১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলি বিনিময় অস্ত্রসহ চার রোহিঙ্গা আটক

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:৩০ পি. এম.
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলি বিনিময়  অস্ত্রসহ চার রোহিঙ্গা আটক

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে সন্ত্রাসী রোহিঙ্গা ও পুলিশের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনায় ভাবিয়ে তুলেছে সচেতন মহলকে। রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। আটককৃত সন্ত্রাসীকে ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার ভোর রাতে উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্প ৬ ও ৩ এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরী একটি অস্ত্র সহ চার সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে উখিয়ার কুতুপালং মধুর ছড়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ -পরিদর্শক মো: মোবারক হোসেন বাদী মঙ্গলবার উখিয়া থানায় অস্ত্র ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপের দায়ে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেন।

ক্যাম্প পুলিশ জানিয়েছে, উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একদল সন্ত্রাসী রোহিঙ্গা যুবক খালেদকে অপহরন করে নিয়ে যায়। পুলিশ খবর পেয়ে সন্ত্রাসীদের আস্তনা থেকে অপহৃত খালেদকে উদ্ধার করে নিয়ে আসার সময় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা তাকে পুলিশের হাত ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ফাঁকা গুলি ছুড়লে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি বর্ষন করে।

উথিয়া থেকে সংবাদদাতা জানান, পুলিশ সন্ত্রাসীর মধ্যে প্রায় ১৫-২০ গুলি বিনিময় হয়েছে। রোহিঙ্গাদের হামলায় আহত চার পুলিশ সদস্যরা হলেন, উখিয়া থানার উপ-পরির্দশক ছিম্পু বড়ুয়া, সিপাহি শাহীন আহমেদ, তানভীর ছোটন। আহতদের উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প -৬ এর মৃত দলিলুর রহমানের ছেলে সৈয়দ নুর, নুরুল ইসলামের স্ত্রী নুর নাহার, উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নুর ইসলামের পুত্র মো: আনিস ও তার স্ত্রী খালেদা বেগমকে আটক করেছে। তাদের স্বীকারোক্তি মতে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও ২ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:৩০ পি. এম.

১৮/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: