আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আবারও ইনিংস ব্যবধানে জয় ঢাকা বিভাগের

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • ওয়ালটন জাতীয় ক্রিকেট লীগ
  • জিতল রাজশাহী ॥ ইমরুলের টানা দুই ইনিংসের শতকে জয়ী খুলনা ॥ সিলেট-রংপুর ম্যাচ ড্র

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ওয়ালটন জাতীয় ক্রিকেট লীগের দ্বিতীয় রাউন্ডেও ইনিংস ব্যবধানেই জয় পেয়েছে ঢাকা বিভাগ। ঢাকা মেট্রোকে ইনিংস ও ২৪ রানে হারিয়েছে। জিতেছে রাজশাহীও। চট্টগ্রামকে ৯ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে রাজশাহী। জয় তুলে নিয়েছে খুলনাও। বরিশালকে ইমরুল কায়েসের অপরাজিত ১২৭ রানে ৬ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে। সিলেট-রংপুরের ম্যাচটি হয়েছে ড্র। ঢাকা মেট্রোর ইনিংস ব্যবধান এড়াতে আর ৬২ রান করলেই হতো। কিন্তু তাই করতে পারল না। হাতে যে ছিল মাত্র ২ উইকেট। দ্রুতই ঢাকা বিভাগ তা তুলে নিল। ৪১১ রানে অলআউট হয়ে গেল ঢাকা মেট্রো। ম্যাচও জিতে গেল ঢাকা বিভাগ। ফল হলো সেই আগের মতোই। ইনিংস ব্যবধানে জয় পেল ঢাকা বিভাগ। জুবায়ের হোসেন ৪ উইকেট তুলে নিলেন। ডাবল শতক করায় আব্দুল মজিদ ম্যাচসেরা হয়েছেন।

চট্টগ্রাম দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে তৃতীয় দিন শেষে ৫ উইকেটে ১৯৫ রান করেছিল। মনে করা হচ্ছিল ম্যাচটি ড্র’র পথেই এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু মুক্তার আলীর (৫/৫৮) দুর্দান্ত বোলিংয়ে চট্টগ্রাম হেরেই গেল। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯৮ রান করতে পারল চট্টগ্রাম। রাজশাহীর সামনে জিততে ৯৭ রানের টার্গেট দাঁড় হলো। অনায়াসে ২৫.৪ ওভারে এ রান করে ফেলল রাজশাহী। প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ৯৬ রান করার পর চট্টগ্রামের দ্বিতীয় ইনিংসে ধস নামানোয় ম্যাচসেরা হন মুক্তার আলী। বরিশাল-খুলনা ম্যাচটি ড্র হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। অথচ কী নাটকীয়ভাবেই না খুলনা শেষমুুহূর্তে গিয়ে জয় তুলে নিল। তৃতীয় দিন শেষে বরিশালের ৬ উইকেট হাতে থাকে। খুলনা পিছিয়ে থাকে ২২৪ রানে। বরিশালকে ৪০২ রানে অলআউট করে দিয়ে ইমরুল কায়েসের শতকে খুলনা ম্যাচ জিতেও যায়। ২৮৪ রানের টার্গেট দিন শেষ হওয়ার ঠিক আগমুহূর্তে অতিক্রম করে ফেলে খুলনা। টানা দুই ইনিংসে শতক করে ম্যাচসেরা হন ইমরুল কায়েস।

রংপুর ও সিলেটের ম্যাচটিও ড্র’র পথেই এগিয়ে চলেছে। তা বোঝা গেছে তৃতীয় দিনই। রংপুর তৃতীয় দিনেই ৪০৬ রানে এগিয়ে যায়। চতুর্থদিন আর ১ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। কিন্তু সিলেটের ইনিংসে এবার আর কাঁপন ধরাতে পারেনি। ৪০৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে সিলেট ৬ উইকেটে ৩২৬ রান করতেই দিন শেষ হয়ে যায়। ম্যাচও তাই ড্র হয়।

স্কোর ॥ ঢাকা-ঢাকা মেট্রো ॥ ফতুল্লা

ঢাকা বিভাগ প্রথম ইনিংস ৫২৫/৯; ইনিংস ঘোষণা (মজিদ ২৫৩*; শহীদ ৪/১০০, ইলিয়াস ৪/১১০)।

ঢাকা মেট্রো প্রথম ইনিংস- ৯০/১০; (সৈকত ৩১; শুভাগত ৫/১৭, জুবায়ের ৪/২৩) ও দ্বিতীয় ইনিংস তৃতীয় দিন শেষে ৩৭৩/৮; (শামসুর ৯২; শুভগত ৩/৯৭) ও চতুর্থদিন ৪১১/১০; ১২.৫ ওভার (হায়দার ৬৮, জাবিদ ৫৮*; জুবায়ের ৪/১৪৩)।

ফল ॥ ঢাকা বিভাগ ইনিংস ও ২৪ রানে জয়ী। ম্যাচসেরা ॥ আব্দুল মজিদ (ঢাকা বিভাগ)।

রাজশাহী-চট্টগ্রাম ॥ মিরপুর

চট্টগ্রাম প্রথম ইনিংস- ২০৯/১০; (ইরফান ৫৫, নাজিমুদ্দিন ৩৬; ফরহাদ ৫/৪৫, সাকলায়েন ৩/২৫ ও দ্বিতীয় ইনিংস তৃতীয় দিন শেষে ১৯৫/৫; (জসিম ৬১, নাজিমুদ্দিন ৫৭*; মুক্তার ৩/৪৬) ও চতুর্থদিন ২৯৮/১০; ১০৭.৩ ওভার (মুক্তার ৫/৫৮, শফিউল ৪/৫৬)।

রাজশাহী প্রথম ইনিংস-দ্বিতীয় দিন ৩৭৯/৭; (জুনায়েদ ১১৩, মুক্তার ৮৮*, সানজামুল ৬৭*; ইফতেখার ৬/১০৯) ও তৃতীয় দিন ৪১১/১০; (মুক্তার ৯৬, সানজামুল ৮৮; ইফতেখার ৮/১১২) ও দ্বিতীয় ইনিংস ১০০/১; ২৫.৪ ওভার (মাইশুকুর ৬১*, জুনায়েদ ৩৩*)।

ফল ॥ রাজশাহী ৯ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচসেরা ॥ মুক্তার আলী (রাজশাহী)।

বরিশাল-খুলনা ॥ বিকেএসপি-২

বরিশাল প্রথম ইনিংস- ২৭১/১০; (রাব্বি ৮৫, আল আমিন ৬৪, শাহরিয়ার ৫৫; রাজ্জাক ৮/১০০) ও দ্বিতীয় ইনিংস-দ্বিতীয় দিনশেষে ০/০; ১ ওভার ও তৃতীয় দিন ৩৪৩/৪; ৯৬ ওভার (শাহরিয়ার ২১৯, রাব্বি ৭৪; রবিউল ৩/৫২) ও চতুর্থদিন ৪০২/১০; ১২০ ওভার (নুরুজ্জামান ২৬*; রবি ৩/৫২)।

খুলনা প্রথম ইনিংস ৩৯০/১০; ১২০ ওভার (ইমরুল ১৬৬, জিয়া ৩৮, ডলার ৩৮; সোহাগ ৫/৯৪, নাসুম ৩/১০২) ও দ্বিতীয় ইনিংস ২৮৭/৪; ইমরুল ১২৭*, জিয়াউর ৬৫*; সোহাগ ৩/১০৯)।

ফল ॥ খুলনা ৬ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচসেরা ॥ ইমরুল কায়েস (খুলনা)।

রংপুর-সিলেট ॥ বিকেএসপি-৩

রংপুর প্রথম ইনিংস ৩৬৭/১০; ১১২.৫ ওভার (আরিফুল ৪৭, ধীমান ৪১, সাজেদুল ৩৪*; এনামুল ৫/১০৭ ও দ্বিতীয় ইনিংস তৃতীয় দিন ৩০০/৮; ৫৩.৪ ওভার (লিটন ১১৬, নাঈম ৫২, আরিফুল ৫০*; রাহাতুল ৩/৭৭, নাজমুল ২/৩০) ও চতুর্থদিন ৩০১/৮; ইনিংস ঘোষণা (আরিফুল ৫১*)।

সিলেট প্রথম ইনিংস ২৬১/১০; ১০০.৩ ওভার (কাপালি ৮১, মিলন ৫১; মাহমুদুল ৪/৪৩) ও দ্বিতীয় ইনিংস ৩২৬/৬; ৮৭ ওভার (মিলন ৬১*, রাহাতুল ৫৫, কাপালি ৫০; বিশ্বনাথ ৩/৩০)। ফল ॥ ম্যাচ ড্র।

ম্যাচসেরা ॥ লিটন কুমার (রংপুর)।

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: