সোমবার ৪ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাসিকে অস্থিরতা

  • কাউন্সিলরদের সাধারণ সভা বয়কট

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ মেয়র পদ দখলকে কেন্দ্র করে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে (রাসিক) ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে সঙ্কট। সর্বশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম-উল আযীমের আহ্বানে সোমবার অনুষ্ঠিত সাধারণ সভাকে অবৈধ দাবি করেছেন রাসিকের ২২ কাউন্সিলর। তারা সভা বয়কট করে রাজশাহী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত বছরের ৭ মে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। এর বিরুদ্ধে তিনি আপীল করলে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ মন্ত্রণালয়ের আদেশ অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেয়। সরকারপক্ষ এ নিয়ে আপীল করলেও হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখে আপীল বিভাগ।

এর পর অপর এক মামলায় গত ৩ মার্চ রাসিকের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিজাম-উল আযীমকে অবৈধ হিসেবে ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপীল করেন নিজাম। কিন্তু ২৪ মার্চ ওই আপীল খারিজ করে দেয় আদালত। সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, উচ্চ আদালতের আদেশের পর ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম-উল আযীমকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় প্রশাসনিক ও আর্থিক যে ক্ষমতা অর্পণ করেছিল, তা রহিত হয়ে গেছে। নিযাম এখন শুধু একজন কাউন্সিলর। সিটি কর্পোরেশন আইন অনুযায়ী সাধারণ সভা ডাকার তার এখতিয়ার নেই।

সভা বর্জনকারী ২২ কাউন্সিলরের মধ্যে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- ১ নম্বর প্যানেল মেয়র আনোয়ারুল আমিন আজব, ২ নম্বর প্যানেল মেয়র নুরুজ্জামান টিটু, ৩ নম্বর প্যানেল মেয়র নুরুন্নাহার বেগম, কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন দিলদার, রবিউল ইলম মিলু, নারী কাউন্সিলর শাহনাজ বেগম, কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হামিদ সরকার টেকন প্রমুখ।

আনোয়ারুল আমিন আজব বলেন, ৪০ জনের মধ্যে ২৫ কাউন্সিলর তাদের পক্ষে রয়েছেন। তিনজন বাইরে রয়েছেন। মন্ত্রাণালয়ে পাঠানো চিঠিতে ২২ জন স্বাক্ষর করেছেন।

এদিকে, মন্ত্রণালয়ের ২২ কাউন্সিলরের অভিযোগ প্রদানকে জামায়াত-বিএনপির ষড়যন্ত্র বলে আখ্যায়িত করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম-উল আযীম। তিনি বলেন, দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে আমি সাধারণ সভা ডাকতেই পারি। এ এখতিয়ার তার আছে বলেও দাবি করেন তিনি। প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৩ এপ্রিল নগর ভবনের ৩০২ নম্বর কক্ষে কয়েক মিনিটের জন্য রাসিকের এক বিশেষ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার প্রথমেই জানানো হয়, প্যানেল মেয়র-১ আনোয়ারুল আমিন আজব, প্যানেল মেয়র-২ নুরুজ্জামান টিটো এবং প্যানেল মেয়র-৩ নুরুন্নাহার বেগম অসুস্থতা ও ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেছেন। ফলে তিনটি পদই এখন শূন্য। পরে প্যানেল মেয়র-১ হিসেবে বর্তমানে মেয়রের দায়িত্ব পালনকারী ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম-উল আযীম, প্যানেল মেয়র-২ হিসেবে ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর একেএম রাশেদুল হাসান টুলু এবং প্যানেল মেয়র-৩ হিসেবে তাহেরা বেগম মিলিকে নির্বাচিত করা হয়।

শীর্ষ সংবাদ:
হল ছাড়বেন না শাবি শিক্ষার্থীরা, ভিসির পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল ক্যাম্পাস         রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ দিতে সংসদে প্রস্তাব         দেশে ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত         আবারও করোনায় আক্রান্ত আসাদুজ্জামান নূর         আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ         শৈত্য প্রবাহ থাকবে আরও দুই-একদিন         কিংবদন্তি কত্থক শিল্পী বিরজু মহারাজ আর নেই         উখিয়া-টেকনাফে হাইওয়ে পুলিশের ঘুষ বাণিজ্য, রোহিঙ্গাসহ চালকদের হাতে হাতে টোকেন         মালির ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বাউবাকার আর নেই         ফের ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে উত্তর কোরিয়া, জানাল দক্ষিণ কোরিয়া         পদত্যাগ করলেন শাবির সেই প্রভোস্ট