ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব ১৮ কোটি ছাড়িয়েছে

প্রকাশিত: ১৯:০৬, ১৫ ডিসেম্বর ২০২২

মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব ১৮ কোটি ছাড়িয়েছে

মোবাইল ব্যাংকিং

সর্বত্রই দ্রুত ও সহজে উপায়ে টাকা পাঠানোর সুযোগ তৈরি হয়েছে মোবাইল ব্যাংকিং (এমএফএস) সেবার মাধ্যমে। এরই মধ্যে সারাদেশে এ সেবাটির জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এমএফএস প্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে লেনদেন। বাড়ছে গ্রাহক ও এজেন্ট সংখ্যাও।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সবশেষ হিসাব মতে, চলতি বছরের অক্টোবর মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন হয়েছে ৯৩ হাজার ১৩ কোটি টাকা। যা তার আগের মাস সেপ্টেম্বরে লেনদেন হয়েছিল ৮৭ হাজার ৬৮৫ কোটি টাকা।

আলোচিত অক্টোবর মাসে প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩ হাজার ১০০ কোটি টাকা। আগের মাস সেপ্টেম্বরে দৈনিক গড় লেনদেন ছিল ২ হাজার ৯৯২ কোটি টাকা।

এদিকে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রতিদিনের লেনদেন ছাড়াও আরও নানা সুবিধা নিয়ে এসেছে। এরমধ্যে রয়েছে- বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানির বিল পরিশোধ করাসহ কেনাকাটার সুবিধা। পছন্দের শীর্ষে রয়েছে সেবামূল্য পরিশোধ, বেতন-ভাতা প্রদান, প্রবাসী আয় পাঠানোসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে। 

মূলত, দ্রুত সময়ে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে টাকা পাঠাতে প্রতিদিনই মোবাইল ব্যাংকিংয়ের জন্য হিসাব খুলছেন বিপুলসংখ্যক গ্রাহক। এতে প্রতিমাসেই এ সেবা খাতে গ্রাহকসংখ্যা বাড়ছে।

সবশেষ তথ্যমতে, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে চলতি বছরের অক্টোবর মাস শেষে নিবন্ধিত হিসাব দাঁড়িয়েছে ১৮ কোটি ৭৫ লাখ ২৩ হাজার ৫৯৩টি। এর আগের মাস সেপ্টেম্বরে এ সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ৫২ লাখ ৫৭ হাজার ৯৩২টি। তথ্যমতে, এক মাসের ব্যবধানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে হিসাব বেড়েছে ২২ লাখ ৬৫ হাজার ৬৬১টি।

নিবন্ধন করা এসব হিসাবের মধ্যে পুরুষ গ্রাহক ১০ কোটি ৮৬ লাখ ২১ হাজার ৮১৪ জন এবং নারী গ্রাহক বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ কোটি ৮৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩১৬ জনে। এছাড়া মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক কোটি ৫২ লাখ ১৮ হাজার ৩টি।

আলোচিত অক্টোবর মাসে মোবাইলে আর্থিক সেবায় (এমএফএস) এক মাসে ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি হিসাবে ২৫ হাজার ৮২৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়। আর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বেতন-ভাতা বাবদ বিতরণ হয় দুই হাজার ৬৫৯ কোটি টাকা, পরিষেবার দুই হাজার ২৮৩ কোটি টাকার বিল পরিশোধ হয় এবং কেনাকাটায় লেনদেন হয় তিন হাজার ৩৫৯ কোটি টাকা।

 

এমএস

সম্পর্কিত বিষয়:

×