ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

পাঁচ বছর ধরে অনুপস্থিত শিক্ষিকা

প্রকাশিত: ১৫:২০, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩

পাঁচ বছর ধরে অনুপস্থিত শিক্ষিকা

উপজেলা

জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চর আমখাওয়া ইউনিয়নের মৌলভীর চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকা সানজিদা হক গত পাঁচ বছর ধরে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত। 

উপজেলা শিক্ষা অফিস বারবার কারণ দর্শানো ও কৈফিয়ত তলবের পর জবাব না পাওয়াই গত ৩ ডিসেম্বর জেলা শিক্ষা অফিস তাকে চাকরি হতে বরখাস্ত করেছে। বরখাস্তের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার ফাতেমা সুলতানা ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সানজিদা ২০০৬ সালের ২ জুলাই বিদ্যালয়ে যোগদান করেন । ২০১৮ সালের ১ জুলাই থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত। অনুপস্থিতির কারণ জানতে চেয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিস ২০২০ সালের ১৩ জুলাই তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিলে প্রতি উত্তরে তিনি কোন জবাব দেননি । আবারো ২০২২ সালের ২০ জানুয়ারি কৈফিয়ত তলব এবং ১৭ নভেম্বর ২য় দফায় কারণ দর্শালে তারও কোন জবাব দেননি শিক্ষিকা সানজিদা হক ।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খান জানান, আমি ২০১৮ সালের অক্টোবরে মৌলভীর চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করেছি। যোগদানের পর শিক্ষিকা সানজিদাকে একদিনের জন্যও বিদ্যালয়ে উপস্থিত পায়নি । শুনেছি আমার পূর্বের প্রধান শিক্ষক মো. জাহিদুল ইসলামে কাছে শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে ৩ মাসের ছুটির আবেদন জমা দিয়ে চলে গেছেন। এরপর আজ অবধি তিনি বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত ।

সরকারি কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী, অসদাচরণ ও পলায়নের অপরাধে চলতি মাসের ৩ ডিসেম্বর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এম এম মিজানুর রহমান শিক্ষিকা সানজিদা হককে দোষী সাব্যস্ত করে চাকরি হতে বরখাস্তের আদেশ প্রদান করেন ।

 এসআর

×