ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

খোশ আমদেদ মাহে রমজান

অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম রফিক

প্রকাশিত: ২৩:৩৯, ৩০ মার্চ ২০২৩

খোশ আমদেদ মাহে রমজান

আজ মাহে রমজানুল মোবারকের অষ্টম দিবস

আজ মাহে রমজানুল মোবারকের অষ্টম দিবস। রহমত, বরকত ও মাগফিরাতের এ মৌসুমে আল্লাহপাকের রহমত কামনায় মুমিন মুসলমানের ঘরে ঘরে সিয়াম সাধনা চলছে। সিয়াম বা উপবাসব্রত পালনে শুধু আখিরাতে মহান আল্লাহপাকের পক্ষ থেকে তার রিজামন্দি ও পুরস্কার পাওয়া যায় তাই নয়, এই দুনিয়াবি জীবনে সুস্থ-সবল ও আদর্শবান ব্যক্তি হিসেবেও নিজেকে গড়তে সিয়াম সাধনা বহুবিধ উপকার নিয়ে আসে। যেমন- ১) রোজার দ্বারা স্বভাবতই প্রবৃত্তির ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠিত হয়।

এর দ্বারা মানুষের পাশবিক শক্তি অবদমিত হয়, চারিত্রিক পরিশুদ্ধি আসে। কেননা ক্ষুধা ও পিপাসার কারণে মানুষের জৈবিক ও পাশবিক বৃত্তি নিস্তেজ হয়ে পড়ে, মনুষ্যত্ব জাগ্রত হয় এবং অন্তর বিগলিত হয় মহান রাব্বুল আলামিনের প্রতি কৃতজ্ঞতায়।
২) রোজার বরকতে মানুষের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও মমত্ববোধ এবং পরস্পরের প্রতি ভালোবাসা সৃষ্টি হয়। যে ব্যক্তি কোনোদিনও ক্ষুধার্ত ও পিপাসার্ত থাকেননি, তিনি কখনো ক্ষুধা পিপাসার কষ্ট বুঝতে পারেন না। ৩) রোজার দ্বারা মানুষের স্বভাবে নম্রতা ও বিনয় সৃষ্টি হয় এবং মানব মনে আল্লাহর আজমত ও মহত্বের ধারণা জাগ্রত হয়, - বলেছেন বিখ্যাত দার্শনিক ইমাম গাজ্জালী (রহ.)। ৪) রোজার দ্বারা শারীরিক সুস্থতা হাসিল হয়। কেননা স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীদের মতে, প্রতিটি মানুষের জন্যই বছরে কয়েক দিন উপবাস থাকা আবশ্যক।

তাদের মতে, স্বল্প খাদ্যগ্রহণ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। সুফী সাধকগণের মতে, হৃদয়ের স্বচ্ছতা হাসিলে স্বল্প খাদ্য গ্রহণের বিরাট ভূমিকা রয়েছে। -(আরকানে আরবা)। আমাদের নবীজী (স.) বলেছেন, তোমাদের শরীরটা শস্যখেতের মতো। অতিরিক্ত পানি দেওয়ার ফলে শস্যখেত যেমন নষ্ট হয়ে যায়, তদ্রুপ অতিরিক্ত ও অপরিমিত পানাহারে শারীরিক অবনতি ঘটে। 
৫) রোজার দ্বারা অন্তর্দৃষ্টি উন্মোচিত হয়। এ মাসের অন্যান্য আনুষঙ্গিক ইবাদত বন্দেগীর ফলে নিজের অন্তর নূরানিয়াতে উদ্ভাসিত হয়। রোজার দ্বারা মানুষের মধ্যে এক প্রকার রূহানী শক্তি সৃষ্টি হয়, যা রোজাদার দুনিয়া ও আখিরাতের যে কোনো কঠিন কাজ আঞ্জামদানে সৎ সাহসী করে গড়ে তোলে। ৬) রমজানে সমাজে ঘটে ব্যাপক আর্থসামাজিক পরিবর্তন ও উন্নয়ন। ধনীরা জাকাত-ফিতরা-সাদকা অকাতরে দান করেন।

মসজিদ-মাদ্রাসা আবাদ করার ক্ষেত্রে সম্মিলিত প্রয়াস চালান। এর ফলে সমাজের একটি বিরাট অংশ গরিব নর-নারীর ভাগ্য খুলে যায়। তারা অর্থনৈতিকভাবে কিছুটা স্বাবলম্বী হওয়ার পরিবেশ খুঁজে পায়। আর্থসামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে শুধু মুসলমানরা নয়, প্রতিবেশী অমুসলিমরাও ব্যবসা-বাণিজ্য, বিভিন্ন বিকিকিনির মাধ্যমে অশেষ উপকৃত হয়। 
৭) রোজা পালন আল্লাহর প্রতি গভীর প্রেমের অন্যতম নিদর্শন। কেননা কারও প্রতি ভালোবাসা জন্মালে তাকে লাভ করার জন্য প্রয়োজনে প্রেমিক পানাহার বর্জন করে এবং দুনিয়ার সবকিছু ভুলে যায়। ঠিক তেমনিভাবে রোজাদার ব্যক্তিও আল্লাহ প্রেমে দেওয়ানা হয়ে সবকিছু ছেড়ে দেয়, এমনকি পানাহার পর্যন্ত ভুলে যায়। তাই রোজা হলো আল্লাহ প্রেমের অন্যতম নিদর্শন। -(ফাতওয়া ও মাসাইল, ইফা)।
আল্লাহপাক এ মোবারক মাসে আমাদের সিয়াম সাধনার মাধ্যমে আত্ম গঠনের কৃত সংকল্প কবুল করুন। আমিন।

×