ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

কঙ্গনার নমিনেশন বাতিল করল ফিল্মফেয়ার

প্রকাশিত: ১৮:১৭, ২২ আগস্ট ২০২২

কঙ্গনার নমিনেশন বাতিল করল ফিল্মফেয়ার

কঙ্গনা রানাওয়াত

রবিবার  ফিল্মফেয়ারের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দিয়েছেন কঙ্গনা রানাওয়াত । এরপরই ফিল্মফেয়ার কঙ্গনা রানাওয়াতের নাম সরিয়ে দিয়েছে সেরা অভিনেত্রীর নমিনেশন থেকে।

কঙ্গনা জানিয়েছিলেন ফিল্মফেয়ার তাঁকে সেরা অভিনেত্রীর নমিনেশন পাঠানোয় তিনি বিরক্ত। এমনকি মামলা করারও হুমকি দিয়েছিলেন। আর তারপরেই কঠোর পদক্ষেপ নিল ফিল্মফেয়ার। সেরা অভিনেত্রীর নমিনেশন থেকে তুলে নেওয়া হল কঙ্গনার নাম, যা তিনি থালাইভি-র জেরে পেয়েছিলেন। ফিল্মফেয়ার এক বিবৃতিতে কঙ্গনার লাগানো অভিযোগ ‘মিথ্যে’ দাবি করেছে ও সেইসঙ্গে তাকে নমিনেশন থেকে সরিয়ে দেওয়ার কথাও জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘গতানুগতিক ভাবে অ্যাওয়ার্ডস দেওয়ার সময় যা হয় তাই হয়েছে। ফিল্মফেয়ারের এগজিকিউটিভ এডিটর মিস রানাওয়াতকে জানিয়েছে তিনি সেরা অভিনেত্রী বিভাগে নমিনেশন পেয়েছেন অনুরোধ করেছে তিনি যেন তাঁর বর্তমান ঠিকানা পাঠান যাতে তাঁর কাছে চিঠি পৌঁছে দেওয়া সম্ভবপর হয়।’

কঙ্গনাকে তাদের পাঠানো বার্তাও তুলে দিয়েছে ফিল্মফেয়ার নিজেদের বিবৃতিতে। যেখানে লেখা ছিল, ‘হ্যালো কঙ্গনা। ফিল্মফেয়ারের নমিনেশন পাওয়ার জন্য আপনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা। আপনি এখানে আসলে আমরা আন্তরিকভাবে খুশি হব। আগস্ট ৩০-এ হওয়া অনুষ্ঠানে আপনি আসবেন কি না তা নিশ্চিত করুন দয়া করে। যা আমাদের সাহায্য করবে আপনার জন্য আসন নির্দিষ্ট করতে। আপনার বাড়ির বর্তমান ঠিকানাও আমাদের পাঠান যাতে আমরা আপনার কাছে নিমন্ত্রণপত্র পৌঁছে দিতে পারি। ধন্যবাদান্তে।’ ‘কোনওভাবেই অ্যাওয়ার্ড তাঁকেই দেওয়া হবে এরকম কোনও ইঙ্গিত বা অ্যাওয়ার্ড শো -তে পারফর্ম করতে হবে এমন কিছু অনুরোধ করা হয়নি’, লেখা হয়েছে ফিল্মফেয়ারের বিবৃতিতে।

‘তাই স্পষ্টভাবে বলা যায় মিস রানাওয়াত মিথ্যে অভিযোগ তুলেছেন আমাদের উপরে। আমাদের তাঁকে নিমন্ত্রণ পাঠানোর উদ্দেশ্য হল আমাদের গোটা দেশ, অর্থাৎ ভারতীয় সিনেমাকে একসঙ্গে নিয়ে এসে উদযাপন করতে চাই। চলচ্চিত্রে উৎকৃষ্টতাকে উদযাপন করাই ফিল্মফেয়ারের লক্ষ্য, সেক্ষেত্রে নমিনি অ্যাওয়ার্ড শো-তে ভাগ নিল কি না বা পারফর্ম করল কি না, তা দেখা হয় না। আরও বলে রাখা ভালো, মিস রানাওয়াত যিনি ৫ বার ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডের বিজেতা, তার মধ্যে দুবার (২০১৮ আর ১৫) উপস্থিত না থেকেই পেয়েছেন। এটা জানা সত্তেও তিনি আসবেন না বা পারফর্ম করবেন না এখানে।’

ফিল্মফেয়ারের তরফ থেকে কঙ্গনার নাম নমিনেশন থেকে তুলে নেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয় এরপর। সঙ্গে জানানো হয় তাঁরা প্রয়োজন বুঝলে ‘থলাইভি’ অভিনেত্রীর নামে মানহানির মামলাও করতে পারেন, তাঁদের সুনাম নষ্ট করার চেষ্টা করার কারণে।

কঙ্গনা নিজের ইনস্টাগ্রাম স্ট্যাটাসে লিখেছিল, ‘সেই ২০১৪ সাল থেকে অনৈতিক, দুর্নীতিগ্রস্ত এবং সম্পূর্ণ ভুলভাল ফিল্মফেয়ারকে ব্যান করেছি আমি। কিন্তু সেই থেকেই আমার কাছে ফোন আসছে ক্রমাগত আর বলছে ওদের অ্যাওয়ার্ড শো-তে যোগ দিতে। আর এই বছর ওরা আমাকে থলাইভি-র জন্য অ্যাওয়ার্ড দিতে চায়। আমি এটা ভেবে অবাক হলাম যে ওরা আমাকে এখনও নমিনেশন দেয়। এটা আমার মর্যাদা ও নীতিবোধকেকে খাটো করে, এমন ধরনের দুর্নীতিগ্রস্ত ব্য়বস্থাকে প্রশ্রয় দেওয়া। তাই ফিল্মফেয়ারের নামে আমি মামলা করব ঠিক করেছি।’

তবে ফিল্মফেয়ারের কাছ থেকে এই বিবৃতি আসার পরেও ক্ষান্ত হননি অভিনেত্রী। তিনি নিজেও এই নিয়ে বিবৃতি দিয়ে লেখেন, ‘ফিল্মফেয়ার শেষমেশ আমার থেকে সেরা অভিনেত্রীর নমিনেশন তুলে নিল। ধন্যবাদ যারা আমার পাশে ছিলেন দুর্ণীতির বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে। তবে এটা করে ওরা আমাকে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া থেকে আটকাতে পারবে না। আমার চেষ্টাই হল এই ধরনের অনৈতিক অভ্যাস করা দূষিত অ্যাওয়ার্ড শোগুলিকে বন্ধ করা। তোমাদের সঙ্গে আদালতে দেখা হচ্ছে @ফিল্মফেয়ার।’

সম্পর্কিত বিষয়:

×