ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

মুক্তিযোদ্ধার চরিত্র আমার খুবই পছন্দ ॥ নাফিজ আহমেদ

 -গৌতম পাণ্ডে

প্রকাশিত: ২১:৩৯, ১৬ মার্চ ২০২৩

মুক্তিযোদ্ধার চরিত্র আমার খুবই পছন্দ ॥ নাফিজ আহমেদ

নাফিজ আহমেদ বিন্দু

এ প্রজন্মে সম্ভাবনাময় অভিনেতা নাফিজ আহমেদ বিন্দু। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমা ‘ওরা ৭ জন’। একাত্তরে সাত তরুণ মুক্তিযোদ্ধার অভিযানের ঘটনাকে বড় পর্দায় তুলে এনেছেন খিজির হায়াত খান। সিনেমায় সুমিত চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসায় ভাসছেন নাফিজ আহমেদ বিনদু। সম্প্রতি সিনেমা ও নিজের কাজ নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে। 
‘ওরা ৭ জন’ সিনেমায় অভিনয় নিয়ে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?
দর্শক অনেকদিন পরে আবার ভালো একটি মুক্তিযুদ্ধের সিনেমা পেয়েছে। চেষ্টা করেছি নিখুঁতভাবে অভিনয় করার। সিনেমাটি দেখে দর্শক ভালো লাগার কথা জানিয়েছে। তারা আবেগে ভাসছেন। এটা দেখেই আমাদের ভালো লাগা। সব মিলিয়ে সিনেমাটি নিয়ে ভালো সাড়া পাচ্ছি।
এ সিনেমায় আপনার চরিত্র সম্পর্কে বলেন।
আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি। সে কারণে এ চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে আমাকে অনেক স্টাডি করতে হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রগুলো আমার খুবই পছন্দের। সাতজন মুক্তিযোদ্ধার একজন সুমিত, মূলত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, প্রেমিক যুবক ও সবার ভালোবাসার একজন মানুষ। সব ভালোবাসার মানুষদের ত্যাগ করে দেশকে ভালোবেসে সে যুদ্ধে চলে যায়। পথে পথে যুদ্ধ করতে থাকে। এক পর্যায়ে গিয়ে সেই ৬ জনের সঙ্গে সে মিলিত হয়। এই চরিত্রটি নিজের মধ্যে ধারণ করতে গিয়ে অনেক ধরনের বাঁধার মধ্যে পড়তে হয়েছে। একদিকে সময়ের ব্যবধান অন্যদিকে অতীত পরিস্থিতি। চ্যালেঞ্জ তো ছিলই, তবে টিম মেম্বারদের সহযোগিতায় সবকিছু উতরে যেতে পেরেছি।
আপনার অভিনীত আগের ছবি সম্পর্কে বলেন।
এর আগেও আমি একটি মুক্তিযুদ্ধের সিনেমায় অভিনয় করেছি। ছবির নাম ‘রিনা ব্রাউন’। যার পরিচালক শামীম আক্তার। তার প্রেক্ষাপট ছিল  কিছুটা ভিন্ন। এখানে খুব ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। বড় পরিসরে ‘ওরা ৭ জন’ আমার প্রথম কাজ।
ছবিটি কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধাকে দেখানো হয়, প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল?
মুক্তিযোদ্ধা যারা সেদিন ছবিটি দেখেছিলেন তারা সবাই আপ্লুত হয়েছেন। সিনেমাটি দেখে অনেকেই কেঁদেছেন। সেখানে তারা বলছিলেন- তারা যেন ১৯৭১ সালের সেই সময়ে ফিরে গেছেন। ‘ওরা ৭ জন’ সিনেমার পরিচালক খিজির হায়াত খানসহ আমরা যারা সিনেমায় অভিনয় করেছি তাদের জন্য সেই মুক্তিযোদ্ধারা দোয়া করেছেন। একজন অভিনেতা হিসেবে এটা অনেক বড় পাওয়া।
বর্তমানে ব্যস্ততা কি নিয়ে?
এখন বেশকিছু ওয়েব সিরিজ ও ওয়েব ফিল্ম নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছি। এরমধ্যে পরিচালক গৌতম কৈরির ‘আন্তঃনগর’ এ কাজ করছি। এটি চরকিতে মুক্তি পাবে। এছাড়া মিজানুর রহমান লাবুর ‘আমার অরণ্য’ কাজ হয়েছে। সেই সঙ্গে ঈদের জন্য কিছু কাজ করছি। সিনেমার জন্য কথা চলছে, ব্যাটে-বলে মিলে গেলে কাজ করব।
    -গৌতম পাণ্ডে

×