২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

ভৈরবে প্রকাশ্যে মাদক বেচা-কেনা করছে পুলিশের খাতায় পলাতক আসামী

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০৩:৫৪ পি. এম.
ভৈরবে প্রকাশ্যে মাদক বেচা-কেনা করছে পুলিশের খাতায় পলাতক আসামী

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভৈরব ॥ ভৈরবের পঞ্চবটি পুকুরপাড়ের মাদক সম্রাজ্ঞী সুমী বেগম ২৭ টি মাদক মামলার আসামী। পুলিশের খাতায় সে পলাতক হলেও প্রকাশ্য চলে তার মাদক ব্যবসা। সর্বশেষ ১২ জানুয়ারি ভৈরববাজার বাগানবাড়ি এলাকা থেকে ১শত বোতল ভারতীয় ফেনসিডিলসহ তার ভাগিনা জীবনকে আটক করে পুলিশ। এ সময় সুমী পালিয়ে যায়। পলাতক দেখিয়ে মামলা দেয়া হলেও পুলিশ তাকে ধরছেনা ।

খোঁজনিয়ে জানাগেছে, মাদক সম্রাজ্ঞী সুমী বেগম ভৈরবের পঞ্চবটি এলাকায় বসবাস করে। তার স্বামী জাহাঙ্গীর আখাউড়ার নূরপুর এলাকার মাদক চোরাকারবারী। স্বামী মাদক চোরাকারবারীর সুবাধে সীমান্ত এলাকা থেকে মাদক সহজেই ভৈরব চলে আসে। সে এলাকায় মাদক ডিলার নামে পরিচিত। তার ভাই শানু মিয়া পুলিশের সোর্সসের কাজ করে। ফলে ভাইয়ের শেল্টারে সুমী প্রকাশ্য মাদক বেচা-কেনা করছে। তার বিরুদ্ধে ভৈরব থানায় ১২টি মামলাসহ ,কিশোরগঞ্জ,রেলওয়ে থানা,বি-বাড়িয়া,আখাউড়া, আশুগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কমপক্ষে ২৭টি মাদকের মামলা রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানাগেছে।

মাদক সম্রাজ্ঞী সুমীর এতোই দাপট পুলিশ তাকে ধরা তো দুরের কথা তার কথা মত পুলিশকে কাজ করতে হয়। গত মাসে ভৈরব শহর পুলিশ ফাড়ির তাকে ধরতে যাওয়ায় সেই অঢিসারদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ঘুষ নেয়ার অভিযোগ তুলে। ফলে ফাড়ির দুই অফিসারকে অনত্র বদলী করতে হয়। পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে পার পেয়ে যাওয়ায় এবার সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়ার হুমকি দিয়েছে এই মাদক সম্রাজ্ঞী।

ভৈরব থানার সেকেন্ড অফিসার মোকলেসুর রহমান জানান, সুমীকে ধরতে সর্বাতক চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে সর্বশেষ ফেনসিডিলের মামলার আমি তদন্ত কর্মকর্তা। তাকে ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়েছে।

ভৈরব থানার ওসি মোঃ শাহিন জানান, মাদক বিক্রি করে কেউ পার পাবেনা। ধরা পড়তেই হবে।

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০৩:৫৪ পি. এম.

২০/০১/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: