর্মকর্তা কাজী হাবিব উল্ল্যাহ জানান, সাদিপুর ইউনিয়নের নয়াপুর এলাকায় আব্দুল কাউয়ুম ৫ বিঘা রেলওয়ের জায়গা দখল করে দোকানপাট নির্মাণ করার বিষয়টি আমরা শুনেছি। সরেজমিন দেখতে আমাদের সার্ভেয়ারকে পাঠানো হয়েছে। দোকানপাট নির্মাণ করার জন্য কোন লিজ দেয়া হয়নি। যদি অবৈধভাবে দোকানপার্ট নির্মাণ করে থাকে তবে দখলদারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।