ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

দাদির ইচ্ছা পূরণে হেলিকপ্টারে বিয়ে করতে এলেন রায়হান

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট

প্রকাশিত: ১৮:০০, ২১ জুন ২০২৪

দাদির ইচ্ছা পূরণে হেলিকপ্টারে বিয়ে করতে এলেন রায়হান

ফুল দিয়ে বরণ করে নেন কনে পক্ষের লোকজন। ছবি: জনকণ্ঠ

বাগেরহাটের চিতলমারীতে প্রথম হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে এলেন বর রায়হান আমীন (২৮)। হেলিকপ্টরে করে বর আসার সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে শুক্রবার দুপুর থেকে চিতলমারী এ কে ফজলুল হক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে ভিড় করেন স্থানীয় উৎসুক জনতা। পূর্ব থেকে নিরাপত্তা নিশ্চিত করণের জন্য বিদ্যালয় মাঠে পুলিশ মোতায়েন করা ছিল।

বিকেল ৩ টার দিকে ইমপ্রেস এভিয়েশনের একটি হেলিকপ্টরে করে পার্শ্ববর্তী উপজেলা নাজিরপুরের চরমাটিভাঙ্গা গ্রাম থেকে মাঠে অবতরণ করেন ডা. রুহুল আমীনের ছেলে বর রায়হান আমীন (২৮)। এ সময় বর রায়হান আমীনের সঙ্গে তার নানীসহ আরো ৪ জন আত্মীয় ছিলেন। হেলিকপ্টার থেকে নামার পর কনে পক্ষের লোকজন বর ও তার আত্মীয়দের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। 

এ সময় শত শত উৎসুক জনতা বরকে দেখতে ভিড় জমান। হেলিকপ্টর থেকে নেমে নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে গিয়ে বর রায়হান আমীন বলেন, আমি যখন ছোট ছিলাম তখন আমার দাদী আনোয়ারা বেগম ইচ্ছা পোষণ করে বলতেন তার নাতিকে হেলিকপ্টরে করে বিয়ে করাতে নিয়ে যাবেন। দাদী আনোয়ারা বেগম ২০০৫ সালে মারা গেলেও তাঁর ইচ্ছা পূরণ করতে তিনি হেলিকপ্টরে করে বিয়ে করতে এসেছেন।

বরের পিতা ডা. রুহুল আমিন জানান, পূর্ব থেকে পারিবারিকভাবে চিতলমারী উপজেলার আড়ুয়াবর্ণী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত নৌ সেনা সদস্য সাইফুর রহমানের কন্যা সাজিয়া আমিনের (১৯) সঙ্গে তার ছেলে ডেভেলোপার ব্যবসায়ী রায়হান আমীনের বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ের নির্ধারিত দিনে হেলিকপ্টরে করে তার ছেলে বিয়ে করতে আসে। 

তিনি সকলের কাছে নব দম্পতির জন্য দোয়া কামনা করেন।

 এসআর

×