সোমবার ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ০৬ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

লৌহজংয়ে ১০ পরিবারের ভিটেমাটি পদ্মায় বিলীন

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ ৩ দিনের ব্যবধানে লৌহজং উপজেলার খড়িয়া গ্রামের ১০ পরিবারের ভিটেমাটি পদ্মাগর্ভে বিলীন হয়েছে। ভাঙ্গনের ঝুঁকিতে রয়েছে আরও অন্তত ২০ পরিবার ও খড়িয়া মসজিদ। ক্রমশ ভাঙ্গন তীরবর্তী এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে। গত শুক্রবার ও শনিবার ভাঙ্গন এলাকাঘুরে লোকজনকে বাড়িঘর দ্রুত ভেঙ্গে সরিয়ে নিতে হিমশিম খেতে দেখা গেছে। নদী ভাঙ্গনের শিকার কুমারভোগ ইউপি সদস্য জাকির হোসেন জানান, গত দুই দিনে অন্তত ৬০ হাত জায়গা নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে। তিনি আবেগাপ্লুত কণ্ঠে আরও বলেন, নদী ভাঙ্গনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ৬ ঘর ভেঙ্গে নিতে আমাদের অনেক কষ্ট হচ্ছে। জাকির হোসেনের প্রতিবেশী জিন্নত আলী, সুজন শেখ ও রিমা আক্তারও একই রকমের দুর্ভোগের কথা বলেন। ৯০-এর দশকে টানা ১০ বছর পদ্মার ভাঙ্গনে তেউটিয়া ও ধাইদা ইউনিয়ন দুটির অধিকাংশ এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়। এরপর দুই দশক ভাঙ্গন বন্ধ থাকে। ৫-৬ বছর আগে খড়িয়া থেকে আধা কিলোমিটার দূরত্বে বালু ফেলে শিমুলিয়া ঘাট তৈরি করা হয়। ফলে পদ্মার এই শাখা নদীটির বাক পরিবর্তন হওয়ায় স্রোত এসে খড়িয়া গ্রামে সরাসরি আঘাত করে। তাই প্রতিবছর বর্ষাকালে নদীতে লৌহজংয়ের কোথাও না ভাঙলেও খড়িয়া ভেঙ্গেই চলেছে। ভিটেমাটি নদী ভাঙ্গনের মুখে থাকা মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা ত্রাণ কিংবা আর্থিক সহযোগিতা চাই না। সরকারের কাছে একটাই দাবি- নদী শাসন করে আমাদের ভিটেমাটি রক্ষা করা হোক। একই গ্রামের বাসিন্দা ও মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম খান বলেন, খড়িয়া গ্রাম থেকে এক কিলোমিটার দূরত্বে পদ্মা সেতুর নদী শাসনের কাজ চলছে। সেতুর হাজার কোটি টাকা ব্যয়ের সঙ্গে সামান্য কিছু খরচ করে নদী শাসনের কাজ করলে এ এলাকা ভাঙ্গন থেকে রক্ষা পেত। বেঁচে যেত আমাদের বাপ-দাদার ভিটেবাড়িসহ হাজারও এলাকাবাসী। ইউএনও মোহাম্মদ কাবিরুল ইসলাম খান জানান, খড়িয়ার ভাঙ্গন সম্পর্কে আমরা অবগত আছি। এলাকাটি ইতোমধ্যেই পদ্মা সেতুর নদী শাসনের আওতায় রয়েছে। আগামী অর্থবছরে ভাঙ্গনরোধে এর কাজ শুরু হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ৪৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২০১         করোনা ভাইরাসের সংকটেও বিএনপি চিরাচরিত নালিশের রাজনীতি আঁকড়ে ধরেছে         প্রবাসীদের ভিসার মেয়াদ বাড়িয়েছে সৌদি সরকার ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         ‘করোনাসংকট মোকাবেলায় তরুণদের ভূমিকা’         টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি দুই রোহিঙ্গা নিহত         রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ছিনতাইকারী নিহত         বাংলাদেশিসহ ১৮০ অভিবাসনপ্রত্যাশীর জন্য দ্বার খুলল ইতালি         সমুদ্রে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত         করোনায় ৪০ কোটি মানুষ চাকরি হারিয়েছে ॥ আইএলও         এবার চীনে প্লেগ ॥ মহামারির শঙ্কায় সতর্কতা জারি         প্রতিরক্ষা সচিব হলেন মোস্তফা কামাল         করোনায় শিক্ষার্থী শূন্য সবুজ মতিহারে নীরবেই ৬৮ তে পা রাখলো রাবি         করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলিভিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা আক্রান্তে রাশিয়াকে ছাড়িয়ে বিশ্বে তৃতীয় অবস্থানে ভারত         প্রথমবারের মতো একাই নিষেধাজ্ঞা দিতে চলেছে যুক্তরাজ্য         হজে এবার কাবা স্পর্শ করা নিষিদ্ধ         জাপানে বন্যা ও ভূমিধস, অন্তত ২০ জনের মৃত্যু         ইরানের উপকূলজুড়ে রয়েছে বহু ভূগর্ভস্থ ক্ষেপণাস্ত্র ॥ নৌ - প্রধান         পারমাণবিক কেন্দ্রে দুর্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির কথা জানাল ইরান         অসম-মেঘালয়ে ভারি বৃষ্টি ও ঢলের তীব্রতা বৃদ্ধি, বন্যার অবনতি হতে পারে        
//--BID Records