ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১

প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় অর্থনীতি ধরে রাখার প্রচেষ্টা: জাসদ

প্রকাশিত: ২২:৫৩, ১ জুন ২০২৩

প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় অর্থনীতি ধরে রাখার প্রচেষ্টা: জাসদ

প্রতীকী ছবি।

বৈশ্বিক মহামারি করোনার সুদূর প্রসারি অভিঘাত এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে সৃষ্ট সংকটের মধ্যে প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় অর্থনীতি ধরে রাখার প্রচেষ্টা হিসেবে দেখছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ।

বৃহস্পতিবার (১ জুন) রাতে হাসানুল হক ইনু ও শিরীন আখতারের নেতৃত্বাধীন এই দলের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বাজেট প্রতিক্রিয়া জানানো হয়।

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় নেতারা বলেন, বাজার সিন্ডিকেট ধ্বংস করে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখা, সীমিত ও নিম্ন আয়ের মানুষের ক্রয়ক্ষমতা ধরে রাখা, বিদ্যুৎ-গ্যাস-জ্বালানি সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখা এবং ডলার ব্যবস্থাপনাসহ আন্তর্জাতিক লেনদেন সচল রাখা এবারের বাজেট বাস্তবায়নের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

তারা বলেন, ২ লাখ ৫৭ হাজার ৮৮৫ কোটি টাকা ঘাটতি ধরেও ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকার বাজেট উত্থাপন জাতীয় অর্থনীতির সক্ষমতারই পরিচায়ক।

ইনু ও শিরিন বলেন, প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়নে প্রশাসনিক দক্ষতা, রাষ্ট্রীয় ব্যয়ের মান ধরে রাখার জন্য সুশাসন নিশ্চিত করা, রাজস্ব আহরণের পদ্ধতি জোরদার করা, কর ও রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া বন্ধ করা গেলে এই ঘাটতি পূরণ করা সম্ভব হবে।

তারা বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, বাজার সিন্ডিকেট ধ্বংস করে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখা, সীমিত ও নিম্ন আয়ের মানুষের ক্রয়ক্ষমতা ধরে রাখা, বিদ্যুৎ-গ্যাস-জ্বালানি সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখা এবং ডলার ব্যবস্থাপনাসহ আন্তর্জাতিক লেনদেন সচল রাখা।

নেতারা বলেন, সামাজিক সুরক্ষা খাত, স্বাস্থ্য, কৃষিতে বরাদ্দ বাড়লেও চলতি অর্থবছরের তুলনায় শিক্ষা খাতে বরাদ্দ কমিয়ে দেওয়া দুঃখজনক। মোবাইল ফোন, পেনড্রাইভ, এসডি কার্ড, স্ক্যানার, প্রিন্টার, সিসি টিভি, ইলেক্ট্রনিক ও ইলেকট্রিক হোম এপ্লায়েন্স এখন আর বিলাসী দ্রব্য নয়, প্রস্তাবিত বাজেটে এগুলোর দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব ডিজিটাল বাংলাদেশ ও স্মার্ট বাংলাদেশের প্রত্যয়ের সাথে সাংঘর্ষিক এবং স্ববিরোধী। 

তারা বলেন, এলপি গ্যাস সিলিন্ডার, সিমেন্ট, কলম, চশমা, কাগজের দাম বৃদ্ধির প্রভাবও পরবে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্তদের ওপর।

এমএম

×