রবিবার ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

অপকর্ম করলে শাস্তি পেতে হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল খাঁন বলেছেন, অপকর্ম করলে শাস্তি পেতে হবে- আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে আবারও সেটা প্রমাণিত হয়েছে। রায়ের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বুধবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে তিনি সাংবাদিকদের একথা বলেন। তিনি বলেন, এ মামলায় বিদেশে পলাতক আসামিদের শীঘ্রই ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা বাংলাদেশের মানুষ রায় পেয়ে আজকে মনে করি যে একটা যোগ্য বিচার হয়েছে। দেশে যারাই অপকর্ম করবে তাদের শাস্তি যে হবে, এ রায়ের মাধ্যমে আবারও প্রমাণিত হলো।

তিনি বলেন, আজ জাতির জন্য বড় একটা দিন। আমরা মনে করি জাতির কালিমা যেটা আমরা লেপন করেছি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে এ রকম আরেকটা কালিমা লেপন একুশে আগস্ট করেছিল। এ কালিমা আজকে দূর হলো। আমরা মনে করি বাংলাদেশের মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবে। এ দেশে বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, এখানে ন্যায়বিচার হয়। যারাই নাকি এ ধরনের কর্ম করবে তাদের বিচার অবশ্যই হবে।

এ রায়ে কি আপনি খুশি- এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অবশ্যই আমি খুশি। আমি মনে করি বিজ্ঞ আইনজীবীরা সবকিছু সঠিকভাবে তুলে ধরেছিলেন এবং বিজ্ঞ বিচারকরা সঠিক বিচারটিই করতে সক্ষম হয়েছেন। তখন যে সকল পুলিশ সেই জায়গাটিতে পুলিশের ডিউটিতে ছিল এবং যারা বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে জড়িত ছিল রায়ের মধ্যে তারাও এসেছে। কেউই তাদের দায়িত্বে অবহেলা করতে পারবেন না। এ ধরনের নৃশংস প্র্রোগ্রাম যারা নিয়েছিলেন, যারা আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছিলেন, অর্থ যোগান দিয়েছেন তাদেরও ফাঁসি কিংবা যাবজ্জীবন দন্ড হয়েছে। আমরা মনে করি এটা যথার্থই হয়েছে।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, বিদেশে যারা পালিয়ে আছে খুব শীঘ্রই তাদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ঘটনায় জজ মিয়া নাটক ও একজনকে দিয়ে একটা কমিশন তৈরি করেছিল জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এটাকে ঢেকে দেয়া, আড়াল করা বা অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেয়ার জন্য চেষ্টা অনেক হয়েছে। আমাদের আওয়ামী লীগের লোকের বাড়িঘর তছনছ করা হয়েছিল, তাকে আসামি বানানোর চেষ্টা হয়েছিল। এগুলো আপনারা দেখেছেন। এর কারণটা কী ছিল। যারা এ কর্মটা করেছিল তারা এটা যাতে আড়াল করা যায় সেই ব্যবস্থা নিয়েছিল। মামলাটি পর্যন্ত নেয়নি। এমনকি জাতীয় সংসদে আমাদের নেতারা যখন প্রতিবাদ করতে যাচ্ছিলেন, তাদের বলতে দেয়া হয়নি। এতে প্রমাণিত হয় যারা শাস্তির আওতায় এসেছেন তারা এর সঙ্গে জড়িত ছিলেন। রাজনৈতিকভাবে তাদের একটা উদ্দেশ্য ছিল। সেই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্যই এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

আপনার একজন পূর্বসূরী এই চেয়ারে বসেছিলেন, তার মৃত্যুদন্ড হয়েছে আপনার প্রতিক্রিয়া কী- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, যারা অপকর্ম করবে, যারা ষড়যন্ত্র করবে, যারা দেশদ্রোহী তাদের প্রচলিত আইন রেহাই দেবে না। জনগণ কোনদিন তাদের ভুলবে না, তাদের শাস্তি পেতেই হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সবচেয়ে মারাত্মক ॥ গবেষণা         বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা মামলার ২২ আসামি আদালতে         চট্রগ্রাম টেস্টে তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনে বাংলাদেশের ভালো কিছুর প্রত্যাশা         তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউপিতে ভোটগ্রহণ চলছে         ওমিক্রন ঠেকাতে হবে ॥ করোনার আফ্রিকান ধরনে নতুন আতঙ্ক         বিশ্বকাপের মূলপর্বে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল         শিক্ষার্থীদের অবরোধ যানজট, ভোগান্তি         তেল চুরির নেশায় তারা ময়লাবাহী গাড়ি চালাত         এক হাজার ইউপি’তে আজ ভোট ॥ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন         অর্থপাচার নিয়ে সংসদে ক্ষোভ, কমিশন দাবি         পারিবারিক আদালত অবমাননা ॥ কঠিন শাস্তি দিতে হবে         জাল রুপী তৈরি হয় পাকিস্তানে, পাচার হয় ভারতে         বরাদ্দ পেয়েও বাসায় উঠতে পারছেন না পুলিশ সদস্যরা         খালেদা জিয়ার মূল সমস্যা পরিপাকতন্ত্রে রক্তক্ষরণ ॥ ফখরুল         ২৭শ’ বছরের প্রাচীন প্রতœতাত্ত্বিক নিদর্শনের সন্ধান         অবৈধ দখলদারদের কবলে চট্টগ্রামের সড়ক ও ফুটপাথ         হেফাজতের নির্দোষ নেতাদের ছেড়ে দেয়া হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         ওমিক্রন ঠেকাতে সরকারকে যে পরামর্শ দেবে জাতীয় কমিটি         রবিবার তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউপিতে ভোট         গোষ্ঠীগত ও জমিজমার বিরোধে নির্বাচনী সহিংসতা : আইনমন্ত্রী