সোমবার ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পাকিস্তানে প্রগতিশীলদের সামনে অন্ধকার

  • মানবাধিকার কর্মী সাবিনকে হত্যার পর হতাশা বাড়ছে

পাকিস্তানের প্রখ্যাত এক মানবাধিকার কর্মীকে হত্যার পর দেশটির প্রগতিশীলদের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। তাঁরা বলেছেন, ধর্মীয় উগ্রপন্থী ও রাষ্ট্রের নির্যাতনের বিরুদ্ধে কথা বলায় তাদের হুমকি দেয়ার ঘটনা বেড়েছে। দেশটিতে প্রগতিশীলদের ভবিষ্যতই অন্ধকার। দেশটির বেলুচিস্তান প্রদেশে শুক্রবার নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে আয়োজিত এক সেমিনারে অংশগ্রহণ শেষে বাড়ি ফেরার সময় অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা তার গাড়িতে হামলা চালিয়ে সাবিন মাহমুদ নামের ওই কর্মীকে হত্যা করে।

করাচিতে ‘দ্য সেকেন্ড ফ্লোর’ নামের একটি মুক্তমঞ্চ পরিচালক ছিলেন সাবিন। মূলত বেলুচিস্তানে মানবাধিকারের অপব্যবহার এবং নাগরিক অধিকার নিয়ে আলোচনা হতো এ মঞ্চে। গত কয়েক বছরে বেলুচিস্তানের বেশ কয়েকজন সাধারণ মানুষকে অপহরণ করা হয় এবং অপহরণের বহু দিন পর তাদের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। সাবিন এবং তারই চিন্তাধারায় বিশ্বাসী এমন কয়েকজনের অভিযোগ, পাকিস্তান সরকার এবং দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই এসব অপহরণের মূলে। আর এ নিয়েই সক্রিয়ভাবে কাজ করতেন সাবিন এবং আর এক মানবাধিকার কর্মী মামা কাদির। যে আলোচনা সভা থেকে শুক্রবার রাতে বাড়ি ফিরছিলেন সাবিন, সেখানে উপস্থিত ছিলেন কাদিরও। গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর চাপে বেলুচিস্তানের নিখোঁজ লোকদের নিয়ে মামা কাদিরের একটি আলোচনা সভা কয়েক সপ্তাহ আগেই বাতিল করে দিয়েছে লাহোর ইউনিভার্সিটি অব ম্যানেজমেন্ট সায়েন্সেস। সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা জামিল আহমেদ রবিবার বলেছেন, সাবিনের যেহেতু ব্যক্তিগত কোন শত্রুতা ছিল না, তাই তার বুদ্ধিবৃত্তিক তৎপরতার কারণে তার দুর্বৃত্তদের লক্ষ্যে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। তিনি অপরিচিত ফোন নম্বর থেকে কয়েকটি হুমকি পেয়েছিলেন। তারাই কি এই হামলা করেছিল কিনা সে বিষয়ে আমরা কাজ করছি। পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ এবং যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই হত্যাকা-ের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। তবে বেশিরভাগ বিশ্লেষক বলেছেন, সাবিনের খুনীদের বিচারের আওতায় আনার সুযোগ সামান্যই। গত বছর লাহোরে বন্দুক হামলা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যান টিভি উপস্থাপক রাজা রুমি। অপর উপস্থাপক হামিদ মির বেলুচিস্তান নিয়ে একটি টিভি অনুষ্ঠান করার পরই করাচিতে তার পেটে গুলি করে বন্দুকধারীরা। তিনি বেঁচে যান। উভয় ক্ষেত্রেই কোন অপরাধীকেই বিচারের আওতায় আনা হয়নি। -এএফপি

শীর্ষ সংবাদ:
ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি ॥ শক্তিশালী হয়ে উঠছে সূচকগুলো         দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে         রাজনৈতিক পরিচয় কোন অপরাধীর আত্মরক্ষার ঢাল হতে পারে না ॥ কাদের         বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়াসহ যারা যুক্ত তাদের মুখোশ উন্মোচন করা প্রয়োজন ॥ তথ্যমন্ত্রী         সাবমেরিন কেবল কেটে ফেলেছে হাউজিং কোম্পানি         ওসি প্রদীপকে দেখানো দালিলিক প্রমাণই কাল হয় সিনহার         বিড়ম্বনা ছাড়াই শুরু হলো একাদশে ভর্তির অনলাইন আবেদন         লেনদেনের বিরোধের জেরে ব্যবসায়ী খায়েরকে খুন করে মিলন         বিশ্ব আদিবাসী দিবস পালিত         বরেণ্য সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী আর নেই         গীতিকার ও সুরকার আলাউদ্দিন আলী আর নেই         পোশাক রফতানিতে আবারো দ্বিতীয় বাংলাদেশ         সাবমেরিন কেবল লাইনে জটিলতা দেখা দেওয়ায় সারা দেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি         স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা তৈরি করবে সংসদীয় কমিটি         ডেঙ্গু মশা নিয়ন্ত্রণে ১৬ই অগাস্ট হতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবে ডিএসসিসি         কেরালায় চা বাগানে ভূমিধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৩         কোভিড-১৯ কালীন অনিশ্চিয়তায় ধান উৎপাদন বৃদ্ধি অব্যাহত রাখার বিকল্প নেই ॥ কৃষিমন্ত্রী         ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্যায়ের প্রতিকার করতে হয় ॥ তথ্যমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৩৪ জন, নতুন শনাক্ত ২৪৮৭         শেখ হাসিনা সরকার প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের বিচারে সোচ্চার থেকেছে ॥ সেতুমন্ত্রী        
//--BID Records