২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

মণিরামপুরে বাড়ি বাড়ি লাল নিশান কোয়ারেন্টাইনে ১১২

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০২০, ০৭:৫৭ পি. এম.
মণিরামপুরে বাড়ি বাড়ি লাল নিশান কোয়ারেন্টাইনে ১১২

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ মণিরামপুরে বিভিন্ন দেশ থেকে ফেরত আসা ব্যক্তিদের বাড়িতে লাল নিশান উড়তে শুরু করেছে। গত মঙ্গলবার বিকেল থেকে এই নিশান টানানোর কাজ শুরু করেছে উপজেলা প্রশাসন। উপজেলার রোহিতা ও মশ্মিমনগর ইউনিয়নের ৬৪ জনের বাড়িতে এই নিশান টানানোর কাজ চলছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণ এবং এলাকাবাসীকে সচেতন করাসহ বিদেশফেরত ব্যক্তিদের প্রয়োজনীয় সেবা ও পরামর্শ দিতে তাদের বাড়িতে এই নিশান টানানো হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। এদিকে অভিযোগ রয়েছে, বিভিন্ন দেশ থেকে মণিরামপুরে ফেরত আসা ব্যক্তিদের বেশিরভাগই কোয়ারেন্টাইন মানছেন না। তারা বাড়িতে অবস্থান না করে বাইরে ঘোরাঘুরি করছেন। ফলে তাদেরকে নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে এলাকাবাসীর। কোয়ারেন্টাইন না মানায় ভারত থেকে ফেরা বাসুদেবপুর গ্রামে পলাশ নামে এক যুবককে বুধবার দশ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া বাড়িতে না থেকে বাজারে ঘোরাঘুরি করায় রোহিতা ইউনিয়নের বিদেশফেরত এক ব্যক্তিকে স্থানীয়রা মারপিট করেছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। উপজেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্যমতে, গত ৪ মার্চ থেকে ২১ মার্চ পর্যন্ত ভারত, মালয়েশিয়া, দুবাই, আমেরিকা ও চীনসহ বিভিন্ন দেশ থেকে এক হাজার ৫৬ জন প্রবাসী মণিরামপুরে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরেছেন। কিন্তু বুধবার পর্যন্ত মাত্র ১১২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনতে পেরেছে প্রশাসন। বিদেশফেরত সবার প্রতি কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার নির্দেশনা থাকলেও বাকিরা এই নিয়ম মানছেন না।

মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. শুভ্রারানী দেবনাথ ১১২ জনকে কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রোহিতা ইউপি সচিব কৃষ্ণগোপাল মুখার্জী জানান, মঙ্গলবার এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসানের উপস্থিতিতে বিদেশফেরত ১৪ ব্যক্তির বাড়িতে লাল নিশান টানানো হয়েছে। বুধবারও নিশান টানানোর কাজ চলছে। উপজেলার মশ্মিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন জানান, বুধবার ওই ইউনিয়নে বিদেশফেরত ৪০ জনের বাড়িতে লাল নিশান টানানো হয়েছে। এর সংখ্যা আরো বাড়বে।

মণিরামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমা খানম বলেন, বিদেশফেরতরা যেন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন মেনে চলেন, এলাকাবাসী যেন সহজে বিদেশফেরত ব্যক্তিদের বাড়ি চিনতে পারেন এবং সেই বাড়িতে যাতায়াত থেকে দূরে থাকেন, তার জন্য তাদের বাড়িতে লাল নিশান টানানোর কাজ চলছে।

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০২০, ০৭:৫৭ পি. এম.

২৫/০৩/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: