ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু চালু হওয়ায় বাড়ছে যানজট

মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়ক চারলেন করার দাবি

মো. খলিলুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত: ০০:৫২, ২৪ নভেম্বর ২০২২

মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়ক চারলেন করার দাবি

তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু চালু হওয়ার পর মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কে নিত্য যানজট

বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম নাসিম ওসমান তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু চালু হওয়ার পর বন্দর উপজেলার মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটির গুরুত্ব বহুগুণ বেড়ে গেছে। কারণ, পদ্মা সেতু পার হয়ে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া থেকে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু পার হয়ে যানবাহনগুলো কম সময়ে এ সড়কটি ব্যবহার করে সিলেট বা চট্টগ্রাম বিভাগে যেতে পারবে। কিন্তু ১৪ কিলোমিটার দীর্ঘ মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি এখনো দু’লেনের সড়কেই রয়েছে।

তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু চালু হওয়ার পর স্থানীয় বাসিন্দা, জনপ্রতিনিধি, যানবাহন চালক ও যানবহানের মালিকসহ বিভিন্ন পেশার লোকজন মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি জরুরি ভিত্তিতে কমপক্ষে চার লেনের সড়কে উন্নীতকরণের জন্য দাবি জানিয়ে আসছেন। স্থানীয়রা জানায়, তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুটি চালু হওয়ার পর থেকেই এ সড়কে শুরু হয়েছে যানজট। এতে যাত্রীরা দুর্ভোগ পোহাতে বাধ্য হচ্ছেন।
জানা যায়, বন্দরের এক সময়ের রেললাইনটিই মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়ক হিসেবে নির্মাণ করা হয়। এ সড়কের উভয় পাশই বন্দর উপজেলার এলাকাধীন। এ সড়কটি দীর্ঘদিন অবহেলিত ছিল। এখন বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম নাসিম ওসমান তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুটি চালু হওয়ার পর থেকে মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটির গুরুত্ব বেড়ে গেছে বহুগুণ। সড়কটির উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ করতে জোর দাবি উঠেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, সেতুটি খুলে দেওয়ায় এখন এ সড়কের বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এখনো পুরোপুরি যানবাহন চলাচল শুরু হয়নি। যদি পুরোপুরি তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু পার হয়ে যানবাহন চলাচল শুরু হয় তবে এ দু’লেনের সড়কে তীব্র যানজেটর সৃষ্টি হবে। এ সড়কটিতে যানবাহন চলাচলে একেবারেই স্থবির অবস্থা নেমে আসার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

মদনপুরের ধামগড় এলাকার বাসিন্দা মহিউদ্দিন বলেন, তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুটির পুরোপুরি সুফল পেতে হলে জরুরি ভিত্তিতে মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি কমপক্ষে চার লেনের সড়কে উন্নীত করতে হবে। বাগবাড়ী এলাকার বাসিন্দা রায়হান মিয়া বলেন, আমরা এখন অপেক্ষায় আছি, কবে এ সড়কটি চার লেনের সড়ক হবে। এতে আমাদের সড়ক যোগাযোগে অনেক উন্নতি হবে।

অটোরিক্সা চালক আবুল হোসেন বলেন, তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু চালু হওয়ার পর এ সড়কটির বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে এখন যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। তাই এ সড়কটি এখন চার লেনের সড়কে উন্নীত করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।
বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, এ সড়কটি সম্ভবত ছয় লেনের সড়ক হবে। তৃতীয় শীতলক্ষ্যা ব্রিজটি চালু হওয়ায় পর এখন প্রতিনিয়ত ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। আমরা অবশ্যই দাবি জানাই, যত দ্রুত সম্ভব এ সড়কটি ছয় লেনের সড়কে উন্নীতকরণের কাজ সম্পন্ন করা হোক। এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নারায়ণগঞ্জ অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহানা ফেরদৌস বলেন, মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি নিয়ে স্বল্প মেয়াদি ও দীর্ঘ মেয়াদি দুটি পরিকল্পনা রয়েছে।

যেহেতু তৃতীয় শীতলক্ষ্যা ব্রিজটি চালু হয়ে গেছে। তাই জরুরি ভিত্তিতে ধাক্কা সামলাতে এবং যানজট কমাতে মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কটি ১৮ ফুট চওড়া থেকে ২৫ ফুট চওড়া করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, মদনপুর-মদনগঞ্জ সড়কের ব্রিজ ও কালভার্ডগুলো অল্প টাকায় আগামী জুনের মধ্যেই সম্প্রাসরণ কাজ শেষ হবে। তিনি আরও বলেন, সরকার ঢাকা আউটার লিঙ্করোড নামে একটি এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের পরিকল্পনা করছে।

এটি একটি বড় প্রজেক্ট। এটি হেমায়েতপুর থেকে মুন্সীগঞ্জের কালাকান্দি হয়ে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু পার দিয়ে মদনপুর হয়ে চট্টগ্রাম বা সিলেটে যাওয়া যাবে। ঢাকার আউটার সার্কুলার রোডের একটি অংশ হবে। এটি একটি এক্সপ্রেসওয়ে হবে। যেহেতু এটি একটি বড় প্রজেক্ট, অর্থের পরিমাণ বেশি হবে। তাই ডোনার খোঁজা হচ্ছে।

monarchmart
monarchmart