ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

ঠাকুরগাঁওয়ে বাসের ধাক্কায় বাবা-মাসহ মেয়ে নিহত

প্রকাশিত: ১২:৩৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২

ঠাকুরগাঁওয়ে বাসের ধাক্কায় বাবা-মাসহ মেয়ে নিহত

তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়

ঠাকুরগাঁওয়ে হানিফ এন্টারপ্রাইজের একটি বাস মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিলে বাবা-মাসহ মেয়ে নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। 

রবিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁও-বালিয়াডাঙ্গী সড়কের পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- মাসুদুর রহমান (৫৫) ও নিহত মাসুদুর রহমানের স্ত্রী রহিমা বেগম (৪৫) ও মেয়ে মেহের নেগার সিমি (১৪)। ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের মুথরাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এলাকাবাসী জানায়, মাদ্রাসার বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হওয়ায় মেয়ে সিমিকে নিয়ে মা-বাবা রোড মথুরাপুর থেকে মোটরসাইকেলযোগে লক্ষীপুর মাদ্রাসার উদ্দেশে রাওনা দেয়। অপরদিকে বালিয়াডাঙ্গী থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতগামী হানিফ গাড়ি বিলডাঙ্গী এলাকায় মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এসময় ঘটনাস্থলে রহিমা বেগম (৪৫) নিহত হয়। পরে এলাকাবাসী বাকি ২ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পরে দুজনকে মৃত ঘোষণা করে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, সকালে মেয়েকে মাদ্রাসায় পৌঁছে দিতে মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন তারা। ঠাকুরগাঁও-বালিয়াডাঙ্গী সড়কের পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় পৌঁছালে বালিয়াডাঙ্গী থেকে ছেড়ে আসা হানিফ এন্টারপ্রাইজের একটি বাস তাদের ধাক্কা দেয়।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলেই হাফিজা বেগম মারা যান। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় মাসুদ রানা ও সিমিকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেওয়ার পর তাদের মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

 

এমএইচ

×