শনিবার ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১১ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

যশোরে খেজুর গাছ পরিচর্যায় ব্যস্ত গাছিরা

যশোরে খেজুর গাছ পরিচর্যায় ব্যস্ত গাছিরা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ চলছে উৎসবের ঋতু হেমন্তকাল। এর পরেই আসবে শীতের প্রাণ পৌষ ও মাঘ মাস। কিন্তু এর আগেই প্রকৃতিতে শীত শীত ভাব বিরাজ করছে। এমন পরিবেশ বুঝে যশোরের গাছিরা আগাম খেজুর গাছ পরিচর্যা শুরু করেছেন। যারা খেজুরগাছ রস সংগ্রহের কাজ করে তাদেরকে গাছি বলে। আগাম রস পাওয়ার আসায় যশোরের গাছিরা গাছে রস আনার জন্য পুরোদমে পরিচর্যা শুরু করেছে। গাছ তোলা, ঠিলে ধোয়া, রস জ্বালানোর চুলা তৈরিসহ নানা কাজে ব্যস্ত যশোরের গাছিরা। সরেজমিনে এমন দৃশ্য দেখা গেছে যশোর সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

জানা গেছে, যশোরের ঐতিহ্য খেজুরের রস-গুড়-পাটালি। এ জেলার উৎপন্ন গুড়-পাটালি স্বাদে ও সর্বোৎকৃষ্ট। তাই খেজুর গুড়ের প্রসঙ্গ উঠে আসলে সবার আগে যশোরের কথা উঠে আসে। এ জেলায় খেজুর গাছের জন্য একটি গ্রামের নামই হয়েছে খাজুরা গ্রাম। এ গ্রামের অধিকাংশ মানুষই খেজুর গাছের রস এবং চাষের সাথে সম্পৃক্ত।

যশোর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জেলার প্রায় আট উপজেলায় খেজুর গাছ রয়েছে। কিন্তু সবচেয়ে বেশি রয়েছে যশোর সদর, মণিরামপুর, শার্শা, চৌগাছা, বাঘারপাড়ায়। জেলায় ৭ লক্ষ ৯১ হাজার ৫১৪টি খেজুর গাছ রয়েছে। গত বছর ৪ হাজার ৬৪০ মেট্রিক টন গুড়-পাটালি ও প্রায় ৪০ মেট্রিক টন রস উৎপাদন হয়েছে। এবার প্রায় ৫ লক্ষ গুড়-পাটালি উৎপাদন করার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

যশোরের খাজুরা মাঠপাড়া গ্রামের গাছি আব্দুল জলিল বলেন, যশোরের ঐতিহ্য আজ বিলুপ্তের পথে, কারণ আগের মত খেজুর গাছ এখন আর দেখা যায় না। এবছর ৩০টির মতো খেজুরগাছ পরিচর্যা করছি। আগাম রস আনতে পারলে রস এবং নলেন গুড়-পাটলির ভালো দাম পাবো।

একই এলাকার চাষি নজরুল, ইবাদত, সালাম মোল্লারা জানান, খেজুরগাছ থেকে রস বের করা এবং ভোরে গাছ থেকে রস নামানো খুব কঠিন কাজ এবং ঝুঁকি নিয়ে গাছ কাটা হয়। এতো কষ্ট করেও গুড়ের দাম না পাওয়ায় অনেকে এ কাজে নিরুৎসাহিত হচ্ছেন।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যশোরের উপ-পরিচালক ইমদাদ হোসেন সেখ জানান, যশোরের ঐতিহ্য খেজুর গাছ অনেক কমে গেছে। সরকারিভাবে খেজুর গাছ রোপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বর্তমান প্রজন্মের লোকেরা খেজুরগাছের গুড় সংগ্রহের প্রতি বেশি উৎসাহী না হওয়ায় কিছুটা গাছ কমেছে বলে তিনি মনে করছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
‘করোনা সাহেদের’ জমি প্রতারণা         ইতালি ফেরতদের ১৪৭ জন আশকোনায় কোয়ারেন্টাইনে         নির্বাচন কমিশন নিয়ে ফখরুলের বক্তব্য ষড়যন্ত্রমূলক ॥ কাদের         রিজেন্ট সিলগালা করার সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন দিয়েছিল সাহেদ         মায়ের কবরের পাশে সাহারা খাতুনের লাশ আজ দাফন         করোনা রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর         করোনায় দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮৬,৪০৬ জন         ইরানে ফের সর্বোচ্চ মৃত্যু         আন্তঃজেলা রুটে দোতলা বাস নামাতে পারছে না বিআরটিসি         দ্বিতীয় দফায় বন্যার প্রকোপ শুরু, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত         চট্টগ্রামে ফের কিট সঙ্কট ॥ নমুনা পরীক্ষা নেমে এসেছে অর্ধেকে         হালদায় পোনা উৎপাদনে এবার রেকর্ড সাফল্য         ইলিশে ভর করে কমছে সব মাছের দাম         দেশে ফিরলেন মালদ্বীপে আটকে পড়া ১৫৭ জন         উদ্ভাবনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার ॥ পলক         রাষ্ট্রপতির ছোট ভাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত, সিএমএইচে ভর্তি         সাহেদকে ছাড় দেয়ার প্রশ্নই আসে না ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         ইসি নিয়ে ফখরুলের বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ষড়যন্ত্রমূলক ॥ কাদের         মাদকদ্রব্যের তালিকায় টাপেন্টাডলকে যুক্ত করে গেজেট প্রকাশ         রূপালী ইলিশে ভর করে কমছে দেশী মাছের দাম        
//--BID Records