ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ফেনীতে আর্জেন্টিনার জয়ে গভীর রাতে ভক্তদের বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস

প্রকাশিত: ১২:৪৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২; আপডেট: ১২:৫০, ২৭ নভেম্বর ২০২২

ফেনীতে আর্জেন্টিনার জয়ে গভীর রাতে ভক্তদের বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস

২৫ ফুটের বিশাল এলইডি স্ক্রিনে ফুটবল খেলা উপভোগ করছে এলাকাবাসী

বিশ্বকাপ ফুটবলে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। এ জয়ের মধ্য দিয়ে দলটির বিশ্বকাপের পরবর্তী পর্বে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়লো।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) দিনগত রাত তিনটার দিকে ফেনীর পুরাতন জেলা কারাগারের সামনে স্থাপিত ২৫ ফুটের বিশাল এলইডি স্ক্রিনে খেলা দেখে হর্ষধ্বনি, পতাকাসহ শোডাউন ও ভুভুজেলা বাজিয়ে আর্জেন্টিনার সমর্থকরা উদযাপন করেন এ বিজয়।

আর্জেন্টিনা ও মেক্সিকোর মধ্যকার খেলা শুরু হয় শনিবার দিনগত রাত একটায়। শেষ হয় রাত তিনটার কয়েক মিনিট আগে। ম্যাচের প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। তবে তবে দ্বিতীয়ার্ধের ৬৩ মিনিটে আর্জেন্টিনার প্রাণভ্রমরা লিওনেল মেসির গোলে অপেক্ষার অবসান ঘটে। এরপর ৮৬ মিনিটে ফার্নান্দেজের গোল দলের জয় সুনিশ্চিত করে। আর এরই মাধ্যমে বিশ্বকাপে বেঁচে থাকে মেসি ভক্তদের আশা।

খেলা দেখতে কেউ পরে এসেছেন মেসির মুখোশ। কারও হাতে আর্জেন্টিনার নীল-সাদা জাতীয় পতাকা। কেউ এসেছিলেন সপরিবার, কেউ বন্ধুদের নিয়ে। যুবক, তরুণ, মধ্যবয়স্ক-সব বয়সের মানুষই এসেছিলেন খেলা দেখতে। আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে বাবার সঙ্গে এসেছিল শিশুরাও।

কয়েক হাজার ভক্ত হাজির হয়েছিলেন ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজির উদ্যোগে স্থাপিত ফেনী পুরাতন কারাগারের সামনে ২৫ ফিটের বিশাল এলইডি স্ক্রিনে আর্জেন্টিনার খেলা দেখতে। রাত ১২টার মধ্যেই লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে পুরো এলাকা।

মেসিভক্ত মোজাম্মল হক লিংকন বলেন, মেসির খেলা দেখতে এসেছিলাম। ফুটবল ঈশ্বরের দেশের লিওনেল মেসি। তাকে বড় পর্দায় দেখতে এসেছিলাম।

আর্জেন্টিনার সমর্থক আরিফুর রহমান বলেন, সাপোর্টার হিসেবে আমি আনন্দিত। আশা করি, আর্জেন্টিনা এবার বিশ্বকাপ নেবে। মেসির মতো বিশ্বসেরা খেলোয়াড়ের এটা শেষ বিশ্বকাপ। তাই আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপটা নেওয়া দরকার।

আর্জেন্টিনাভক্ত ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী বলেন, খেলায় হার-জিত থাকবে, এতে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। তিনি আশা করেন, সামনের খেলাগুলোতে আর্জেন্টিনা অনেক ভালো করবে। সবাই মিলে আমরা বড় পর্দায় একসঙ্গে খেলা উপভোগ করেছি।

টিএস

monarchmart
monarchmart