শনিবার ৫ আষাঢ় ১৪২৮, ১৯ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সেই পথশিশু মারুফ এখন সমাজসেবার আশ্রয় কেন্দ্রে

মামুন শেখ, জবি ॥ পুরান ঢাকার বাহাদুরশাহ পার্ক ও সদরঘাট এলাকায় পথশিশুদের সংখ্যা নেহাত কম নয়। এসব পথশিশুরা ফেলে দেয়া খাবারে তাদের ক্ষুধা মেটায় এবং রাত্রি যাপন করে ফুটপাত কিংবা বিভিন্ন পার্কে। পথশিশুদের এই অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন অপরাধীচক্র তাদের প্রতিনিয়ত জোরপূর্বক ভিক্ষাবৃত্তি, মাদক বহন ও সেবনসহ নানা অবৈধ কাজে বাধ্য করছে।

সম্প্রতি পুরান ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত এলাকা থেকে ফেসবুকে লাইভ করেন সময়ের কণ্ঠস্বর নামের একটি অনলাইন সংবাদ মাধ্যমের প্রধান প্রতিবেদক পলাশ মল্লিক।

তার কথা বলা প্রায় শেষেরদিকে ক্যামেরার ফ্রেমে ঢুকে পড়ে মারুফ নামে এক পথশিশু। শিশুটি বলে ওঠে, ‘এই যে লকডাউন দিছে, মানুষ খাবে কী? সামনে ঈদ। এই যে মাননীয় মন্ত্রী একটা লকডাউন দিছে, এটা ভুয়া। থ্যাঙ্কু।’ মুহূর্তেই সেটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে সেই পথশিশুকে খোঁজে না পাওয়া, মারধর করাসহ বিভিন্ন গুঞ্জন শোনা যায়। পরবর্তীতে জানা যায়, ওই শিশুর সঙ্গে তার এলাকার পথশিশুদের মারামারিতেই এই জখমের ঘটনা ঘটে। লাইভের পর এক ব্যক্তি শিশুটির সঙ্গে আদালত এলাকায় একটি সেল্ফি তোলেন। সেই সেল্ফি থেকে শিশুটির ছবিটি কেটে নিয়ে পরে ‘মনগড়া’ অভিযোগ তুলে ভাইরাল করা হয় ফেসবুকে। ঘটনাটি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা শুরু হলে আদালতের আদেশের ভিত্তিতে সমাজসেবা অধিদফতরের মিরপুর আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তবে মারুফকে পরিস্থিতি অনুযায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠানো হলেও বাহাদুরশাহ পার্কের বাকি পথশিশুদের দুর্দশার চিত্র পাল্টায়নি।

সোমবার সরেজমিনে দেখা যায়, ১০-১৫ জন পথশিশু বাহাদুরশাহ পার্কের বিভিন্ন স্থানে বসেই ড্যান্ডি (মাদকদ্রব্য) নিচ্ছেন। কেউ বা আবার ঘুমিয়ে আছেন ছেঁড়া জামা কাপড় গায়ে। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, বাহাদুরশাহ পার্ক, সদরঘাট এলাকায় বর্তমানে অর্ধশতাধিক শিশু-কিশোর আছে।

তাদের মধ্যে কমবয়সী মেয়েও কয়েকজন। অধিকাংশ শিশু-কিশোরের বাবা-মা নেই। যাদের আছে, তারা নিজেরাই চলার সামর্থ্য রাখে না বা সন্তানের খোঁজ নেয় না। ভাসমান এই পথশিশুরা মানুষের কাছে চেয়ে খায়। অনেকে খাবার দেয়, আবার কেউ মারধর করে। লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে তাদের খাবারের সঙ্কট বেড়েছে। পথশিশুদের এ অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে একটি সিন্ডিকেট তাদের ভিক্ষাবৃত্তি, চুরি, ছিনতাইয়ে বাধ্য করে।

শীর্ষ সংবাদ:
খুলনা বিভাগে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৬২৫         দেশব্যাপী সিনোফার্মের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু         ‘আবার ব্যাপকভাবে জনগণকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে’         রাজধানীর কদমতলীতে একই পরিবারের ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার         বরিশাল বিভাগে ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌর নির্বাচন ॥ ২১১ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ         ইসরায়েলের সঙ্গে টিকা বিনিময় চুক্তি বাতিল করল ফিলিস্তিন         খুলনা করোনা হাসপাতালে আরো ১১ জনের মৃত্যু         রাজশাহীতে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি, আরও ১০ জনের মৃত্যু         দেশজুড়ে ভারি বর্ষণের আভাস         রাজধানীর ধানমন্ডিতে গাড়িচাপায় পুলিশ সদস্য নিহত         রাবি প্রশাসন ও ভিসির বাস ভবনে তালা         রাজধানীর বাড্ডায় সড়ক দুর্ঘটনায় মা নিহত, মেয়ে আহত         ভারতের ‘উড়ন্ত শিখ’ খ্যাত মিলখা সিং আর নেই         পেরুতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ১৩০০ ফুট গভীরে বাস পড়ে ২৭ জন নিহত         ফিলিস্তিনকে প্রায় মেয়াদোত্তীর্ণ করোনা ভাইরাসের টিকা দিচ্ছে ইসরায়েল         জাতিসংঘ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কাছে অস্ত্র বিক্রি নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে         রাইসি ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এগিয়ে রয়েছেন         টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের প্রথম দিন বৃষ্টিতে ভেসে গেছে         এফএও কাউন্সিলের সদস্য হল বাংলাদেশ