ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১

বিয়ে বাড়িতে সাউন্ডবক্স বাজানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, কনেকে মারধর

প্রকাশিত: ০৯:৩০, ২২ জুন ২০২৪

বিয়ে বাড়িতে সাউন্ডবক্স বাজানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, কনেকে মারধর

বিয়েবাড়িতে সাউন্ডবক্স বাজানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ।

লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের রমনিগঞ্জ এলাকায় বিয়ে বাড়িতে সাউন্ডবক্স বাজানোকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এ ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২১ জুন) বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার রমনিগঞ্জ এলাকার ফেডারেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হামলায় আহতরা হলেন- উপজেলার বড়খাতা রমনীগঞ্জ এলাকার আব্দুর রহমান (৪৫), তার স্ত্রী সাহিনা আক্তার সাইনা (৪০), তার মেয়ে বিয়ের কনে রুমানা আক্তার লিমা (১৯), ছেলে সাকিল (২২) , সাইদের স্ত্রী হালিমা বেগম এবং অপর পক্ষে একই এলাকার আমির আলী (৫৫), রুহুল আমিন (২০), সাইফুল ইসলাম (১৪) ও নজরুল ইসলাম।

এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার দুপুরে ওই গ্রামের আব্দুর রহমানের মেয়ে রুমানা বেগমের বিয়ে উপলক্ষে এলাকাবাসীকে বিয়ের দাওয়াত খাওয়ানো হচ্ছিল। এ সময় পাশের বাড়ির আমের আলীর বাড়িতে মিলাত মাহফিল ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। এ সময় আব্দুর রহমানের ছেলে সাকিল সাউন্ড বক্স বাজিয়ে গান শুনছিল। 

এ অবস্থায় আমের আলী সাকিলকে বক্স বাজাতে নিষেধ করে। সাকিল তখন আরো জোড়ে বক্স বাজালে প্রতিবেশী আব্দুর রহমানের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে  দুপুরে দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

আমের আলী বলেন, আমাদের বাড়িতে মিলাদ মাহফিল চলছিল। আমরা তখন বক্স বাজাতে নিষেধ করায় ওরা আমাদের লোকজনকে মারধর করে। মারধরে আমাদের ছয়জন আহত হয়েছে।

আব্দুর রহমান বলেন, বাড়িতে আজকে আমার মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে বড় ছেলে সাকিল সাউন্ড বক্স বাজাচ্ছিল। এ অবস্থায় আমের আলীর লোকজন এসে আমার ছেলেকে মারধর করে এবং আমার মেয়ের বিয়েতে তৈরি করা বাড়ির প্যান্ডেল ভাঙচুর করে খাবার সব ফেলে দেয়। এ ঘটনায় কনেসহ চারজন আহত হয়ে হাতীবান্ধা মেডিকেলে ভর্তি আছে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

এসআর

×