ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

কালভার্ট ভেঙ্গে মরণফাঁদ, ঝুঁকি নিয়ে যান চলাচল

প্রকাশিত: ০৬:২৯, ২৬ জুলাই ২০১৭

কালভার্ট ভেঙ্গে মরণফাঁদ, ঝুঁকি নিয়ে যান চলাচল

নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা, ২৫ জুলাই ॥ জেলার কলমাকান্দা-দুর্গাপুর সড়কের ভবানীপুর এলাকায় একটি বক্সকালভার্ট ভেঙ্গে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। এ কারণে সড়কটিতে ভারি কোন যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। হালকা যানবাহনও চলছে চরম ঝুঁকি নিয়ে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রায় দেড় বছর ধরে কালভার্টটি ভাঙ্গা অবস্থায় পড়ে আছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ সংস্কারের উদ্যোগ নিচ্ছে না। স্থানীয়রা জানান, গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে একটি অতিরিক্ত বালু বোঝাই ট্রাক উঠলে নাজিরপুর বাজারসংলগ্ন ভবানীপুর এলাকার এ কালভার্টটি ভেঙ্গে যায়। পরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি) দুটি স্টীলের পাটাতন বসিয়ে কালভার্টটি যান চলাচলের উপযোগী করে। এভাবে কিছুদিন চলার পর ভাঙ্গা অংশটি আরও বড় হয়। পাটাতন সরে যায়। ফলে সড়কটি আবার যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। জানা গেছে, জেলার গুরুত্বপূর্ণ শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়কটি দু’বছর ধরে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে আছে। এ অবস্থায় দুর্গাপুর উপজেলার লোকজন বিকল্প রাস্তা হিসেবে কলমাকান্দা-দুর্গাপুর সড়কটি দিয়ে জেলা সদরসহ বিভিন্নস্থানে যাতায়াত করেন। এছাড়া ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শত শত ট্রাক দুর্গাপুরের সোমেশ্বরী নদী থেকে বালু পরিবহন করে। এ ছাড়াও গারো পাহাড়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টানে ছুটে আসা পর্যটকরাও এ সড়কটি দিয়ে বিভিন্ন স্পটে যান। কিন্তু কালভার্টটির ভগ্নদশার কারণে এখন আর কোন বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকার যাতায়াত করতে পারছে না। অন্যদিকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, সিএনজি, রিকশা, নছিমন, করিমনসহ ছোট ছোট যানবাহন চরম ঝুঁকি নিয়ে কালভার্টটি পার হচ্ছে। এতে যে কোন সময় মারাত্মক দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী একেএম ইসমত কিবরিয়া বলেন, কালভার্টটি শীঘ্র সংস্কার করা হবে।
×