মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দিন শেষে হাতুরা-অশ্বিন যা বললেন

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথম দিনটা একেবারেই ভাল যায়নি বাংলাদেশের জন্য। ফতুল্লা টেস্টের প্রথম দিন বৃষ্টির কারণে ৩৪ ওভারেরই খেলা হয়নি। ৫৬ ওভার বোলিং করে কোন সাফল্য পায়নি স্বাগতিকরা। এর মধ্যেই ওয়ানডে মেজাজে ব্যাট চালিয়ে বিনা উইকেটে ২৩৯ রান নিয়ে দিনশেষ করেছে সফরকারী ভারত। এ জন্য অনেকেই দুষছেন এক পেসার নিয়ে খেলার সিদ্ধান্তকে। সে কারণেই ব্যাকফুটে চলে গেছে বাংলাদেশ। কিন্তু বাংলাদেশের কোচ চান্দিকা হাতুরাসিংহে মনে করছেন দু’দল অন্তত একটি করে ইনিংস না খেলা পর্যন্ত ফলাফল নিয়ে আগাম কিছু বলা সম্ভব নয়। তিনি দাবি করেছেন এখন পর্যন্ত জয়ের লক্ষ্যেই খেলছে বাংলাদেশ। অপরদিকে ভারতের অভিজ্ঞ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন মনে করেন যেভাবে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যনরা শুরু করেছে ভাল একটি সংগ্রহ পাবে দল। স্কোয়াডে থাকা ৫ বোলার নিয়ে বাংলাদেশকে চেপে ধরবে ভারত এমন প্রত্যাশা তার। ফতুল্লায় বুধবার একমাত্র টেস্টের প্রথম দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তারা।

ফতুল্লা টেস্টে টস, আবহাওয়া পরিস্থিতি, উইকেট এবং এক পেসার নিয়ে খেলার সিদ্ধান্তগুলো ফলাফলের নির্ণায়ক হয়ে উঠবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ কোচ বলেন, ‘আবহাওয়াটা অনেক বড় নিয়ামক হতে পারে। এই মুহূর্তে অবশ্য উইকেট খেলার জন্য বেশ ভাল। রুবেলের বিষয়টি হচ্ছে তিনি সম্প্রতিই ইনজুরি কাটিয়ে এসেছেন এবং তিনি শতভাগ ফিট না। আরেকটি কারণ উইকেট। যদি রুবেল খেলতেন এবং তাকে অনেক বেশি বল করা লাগত পুনরায় ইনজুরি ফিরে আসার সম্ভাবনা তৈরি হতো। রুবেলকে আমরা ওয়ানডের জন্য রেখে দিয়েছি। আমাদের জন্য ওয়ানডেতে জয় পাওয়া খুব জরুরী। কারণ আমরা যদি অন্তত একটা ম্যাচ জিততে পারি সেক্ষেত্রে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলার সুযোগ মিলবে। উইকেটের বিবেচনায় যেটা আমাদের শক্তি অনুসারে সেরা মনে হয়েছে সেভাবেই স্কোয়াড গড়া হয়েছে। স্পিনার বেশি নেয়ার কারণ আবারও উইকেটের পরিস্থিতি। এ ধরনের পিচে টস জেতা এবং ব্যাট করাটা অবশ্যই বাড়তি সুবিধার।’ আজ বাংলাদেশ দলের লক্ষ্য জায়গা মতো বল ফেলে সুযোগ তৈরি করা এবং সেসব কাজে লাগানো। হাতুরাসিংহে বলেন, ‘আমি এখনও মনে করি আজ ভাল বোলিং করতে পারলে যে অবস্থায় আছে আমরা ম্যাচ জিততে পারি।’

অপরদিকে, দুই ওপেনারের ভূয়সী প্রশংসা করলেন ভারতীয় স্পিনার অশ্বিন। তিনি বলেন, ‘যেভাবে ওপেনাররা ব্যাট করেছেন সেটা অনেক ভাল হয়েছে। শিখর তার গতানুগতিক ধারায় খেলেছে এবং বিজয় একটা স্থিতি রেখেছে।’ বাংলাদেশ দলের সমন্বয় এবং ভারতীয় দলের সমন্বয় সম্পূর্ণ ভিন্ন। নিজেদের পেস বোলিং বিভাগ নিয়েও আত্মবিশ্বাসী অশ্বিন বলেন, ‘আমি মনে করি এটা নিজস্ব ধ্যান ধারণা। তারা যেভাবে উইকেটটা দেখতে চেয়েছিল সেভাবেই স্কোয়াড গড়েছে এবং আমরা ভিন্নভাবে দেখেছি। এই ট্র্যাকে যে বোলাররা ১৪০-এর বেশি গতিতে বল করতে পারবে আমরা তাদেরই রেখেছি। ম্যাচের পরের দিকে যদি আমরা কিছু রিভার্স সুইং দেখতে পাই সেটা অনেক কার্যকর হবে। আর আমাদের বোলাররা অনেক ভাল এবং গত ৬ মাসে অনেককিছুই রপ্ত করেছে।’ এবার অশ্বিনের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দলে আছেন অভিজ্ঞ অফস্পিনার হরভজন সিং।অশ্বিন বলেন, ‘আমি যা দেখেছি ক্রিকেটে যা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব সেটাও মাঝেমাঝে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ে।’

প্রকাশিত : ১১ জুন ২০১৫

১১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: