ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

পাভলিউচেঙ্কোভা-জাঙ্কোভিচের জয়

প্রকাশিত: ০৫:৫৯, ২০ অক্টোবর ২০১৬

পাভলিউচেঙ্কোভা-জাঙ্কোভিচের জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্রেমলিন কাপের দ্বিতীয় পর্বে জায়গা করে নিয়েছেন সাবেক চ্যাম্পিয়ন এ্যানাস্তাসিয়া পাভলিউচেঙ্কোভা এবং জেলেনা জাঙ্কোভিচ। মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের সপ্তম বাছাই পাভলিউচেঙ্কোভা ৭-৬ (৭/২), ৫-৭ এবং ৭-৫ সেটে হারিয়েছেন চেকপ্রজাতন্ত্রের অখ্যাত ক্যাটেরিনা সিনিয়াকোভাকে। তবে জয় পেতে রীতিমতো ঘাম ঝরেছে তার। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের ২৩ নাম্বারে থাকা এই রাশিয়ান তারকাকে প্রথম পর্বের বাধা পেরুতে সময় লেগেছে ২ ঘণ্টা ৪৬ মিনিট। ২০ বছরের সিনিয়াকোভার বিপক্ষে পাভলিউচেঙ্কোভার এটা তৃতীয় জয়। তবে পরের রাউন্ডেই অগ্নিপরীক্ষা ২০১৪ সালের চ্যাম্পিয়নের জন্য। কেননা শেষ আটে যে তার প্রতিপক্ষ এখন জেলেনা জাঙ্কোভিচ। ক্রেমলিন ওপেনের প্রথম পর্বের ম্যাচে জেলেনা জাঙ্কোভিচ ৬-৩ এবং ৬-৩ সেটে হারিয়েছেন লাটভিয়ার জেলেনা ওস্টাপেঙ্কোকে। জয়ের জন্য তিনি লড়াই করেছেন মাত্র ৭৪ মিনিট। তবে স্কোরলাইন দেখে অবশ্য ম্যাচের বিচার করতে চাচ্ছেন না জাঙ্কোভিচ। কেননা টেনিস কোর্টে প্রতিপক্ষকে হারাতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে তাকে। এ প্রসঙ্গে নিজের অভিমত প্রকাশ করতে গিয়ে সার্বিয়ান তারকা বলেন, ‘সর্বোপরি ম্যাচটা অনেক কঠিন ছিল যদিও বা ম্যাচের ফলটা অবশ্য সেটা নির্দেশ করছে না। কারণ আমার সার্ভ করতে অনেক কষ্ট হচ্ছিল। কিন্তু ফিরতি শটগুলো খুব ভাল হয়েছে। যে কারণেই দিনটা শেষ পর্যন্ত আমার পক্ষে এসেছে।’ ২০০৮ সালে এই ক্রেমলিন কাপের শিরোপা জিতেছিলেন জাঙ্কোভিচ। দীর্ঘ ৮ বছর পর আবারও সেই টুর্নামেন্টের শুরুটা দুর্দান্ত করেছেন তিনি। এবারও তার লক্ষ্য অবশ্য ফাইনাল জেতা। প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ জিতে জাঙ্কোভিচ বলেন, ‘অবশ্যই আমি এখানে ২০০৮ সালের পুনরাবৃত্তি চাই। আমি সবসময় এমন লক্ষ্য নিয়েই কোর্টে নামি। মূলত টুর্নামেন্ট জয় করারই লক্ষ্য থাকে আমার।’ তবে পাভলিউচেঙ্কোভার বিপক্ষে এখন কেমন খেলেন তিনি সেটাই ভক্তদের দেখার অপেক্ষা। কেননা রাশিয়ান তারকাও যে দুই বছর আগে এই মঞ্চেই শিরোপা উচিয়ে ধরেছিলেন। সাবেক দুই চ্যাম্পিয়ন জেলেনা জাঙ্কোভিচ এবং এ্যানাস্তাসিয়া পাভলিউচেঙ্কোভা ছাড়াও ক্রেমলিন কাপে জয় দিয়ে যাত্রা শুরু করেছেন আরও অনেকে। তাদের মধ্যে ফ্রান্সের এ্যালিজ কোর্নেট, ক্রিস্টিনা মাদেনোভিচ, কাজাখস্তানের জুলিয়া পুতিনসেভা, রাশিয়ার একাটেরিনা মাকারোভা, জার্মানির জুলিয়া জর্জেস এবং অস্ট্রেলিয়ার দারিয়া গ্র্যাব্রিলোভার মতো খেলোয়াড়রা। কোর্নেট ৭-৬, ৬-৩ সেটে আমেরিকার শেলবি রজার্সকে, মাকারোভা ৭-৫, ৬-১ সেটে রজার্সের স্বদেশী নিকোল গিবসকে পরাজয়ের স্বাদ উপহার দিয়েছেন। তবে চেকপ্রজাতন্ত্রের লুসি সাফারোভাকে হারিয়ে চমকে দিয়েছেন দারিয়া গ্যাব্রিলোভা। এদিন তিনি ৬-২, ৬-২ সেটে হারান চেকপ্রজাতন্ত্রের সাফারোভাকে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২