বৃহস্পতিবার ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০২ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শিরোপা ধরে রাখার লড়াই আজ বাংলাদেশের

শিরোপা ধরে রাখার লড়াই আজ বাংলাদেশের
  • মিরপুর ইনডোরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক ভলিবল ফাইনালে প্রতিপক্ষ তুর্কমেনিস্তান

রুমেল খান ॥ এই প্রবাদ বাক্যটি কার না জানাÑ ‘মুকুট পরার চেয়ে তা ধরে রাখা কঠিন।’ কোন খেলায় চ্যাম্পিয়ন হলে সেই শিরোপা যদি মুকুটের সমতুল্য হয়, তাহলে সেই মুকুট এখনও সগর্বে ধারণ করে আছে বাংলাদেশ জাতীয় ভলিবল দল। তবে মুকুটটি আজ তারা ধরে রাখতে পারবে কি না তারই চরম পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হবে তাদের। পরীক্ষার নাম? ‘বঙ্গবন্ধু এশিয়ান সিনিয়র মেনস সেন্ট্রাল জোন ইন্টারন্যাশনাল ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল। পরীক্ষার ভেন্যু? মিরপুরের শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়াম। সময়? আজ শুক্রবার বেলা ৩টায়। এছাড়া তৃতীয়/চতুর্থ স্থান নির্ধরাণী ম্যাচ হবে সকাল সাড়ে ১০টায়। এতে নেপাল মুখোমুখি হবে কিরগিজস্তানের।

গ্রুপ (‘এ’) ম্যাচে বাংলাদেশ হারায় যথাক্রমে নেপাল এবং মালদ্বীপকে। সেমিতে হাড্ডাহড্ডি লড়াই করে হারায় কিরগিজস্তানকে। পক্ষান্তরে ‘বি’ গ্রুপে তুর্কমেনিস্তান যথাক্রমে হারায় উজবেকিস্তান এবং কিরগিজস্তানকে। সেমিতে হারায় নেপালকে।

ফাইনালের আগে কী ভাবছে দুই দল? কেমন প্রস্তুতি হয়েছে তাদের? বাংলাদেশ দলের ইরানী কোচ আলীপোর আরোজি বলেন, ‘তারা (তুর্কমেনিস্তান) খুবই পেশাদার দল। কিন্তু এটা নিয়ে আমাদের চিন্তার কিছু নেই। কেননা উজবেকিস্তান, কিরগিজস্তানও ভাল দল ছিল। তারাও ভলিবলটা ভাল জানে। টেকনিক্যালি, ট্যাকটিক্যালিও তারা ভাল। এ মুহূর্তে বাংলাদেশ দলও ভাল ফর্মে আছে। এখন ফাইনাল ম্যাচ। যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। কঠোর পরিশ্রম করেছি। আমাদের কৌশল, সামর্থ্য আমরা গত ম্যাচগুলোয় দেখিয়েছি। তবে ফাইনালটা কঠিন হবে। কেননা তারাও ভাল প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে।’

নেপাল এবং কিরগিস্তানের সঙ্গে খেলায় প্রথম সেটে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। যদিও পরে তারা সমতা এনে ম্যাচ জিতে নিয়েছিল, কিন্তু প্রথম সেটে হেরে যাওয়া মানেই তো চাপে পড়ে যাওয়া, আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি হওয়া। এ প্রসঙ্গে আরোজি বলেন, ‘ভলিবলে এমনটা হতেই পারে। আপনি শুরুর দুই সেট হেরে গেলেন। কিন্তু ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ আপনার মুঠোয় ছিল এবং পরে আপনি ঘুরে দাঁড়িয়ে জিততেও পারেন। এই প্রতিযোগিতা দেখিয়েছে আমাদের ছেলেরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে এবং জিততেও পারে।’

দলের প্রস্তুতি নিয়ে বাংলাদেশ দলের কোচ হরোশিত বিশ্বাস বলেন, ‘সার্ভিস, ব্লক, এ্যাটাকÑ সব বিভাগেই যদি আমরা ভাল করতে পারি তাহলেই আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারব। নেপালের বিপক্ষে আমরা প্রথম সেট খারাপ করেছিলাম কিন্তু পরে ভাল করেছিলাম। মালদ্বীপের বিপক্ষে ভাল করেছি। সেমিফাইনালে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে প্রচ- চাপের মুখে খেলে আমাদের লাভ হয়েছে। আমরা একটু একটু করে আরও অভিজ্ঞতা নিতে পেরেছি। সিনিয়র-জুনিয়ররাও বুঝেছে কিভাবে খেললে আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারব। সেমির ম্যাচে যখন একপর্যায়ে আমরা যখন ভাল করছিলাম না কোচ আমাদের ভুলগুলো দ্রুত ধরিয়ে দিলেন; তাতে ব্লকিংয়ে ভাল করতে শুরু করলাম। ভলিবলে ব্লকিংটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটা ভাল হলে জেতাটা অনেক সহজ হয়ে যায়।’ চাপ প্রসঙ্গে হরোশিত আরও বলেন, ‘আমরা চাপে নেই। সবাই চাপমুক্ত আছে। গত ম্যাচটা জিততে চেয়েছিলাম, পেরেছি। আশাকরি ফাইনালেও পারব। যখন একটা দল দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হয়, তারাই ভাল করে। আমরাও কঠোর পরিশ্রম করেছি। এই টুর্নামেন্টে ভাল করতে পারলে আমরা অনেক আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পাব। দেশের অনেক খেলোয়াড় উঠে আসবে। এই টুর্নামেন্ট জিতলে আমাদের ভলিবল অনেক এগিয়ে যাবে।’

নেপাল, মালদ্বীপ এবং কিরগিজস্তানকে হারানোর পর বাংলাদেশ দলের প্রত্যেকেই ১০ হাজার টাকা করে অর্থ পুরস্কার পেয়েছে ভলিবল ফেডারেশনের সভাপতি আতিকুল ইসলামের কাছ থেকে। সেটা অব্যাহত থাকবে যদি বাংলাদেশ ফাইনালের দ্বৈরথেও জিততে পারে। টুর্নামেন্ট সামনে রেখে এবার বাংলাদেশ দল দীর্ঘ অনুশীলন করেছে। এছাড়া ইরানে ২১ দিনের কন্ডিশনিং ক্যাম্পও করেছে। ইরানী কোচ আলীপোর আরোজির অধীনে টেকনিক্যালি এবং ট্যাকটিক্যালি অনেক কিছু শিখেছে। সেগুলোই ফাইনালের ম্যাচে প্রয়োগ করার পালা। সেটা করে দেখাতে পারবে কী আরোজির শিষ্যরা?

শীর্ষ সংবাদ:
পদ্মায় তীব্র স্রোতে ফেরি চলাচল ব্যাহত         ঘুষের কথা স্বীকার করেও নিজেকে ‘নির্দোষ’ বলছেন পাপুল!         মিয়ানমারে খনিতে ধস ॥ নিহত ৫০         আমেরিকায় করোনায় মৃত্যু এক লাখ ২৬ হাজার ॥ চাপে ট্রাম্প         বিশ্বে করোনায় মৃত্যু বেড়ে ৫ লাখ ১৫ হাজার         ব্রাজিলে ৬০ হাজারের বেশি প্রাণহানি         নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ         হংকংয়ের ৩০ লাখ বাসিন্দাকে নাগরিকত্ব দেয়ার ঘোষণা ব্রিটেনের         প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সরকারী বাংলো ছাড়ার নির্দেশ         খাশোগি হত্যায় অভিযুক্তদের বিচার শুরু করছে তুরস্ক         এখন মাস্ক পরতে রাজি ডোনাল্ড ট্রাম্প         ভারতীয় সেনার গুলিতে বৃদ্ধের মৃত্যুতে উত্তাল কাশ্মীর         ইথিওপিয়ায় বিক্ষোভ-সহিংসতায় নিহত ৮১॥ সেনা মোতায়েন         ইতালিতে বিশ্বের বৃহত্তম মাদকের চালান জব্দ         সিরিয়া বিষয়ক ত্রিদেশীয় অনলাইন শীর্ষ সম্মেলনের যৌথ বিবৃতি         ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার অনুমোদন পেলেন পুতিন         চীনা নিরাপত্তা আইনে হংকংবাসীর জীবন শুরু         শুরু হলো পথচলা ॥ নতুন অর্থ বছর         উত্তরে বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল, মধ্যাঞ্চলে অবনতি         যত্রতত্র পশুর হাটের অনুমতি দেয়া যাবে না ॥ কাদের        
//--BID Records