ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৭ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি করছে গ্রিস

প্রকাশিত: ১৯:১৮, ২৮ নভেম্বর ২০১৭

সৌদির কাছে অস্ত্র বিক্রি করছে গ্রিস

অনলাইন ডেস্ক ॥ সৌদি আরবের কাছে ৭৮ দশমিক ৭ মিলিয়ন ডলারের বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র বিক্রি করছে গ্রিস। এমন সময় গ্রিস তাদের কাছে অস্ত্র বিক্রি করছে, যখন সৌদি আরব ইয়েমেনে যুদ্ধ করছে, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের হুমকি জারি রেখেছে এবং লেবাননে প্রভাব বিস্তার করছে। ইয়েমেনে বেসামরিক লোক হত্যা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগের মধ্যেই সৌদি আরবের কাছে গ্রিসের অস্ত্র বিক্রির চুক্তি নিয়ে গ্রিক রাজনীতি গরম হয়ে উঠেছে। বিরোধী দল ও অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষমতাসীন বামপন্থি সিরিজা পার্টির নেতৃত্বের সমালোচনা করে চুক্তি প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু সিরিজা পার্টির প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সিস সিপরাস এ ইস্যুতে বিরোধী পক্ষের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার অভিযোগ করেছেন। গ্রিসের বিরোধী রাজনীতিকরা অভিযোগ করেছেন, আন্তর্জাতিক আইনের প্রক্রিয়া যথাযথভাবে না মেনে সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রির চুক্তি করেছে সিপরাসের নেতৃত্বাধীন সরকার। আর সমালোচকরা বলছেন, যুদ্ধরত সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি করে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন করছে সরকার। মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে দরিদ্র দেশ ইয়েমেনে শিয়াপন্থি হুতিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সুন্নিপন্থি দেশগুলোর সামরিক জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছে সৌদি আরব। গ্রিসের মধ্য-ডানপন্থি নিউ ডেমোক্র্যাসির আইনপ্রণেতা অভিযোগ করেছেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী পানোস কামেনোস এই চুক্তির শর্ত ঠিক করতে অবৈধভাবে বেসরকারি মধ্যস্থতাকারী নিয়োগ দিয়েছেন। তবে অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি। গ্রিক আইনানুযায়ী, এ ধরনের চুক্তি অবশ্যই সরাসরি সরকারের তরফে করতে হবে। এর আগে স্বচ্ছতা ছাড়াই এ ধরনের ‘উসকানিমূলক’ চুক্তি করায় পানোস কামেনোসের পদত্যাগ দাবি করে নিউ ডেমোক্র্যাসি। সোমবার গ্রিক পার্লামেন্টে এ চুক্তি নিয়ে উত্তপ্ত বিতর্কের সময় বিরোধী দলের নেতা কিরিয়াকোস মিটসোটাকিস চুক্তির নিয়ে তদন্তের আহ্বান জানান এবং বেসরকারি মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা কী, তা খতিয়ে দেখে প্রকাশের দাবি জানান। চুক্তি নিয়ে বিতর্কের প্রতিক্রিয়ায় প্রধানমন্ত্রী সিপরাস বলেন, বিরোধী দল নিউ ডেমোক্র্যাসি ও একটি ‘মিডিয়া গোষ্ঠী’ সরকারকে বিপদে ফেলতে এই চুক্তি ব্যবহার করছে। তিনি আরো দাবি করেন, এই চুক্তিতে মধ্যস্থতাকারী গ্রিসের নাগরিক ভাসিলিস পাপাডোপোলাসকে সৌদি আরব যুক্ত করেছে। তবে এর আগে বিষয়টি অস্বীকার করেছিল গ্রিক সরকার। সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রির চুক্তি নিয়ে ক্ষমতাসীন সিরিজা পার্টির আইনপ্রণেতাদের মধ্যেও বিরোধ দেখা দিয়েছে। এ দলের আইনপ্রণেতা গিওরগজ কিরিটসিস বলেছেন, রাজনৈতিক ও নৈতিক দিক বিবেচনায় দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রি করা উচিত নয়। কিরিটসিস আলজাজিরাকে বলেন, ‘আমাদের যদি অর্থেরও দরকার পড়ে- তবুও সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রি করা উচিত নয় বলে আমি ও সিরিজা পার্টির অনেক আইনপ্রণেতা মনে করেন... তারা এগুলো ইয়েমেনিদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করবে।’ ২০১৫ সালে ইয়েমেনে গৃহযুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১২ হাজার মানুষ নিহত ও প্রায় ৫০ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন। একই বছর থেকে ইমেয়েনে সুন্নিপন্থি নেতৃত্বের সমর্থনে যুদ্ধ করছে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। জাতিসংঘের তথ্যমতে, নিহতদের মধ্যে ৬০ শতাংশ বেসামরিক লোক। জাতিসংঘের তথ্যানুযায়ী, প্রায় ২ কোটি ইয়েমেনির জন্য জরুরি মানবিক সহায়তা প্রয়োজন। এদের মধ্যে প্রায় ১ কোটি ১০ লাখই শিশু। সোমবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের গ্রিস শাখা এক বিবৃতিতে সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রির চুক্তি প্রত্যাহার করতে গ্রিক সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে। তথ্যসূত্র : আলজাজিরা অনলাইন।
monarchmart
monarchmart