ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মাগুরায় ’৭১-এর বধ্যভূমিগুলো অযত্ব অবহেলায়

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা

প্রকাশিত: ২৩:৫৬, ২৪ নভেম্বর ২০২২

মাগুরায় ’৭১-এর বধ্যভূমিগুলো অযত্ব অবহেলায়

বাংলোর সামনে অবহেলিত বদ্ধভূমি ইঁদারা ভরাট করে গণহত্যার স্মৃতি চিহ্ন মুছে ফেলা হয়েছে

মাগুরায় সংরক্ষণের অভাবে জেলার  বধ্যভূমিগুলো অবহেলিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। জানা গেছে, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকবাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকারা, আলবদর, আলসামসরা মাগুরা শহরের পিটিআই, নবগঙ্গা নদীর ঢাকারোড ব্যারেজ ও পারনান্দুয়ালী ক্যানেলে শত শত মানুষকে হত্যা করে নদীতে ভাসিয়ে দিত। এসব বধ্যভূমি সংরক্ষণের অভাবে অবহেলিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। শহরের  পিটিআইতে ছিল পাকবাহিনীর ক্যাম্প।

এখানে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে সাধারণ মানুষ ও মুক্তিযোদ্ধাদের ধরে এনে নির্মম নির্যাতনের পর হত্যা করে গণকবর দেয়া হতো। গণকবরগুলো সংরক্ষণ করা হয়নি। এখানে নির্মিত হয়েছে নতুন নতুন ভবন। শালিখার ছয়ঘরিয়া নামক স্থানে মাগুরা-যশোর সড়কের দুপাশে ১৩ শহীদ  মুক্তিযোদ্ধার গণকবর রয়েছে। রাজাকাররা ফরিদপুরে যাওয়ার পথে এই ১৩ জন মুক্তিযোদ্ধাকে গুলি করে হত্যা করেছিল। পরে দুটি কবরে এদের গণকবর দেয়। গণকবরটি সংরক্ষণ করা হয়নি।
বোঝার উপায় নেই এখানে কোন গণকবর ছিল। আড়পাড়ার ডাকবাংলোটিতে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক বাহিনীর ক্যাম্প ছিল। নদী পথে মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষ গেলে তাদের ধরে এনে নির্মম অত্যাচারের পর হত্যা করে নদীতে ভাসিয়ে দিত। বহু মানুষকে হত্যা করে বাংলোর সামনের ইঁদারায় ফেলে দিত। ইঁদারাটি বতমানে ভরাট হয়ে গেছে। অবহেলিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

 

 

monarchmart
monarchmart