ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

চাঁদা না পেয়ে মালিকানাধীন জমিকে খেলার মাঠ দাবি করায় মানববন্ধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও

প্রকাশিত: ১৯:৪০, ৬ ডিসেম্বর ২০২২

চাঁদা না পেয়ে মালিকানাধীন জমিকে খেলার মাঠ দাবি করায় মানববন্ধন

মানববন্ধন 

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার গড়েয়ায় ব্যক্তি মালিকানাধীন নিষ্কন্টক জমি বিক্রিয়কালে একটি দুষ্টচক্র মোটা অংকের চাঁদা না পেয়ে ওই জমিটিকে খেলার মাঠ উল্লেখ করে বিক্রিতে বাঁধা প্রদানের প্রতিবাদে ভূক্তভোগী পরিবার মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন। 

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁও শহরের চৌরাস্তায় তারা ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধন করে। পরে তারা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ে গিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেন। 

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারি জমির মালিকপক্ষের ওয়ারিশ জুলফিকার আলী ভট্টু, নুরুল হুদা, মিজানুর রহমান, সজল চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম জুয়েলসহ অন্যান্যরা বলেন, গড়েয়া ইউনিয়নের চোঙ্গাখাতা মৌজায় ৭৭নম্বর জেলের ৬৪৫ ও ৬৪৬ নম্বর দাগে এক একর ৮৪শতক ডাঙ্গা ও দলা জমিটি উত্তরাধিকার সূত্রে ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তি। সেখানে পারিবারিকভাবে রোপনকৃত গাছপালা বড় হচ্ছে। সম্প্রতি পরিবারের এক সদস্য জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ায় তার চিকিৎসার জন্য টাকার প্রয়োজন হলে জমিটি বিক্রি করা হয়। কিন্তু এলাকার চিহ্নিত দুষ্ঠু ব্যক্তি/গোষ্ঠী তাদের কাছে ৪০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে এবং চাঁদার টাকা না পেয়ে জমিটিকে তারা খেলার মাঠ উল্লেখ করে অপপ্রচারে লিপ্ত হয়েছে। 

তারা আরও বলেন, সম্প্রতি জমির বিক্রেতাসহ ক্রয়কৃত জমির মালিক জমি হস্তান্তর করতে গেলে তাদেরকে বাঁধা প্রদান এবং তাদের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে গুরুতরভাবে আহত করা হয়। সেইসঙ্গে কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। কিন্তু কাগজে কলমে কোথাও সেই জমি খেলার মাঠ উল্লেখ নেই। এ নিয়ে অনেকবার শালিশ-বৈঠক হয়েছে। কিন্তু তাদের দাবিকৃত চাঁদা না দেওয়ায় তারা বারবার সমস্যা সৃষ্টি করছে। এর বিচার ও সষ্ঠু সমাধানের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা। 

এ বিষয়ে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মো. সামসুজ্জামান জানান, এই জমির বিষয়টি নিয়ে দুই পক্ষকে ডাকা হয়েছিল কিন্তু এর কোনো সমাধান হয়নি। তবে এই জমিটি আমরা সরকারি জেএস ও আরএস রকর্ডের কোথাও খেলার মাঠ উল্লেখ পাইনি।  

 

এসএইচ

monarchmart
monarchmart