বৃহস্পতিবার ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রৌমারীতে সেতু আছে সড়ক নেই ॥ চরম দুর্ভোগ

  • ঠিকাদারের গাফিলতি

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ রৌমারী উপজেলায় ইজলামরী গ্রামের জিঞ্জিরাম নদীর ওপর ও বড়াইবাড়ি গ্রামের ধরনী নদীর ওপর সেতু নির্মাণ করা হলেও সংযোগ সড়ক না থাকায় জনসাধারণকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কর্মহীন হয়ে পড়েছে শতাধিক অটোরিক্সা, অটোভ্যান ও অটোবাইক চালক। মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। দুর্ঘটানার শিকার হয়ে পঙ্গু জীবনযাপন করছেন অনেকেই। এ বিষয়ে বিভিন্ন দফতরে জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ।

আরডিআইআইপি-২ আওতায় ৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে ইজলামারী ৮৫ মিটার সেতু নির্মাণ কাজ শেষ হলেও দুই মাথায় সংযোগ সড়কে মাটি ভরাট না করায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। অপরদিকে বিলুপ্ত সিট মহল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব্যয়ে বড়াইবাড়ী ধরনী নদী ওপর ৬৬ মিটার সেতু নির্মাণ কাজ শেষ হলেও একই অবস্থায় রয়েছে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার রৌমারী সদর ইইনিয়নের ইজলামারী, পূর্ব ইজলামারী, নামা বারবান্দা, বারবন্দা, কলাবাড়ি, বড়াইবাড়ি, চুলিয়ারচর, বাওয়ারগ্রাম, ঝাউবাড়িসহ অর্ধশতাধিক গ্রামের মানুষ এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করে থাকেন। এখানে ২টি বিজিবি ক্যাম্প, ৫টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৩টি হাফেজিয়া মাদ্রাসাসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। রৌমারী উপজেলা সদর হতে রাস্তাটি ইজলামারী হয়ে বড়াইবাড়ি গ্রামের রাস্তায় মিলিত হয়। এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকেন। অটোবাইক চালক জাইদুল জানান, ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে সেতুর দুই পাশে মাটি ফেলানো হয়নি। ফলে আমরা গাড়ি নিয়ে বিপাকে পড়েছি।

সাবেক সংসদ সদস্য রুহুল আমিন বলেন, ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে ইজলামারী সেতুর দুই পাশে মাটি ভরাট না করেই তারা চলে যায়। যার কারণে আমার এলাকার প্রায় ৫০টি গ্রামের মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আমি নিজেই বিভিন্ন দফতরে বিষয়টি জানিয়েছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

রৌমারী উপজেলা প্রকৌশলী মেজবাহউল হক বলেন, সেতুর কাজ কয়েকমাস আগে শেষ হয়েছে। মাটি না পাওয়ার কারণে দুই পাশে ভরাট করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে মাটি পাওয়া গেল দ্রুত মেরামত করা হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন         শাবিপ্রবি সংকট : শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         জামিন পেলেন শাবিপ্রবির সাবেক ৫ শিক্ষার্থী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১৭, শনাক্ত ১৫৫২৭         ‘শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা’