২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারতীয় গবেষকদের সাফল্য ব্লাড ক্যান্সার চিকিৎসায় সাতটি নতুন অণু শনাক্ত


ভারতের প-িচেরী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সহযোগী অধ্যাপকের নেতৃত্বে একটি গবেষণা দল সাতটি নতুন অণু চিহ্নিত করার দাবি করেছে। এই অণুগুলো এক ধরনের ব্লাড ক্যান্সার ক্রনিক মাইলোজেনাস লিউকেমিয়ার (সিএমএল) চিকিৎসায় বেশি কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। এই ক্যান্সার অস্থিমজ্জার মধ্যে রক্তের শে^ত কণিকার অনিয়ন্ত্রিত বৃদ্ধি ঘটায় এবং এটি শরীরের পুরো ব্লাড সেল কাউন্টের ভারসাম্য নষ্ট করে দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি এ্যান্ড মলেকিউলার বায়োলজি ডিপার্টমেন্টের সহযোগী অধ্যাপক আর ভাঙ্করন, সহকারী অধ্যাপক এম সুরেশ কুমার এবং পিএইচডি স্কলার হেমন্ত নায়েক ও ওম প্রকাশ শর্মাকে নিয়ে গঠিত দলটি যে সাতটি অণু চিহ্নিত করেছেন তার পাঁচটি বর্তমানে বিদ্যমান ওষুধের চেয়ে কার্যকরী। বর্তমানে পনাটিনিব, ইমাটিনিব, ডাসাটিনিব ও নিলোটিনিব জাতীয় ওষুধগুলো এই ধরনের ব্লাড ক্যান্সারের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। বিদেশে ক্যান্সার গবেষণায় ভাঙ্করনের ২০ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি বলেছেন, নতুন চিহ্নিত করা অণুগুলো ব্যবহার করে তৈরি ওষুধ বিদ্যমান ওষুধগুলোর চেয়ে কার্যকর হবে। এই ওষুধ অস্থিমজ্জার এনজাইমগুলোর সঙ্গে মিশিয়ে সিএমএলের বিস্তার রোধ করবে। এই গবেষণার ফলাফল তাৎপর্যপূর্ণ বলে ধরা হয়েছে। নতুন অণু দিয়ে তৈরি ওষুধ বিদ্যমান ওষুধের চেয়েও দামে কম হবে। সিএমএল রোগীদের সাধারণত সর্বনিম্ন পাঁচ বছর চিকিৎসা নিতে হয়। তবে কিছু রোগীর সারাজীবনই চিকিৎসা নিতে হয়। এই গবেষণাটি আজ সোমবার আন্তর্জাতিক জার্নাল ‘নেচার : সায়েন্টিফিক রিপোর্টস’-এ প্রকাশিত হবে। -টাইমস অব ইন্ডিয়া