আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তিনদিনেই জিতে গেল ঢাকা বিভাগ

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫
  • জয়ের দ্বারপ্রান্তে খুলনা, ড্র’র পথে চট্টগ্রাম-রংপুর ম্যাচ, জয়ের সম্ভাবনা ঢাকা মেট্রোর

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) ১৬তম আসরের প্রথম ম্যাচেই হেসে খেলে জয় পেয়েছে ঢাকা বিভাগ। তিনদিনেই জিতে গেছে। বরিশাল বিভাগকে হারিয়েছেও আবার ৪১৩ রান ও এক ইনিংসের বড় ব্যবধানেই। ঢাকা বিভাগের মতো তিনদিনে না হলেও চতুর্থদিনে গিয়ে জয় পেয়ে যেতে পারে খুলনা বিভাগ। সিলেট বিভাগের হাতে থাকা ৩ উইকেট যত দ্রুত নিতে পারবে খুলনা, জয়ের ব্যবধান ততই বড় হবে। তবে চট্টগ্রাম-রংপুরের ম্যাচটি ড্র’র দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে। জয়ের সম্ভাবনায় আছে আরেকটি দল। রাজশাহী বিভাগকে হারিয়ে দিতে পারে ঢাকা মেট্রো।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে প্রথমদিন থেকেই বরিশাল বিভাগের যে অবস্থা দেখা গেছে, তাতে ঢাকা বিভাগ যে ম্যাচটি জিতবে তা বোঝাই গেছে। ১৩৯ রানেই প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় বরিশালের। তাই বলে তিনদিনেই হার হয়ে যাবে বরিশালের! রনি তালুকদারের (২২৭ রান) ডাবল শতকের সঙ্গে রকিবুল হাসানের ১৪৫ ও তৈয়বুর পারভেজের অপরাজিত ১০৬ রানে রানের পাহাড়ে চাপা পড়ে বরিশাল। ৫ উইকেটে ৬৫১ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দেয় ঢাকা বিভাগ। সেখান থেকে নিজেদের আর তুলে ধরতে পারেনি। শুভগত হোমের (৬/২২) বোলিং নৈপুণ্যেত ৯৯ রানেই অলআউট হয়ে যায় বরিশাল।

বিকেএসপি-২ মাঠে সিলেটের হার যেন সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। আজ ম্যাচের চতুর্থদিনে খুলনার জিততে হলে সিলেটের হাতে থাকা ৩টি উইকেট নিয়ে নিলেই হলো। প্রথম ইনিংসে খুলনার গড়া ৫৩৬ রানই এখন পর্যন্ত দুই ইনিংস মিলিয়ে অতিক্রম করতে পারেনি সিলেট। প্রথম ইনিংসে ১৮৪ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে তৃতীয় দিন শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৭ রান করেছে সিলেট। এখনও ২১৫ রান লাগবে খুলনার প্রথম ইনিংসে গড়া রানের সমান হতে। আব্দুর রাজ্জাক (৪/৪৯) যেভাবে জ্বলে উঠেছেন, সিলেটের এত বিশাল রান করার পর ম্যাচ বাঁচানো কঠিনই।

ফতুল্লায় চট্টগ্রাম-রংপুর ম্যাচটি অবশ্য ড্র’র দিকে এগিয়ে চলেছে। যে ধারাবাহিকতায় খেলা চলছে, সেই হিসেবে ড্র’ই হওয়ার কথা। বাকিটা আজ প্রথম ম্যাচের শেষদিনেই বোঝা যাবে। চট্টগ্রামের জিততে লাগবে আরও ৩৩৭ রান। এ রান তুলে জয় পাওয়া কঠিন। প্রথম ইনিংসে রংপুর ২৬৯ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেটে ২৫৭ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে দেয়। প্রথম ইনিংসে চট্টগ্রাম ১০৭ রানেই অলআউট হয়ে গেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ৮৩ রান করতেই ৩ উইকেট হারায়। রংপুরের এ ম্যাচ থেকে জয় পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। যদি চট্টগ্রামের হাতে থাকা ৭ উইকেট দিন শেষ হওয়ার আগে তুলে নিতে পারে।

বিকেএসপি-৩ মাঠে রাজশাহীর বিপক্ষে ঢাকা মেট্রোও জয়ের সুবাতাস পাচ্ছে। রাজশাহী এখনও ৩৫৮ রানে পিছিয়ে রয়েছে। চতুর্থ দিনে ম্যাচ বাঁচাতে হলে সারাদিন উইকেট আঁকড়ে থাকতে হবে। হাতে আছে ৪টি উইকেট। ঢাকা মেট্রো প্রথম ইনিংসে ৩০২ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে মেহরাব জুনিয়রের ১০৮ রানে ৩৭৫ রান করে অলআউট হয়। প্রথম ইনিংসে রাজশাহী ২১৮ রান করার পর তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ১০১ রান করতেই ৬ উইকেট হারায়। এখন রাজশাহীর হাতে থাকা ৪ উইকেট যত দ্রুত শিকার করতে পারবে ঢাকা মেট্রো, তত দ্রুতই জয় ধরা দেবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ॥ তৃতীয় দিন শেষে

ঢাকা-বরিশাল বিভাগ ম্যাচ-মিরপুর

বরিশাল বিভাগ প্রথম ইনিংস ১৩৯/১০; রাব্বি ৫২; শরীফ ৬/২৪ ও দ্বিতীয় ইনিংস ৯৯/১০; ২৯.৪ ওভার (আল আমিন ৩৬; শুভগত ৬/২২)।

ঢাকা বিভাগ প্রথম ইনিংস দ্বিতীয় দিন শেষে ৫৯১/৪; তৈয়বুর ৮৫* ও তৃতীয় দিন ৬৫১/৫; ইনিংস ঘোষণা (রনি ২২৭, রকিবুল ১৪৫, তৈয়বুর ১০৬*; নাসুম ২/১৫৩)।

ফল ॥ ঢাকা বিভাগ ৪১৩ রান ও ইনিংসে জয়ী। ম্যাচসেরা ॥ রনি তালুকদার (ঢাকা বিভাগ)।

খুলনা-সিলেট বিভাগ-বিকেএসপি-২

খুলনা প্রথম ইনিংস ৫৩৬/৮; ইনিংস ঘোষণা (তুষার ১৭৭*, নুরুল ১১৫; কাপালি ৩/৭৬)।

সিলেট প্রথম ইনিংস ১৮৪/১০; নাজমুল ৩২, কাপালি ৩০; মুরাদ ৩/২৭ ও দ্বিতীয় ইনিংস ১৩৭/৭; ৪৯ ওভার (নাজমুল ২৪; রাজ্জাক ৪/৪৯)।

চট্টগ্রাম-রংপুর ম্যাচ-ফতুল্লা

রংপুর প্রথম ইনিংস ২৬৯/১০; নাঈম ১০৭; বাবু ৪/৪৯ ও দ্বিতীয় ইনিংস ২৫৭/৫; ইনিংস ঘোষণা লিটন ১৫০, তরিক ৪৩; ফয়সাল ২/৫১)।

চট্টগ্রাম প্রথম ইনিংস ১০৭/১০; ইরফান ৩২; শুভাশিষ ৩/৩৭ ও দ্বিতীয় ইনিংস ৮৩/৩; ৩৭ ওভার (মাহবুবুল ৩২, ইরফান ১৫*)।

ঢাকা মেট্রো-রাজশাহী ম্যাচ-বিকেএসপি-৩

ঢাকা মেট্রো প্রথম ইনিংস ৩০২/১০; মেহেদী ১৪১; সানজামুল ৪/৯৮ ও দ্বিতীয় ইনিংস ৩৭৫/১০; মেহরাব জুনিয়র ১০৮, আসিফ ৬৬; সাকলাইন ৬/১২০)।

রাজশাহী প্রথম ইনিংস ২১৮/১০; জুনায়েদ ৫৫, জুবায়ের ৫৪; শরীফুল্লাহ ৩/৪৪ ও দ্বিতীয় ইনিংস ১০১/৬; ২৩ ওভার (ফরহাদ ৪৪*; সৈকত ৪/৪৪)।

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

২৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: